ঢাকা, বৃহস্পতিবার 28 June 2018, ১৪ আষাঢ় ১৪২৫, ১৩ শাওয়াল ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

বিদায়ের আগে কোরিয়ার কাছেও হারল চ্যাম্পিয়ন জার্মানি

দক্ষিণ কোরিয়ার কাছে পর পর দুই গোল হজম করার পর বিধ্বস্ত চ্যাম্পিয়নরা -ইন্টারনেট

রফিকুল ইসলাম মিঞা : রাশিয়া বিশ্বকাপে ঘটল বড় ধরেনের অঘটন। দ্বিতীয় রাউন্ডে উঠতে পারেনি চ্যাম্পিয়ন জার্মানি। আবার শেষ ম্যাচে বিদায়ের আগে ২-০ গোলে জার্মানরা হারল দক্ষিণ কোরিয়ার কাছে। ফলে ‘এফ’ গ্রুপ থেকে চ্যাম্পিয়ন জার্মানিকে পিছনে ফেলে দ্বিতীয় রাউন্ড নিশ্চিত করেছে সুইডেন আর মেক্সিকো। গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচে গতকাল মেক্সিকোকে হারিয়ে সুইডেন গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়ে দ্বিতীয় রাউন্ডে উঠে। আর জার্মানিকে পিছনে ফেলে মেক্সিকো গ্রুপ রানার্স আপ হয়ে দ্বিতীয় রাউন্ড নিশ্চিত করে। ফলে রাশিয়া বিশ্বকাপে দ্বিতীয় রাউন্ডের আগেই দেশের টিকিট ধরতে হচ্ছে চ্যাম্পিয়ন জার্মানির। আসলে এবারের বিশ্বকাপে ফেভারিটদের শুরুটাই ভালো হয়নি। জার্মানি, ব্রাজিল আর আর্জেন্টিনার গ্রুপ পর্ব টপকাতেই বাঁচা-মরার লড়াই করতে হয়েছে। রানার্স আপ আর্জেন্টিনা শেষ পর্যন্ত টিকে থাকলেও বিদায় নিতে হয়ে চ্যাম্পিয়ন জার্মানিকে। দ্বিতীয় রাউন্ডে যেতে গতকাল দক্ষিণ কোরিয়ার বিপক্ষে জয়ের বিকল্প ছিলনা জার্মানির। তুলনামূলক কম শক্তির দল কোরিয়ার বিপক্ষে তাই জয়ের টার্গেটই ছিল জার্মানদের। কিন্তু ম্যাচে কাংখিত জয় পায়নি জার্মানরা। বরং উল্টো গোল হজম করতে হয়েছে চ্যাম্পিয়নদের। প্রথমার্ধে খেলা সমতায় থাকলেও দ্বিতীয়ার্ধের শেষ দিকে গোল করে দক্ষিণ কোরিয়া। তাও একটি নয় দু-দুটি। অতিরিক্ত সময়েই গোল দুটি পায় কোরিয়া। দলের পক্ষে গোল দুটি করেন কিম ইয়ুন গুন ও সন হিউং মিন।
ফলে বিদায়ের আগে দক্ষিণ কোরিয়ার কাছে ২-০ গোলে হেরেই বিদায় নিতে হয়েছে জার্মানদের। তবে দ্বিতীয় রাউন্ড থেকে বাদ পড়লেও চ্যাম্পিয়ন জার্মানিকে হারিয়ে যেন রাশিয়া বিশ্বকাপে সেরা সাফল্য পেল কোরিয়া। শেষ ম্যাচেই পেল তিন পয়েন্ট। আর পয়েন্টে থাকল জার্মানদের উপরেই। টিকে থাকার গুরুত্বপূর্ণ এই ম্যাচে কিন্তু প্রথমার্ধে কোন গোল করতে পারেনি চ্যাম্পিয়ন জার্মানি। প্রথমার্ধে চ্যাম্পিয়নদের ঠেকিয়ে রাখে এশিয়ার দলটি। যদিও একের পর এক আক্রমণে কোরিয়ানদের রক্ষণ ব্যস্ত রাখে জার্মানরা। তবে ফিনিশারের অভাবে গোল করতে ব্যর্থ তারা। উল্টো বেশ কয়েকবার কাউন্টার অ্যাটাকে গোল হজম করতে বসেছিল চ্যাম্পিয়নরা। খেলার ৬ষ্ঠ মিনিটেই দারুণ এক আক্রমণ করে জার্মানি। তবে মার্কো রেউসের ডান পায়ের শট বারের পাশ দিয়ে চলে যায় বাইরে। ১৪ মিনিটেই টনি ক্রুসের দারুণ এক ক্রস থেকে অসাধারণ হেড নেন স্যামি খেদিরা। কিন্তু দুভাগ্য জার্মানির। বল চলে যায় পোস্টের ওপর দিয়ে। খেলার ১৯ মিনিটে বক্সের সামনে ফ্রি কিক পেয়েছিল দক্ষিণ কোরিয়া। জাং উ ইয়ং কিক নিলে মানবপ্রাচীর ভেদ করে বল চলে গেলো সোজা ম্যানুয়েল নুয়্যারের কাছে। বলের শট এতটাই তীব্র ছিল যে, বল হাত ফসকে বের হয়ে যায়। সন হিউং মিন চেষ্টা করেন ফিরতি বলে পা লাগানোর। শেষ মুহূর্তে ঝাঁপিয়ে পড়ে নুয়্যার কোনোমতে বাঁচিয়ে দেন জার্মানিকে। এক মিনিট পরই কর্ণার কিক থেকে ভেসে আসা বলে দারুণ এক শট নেন সন হিউং মিন। কিন্তু তার এই শটটি চলে যায় বারের ওপর দিয়ে। বেঁচে যায় জার্মানি। না হলে প্রথমেই গোল হজম করতে হতে পারত চ্যাম্পিয়নদের। প্রথমার্ধে জার্মানি  যেভাবে খেলেছে তাতে গোল না পাওয়ারই কথা। অপেক্ষাকৃত দুর্বল দক্ষিণ কোরিয়ার বিপক্ষে শেষ ষোল নিশ্চিত করার ম্যাচে জার্মানরা চ্যাম্পিয়নের মতো খেলতে পারেনি। ফলে প্রথমার্ধ শেষ হয় গোল শূন্য থেকে। বিরতির পর মাঠে নেমে গোলের নেশায় আরো মরিয়া হয়ে খেলতে থাকে জার্মানি। টিকে থাকতে একের পর এক আক্রমণ চালায় জার্মানরা। সুযোগ বুঝে পাল্টা আক্রমণেও গেছে দক্ষিণ কোরিয়া। আর শেষ পর্যন্ত ২-০ গোলে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে এশিয়ার দলটি। রাশিয়া বিশ্বকাপে চ্যাম্পিয়ন জার্মানির শুরুটাই ভালো হয়নি। প্রথম ম্যাচেই মেক্সিকোর কাছে ১-০ গোলে হেরে প্রথম পর্ব থেকে বাদ পড়ার হুমকিতে পড়ে চ্যাম্পিয়নরা। তবে দ্বিতীয় ম্যাচে সুইডেনকে ২-১ গোলে হারিয়ে কিছুটা ঘুরে দাঁড়ায় দলটি। ফলে গ্রুপের শেষ ম্যাচে দক্ষিণ কোরিয়ার বিপক্ষে ম্যাচে তাদের জয়ের টার্গেট নিয়েই মাঠে নামতে হয়েছে। তবে প্রথম দুই ম্যাচে হেরে গ্রুপের একমাত্র পয়েন্ট শূন্য দল দক্ষিণ কোরিয়া। কিন্তু এই ম্যাচে জার্মানির বিপক্ষে ভালো করার টার্গেট ছিল এশিয়ার দলটিরও। আর জয়ও পায় কোরিয়া। জার্মানি এই ম্যাচে সুইডেনের বিপক্ষে খেলা একাদশে ৫টি পরিবর্তন এনে দল সাজিয়েছে। নিষিদ্ধ জেরোমে বোয়েটাংয়ের জায়গা নিয়েছেন ম্যাটস হামেলস। আন্তোনিও রুডিগেরের জায়গা নিয়ে হামেলসের সাথে জুটি হচ্ছে নিকলাস সুলের। চোটে পড়া সেবাস্তিয়ান রুদিগেরের জায়গায় দলে ফিরেছেন সামি খেদিরা। থমাস মুলার জায়গা হারিয়েছেন লিওন গোরেজকার কাছে। আক্রমণে মেসুত ওজিলও ফিরেছেন। জুলিয়ান ড্রাক্সলার তাই বেঞ্চে। তবে উল্লেখযোগ্য পরিবর্তন হচ্ছে, একাদশে হয়নি দলের অন্যতম প্রাণ ভোমরা থমাস মুলারকে। তাকে আপাতত বিশ্রাম দেয়া হয়েছে। শুধু জার্মানিই নয়, দক্ষিণ কোরিয়া চারটি পরির্বতন এনেছে মেক্সিকোর বিপক্ষে ম্যাচে হারা একাদশে। মিন-উ কিম, কি সাং-ইয়েয়াং, হোয়াং হি-চান ও জু সে-জং বাদ পড়েছেন। তাদের জায়গা নিয়েছেন ইয়ান উয়ং-সান, হং চাল, কু জা-চেওল ও জাং উ-ইয়ং।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ