ঢাকা, বৃহস্পতিবার 28 June 2018, ১৪ আষাঢ় ১৪২৫, ১৩ শাওয়াল ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

হেরেও শেষ ষোলতে সুইডেনের সঙ্গী হলো মেক্সিকো

কামরুজ্জামান হিরু : হেরেও সুইডেনের সাথেই বিশ্বকাপের দ্বিতীয় রাউন্ড নিশ্চিত করলো মেক্সিকো। ‘এফ’ গ্রুপ থেকে বিদায় নিল বর্তমান চ্যাম্পিয়ন জার্মানি ও দ. কোরিয়ার। গ্রুপের শেষ ম্যাচে নামার আগে হিসেবের খাতা অনুযায়ী দ্বিতীয় রাউন্ডে উঠার সম্ভাবনা ছিল তিন দলেরই (মেক্সিকো, সুইডেন ও জার্মানির)। কিন্তু সকল জটিল হিসেবকে সহজ করে দিল সুইডেন ও দ. কোরিয়া। গ্রুপে নিজেদের শেষ ম্যাচে সুইডেন ৩-০ গোলে মেক্সিকোকে হারিয়ে রীতিমত চমকই দিয়েছে। শুধু তাই নয় তারা মেক্সিকোকে পিছনে ফেলে গ্রুপ চ্যাম্পিয়নের খেতাবটি ও নিয়ে নেয়। গত দুটি ম্যাচ জিতে দ্বিতীয় রাউন্ডে উঠার পথে অনেকটাই এগিয়ে ছিল মেক্সিকো। সুইডেনকে দ্বিতীয় রাউন্ড নিশ্চিত করতে প্রয়োজন ছিল তিন গোলের ব্যবধানে জয়। এমন ম্যাচে একে অপরের মুখোমুখি হয়ে প্রথমার্ধে কোন গোল করতে পারেনি কোন দল।
একাতেরিনবার্গ স্টেডিয়ামে ম্যাচের শুরুর মিনিটেই বিশ্বরেকর্ডে নাম লেখান মেক্সিকান খেলোয়াড় হেসুস গ্যালার্ডো। মাত্র ১৩ সেকেন্ডের মাথায় হলুদ কার্ড দেখেন তিনি। বিশ্বকাপের ইতিহাসের এর চেয়ে দ্রুত হলুদ কার্ড দেখার রেকর্ড নেই আর কোনো।সেই ফাউল থেকে পাওয়া ফ্রি-কিকে সুইডেনকে প্রায় এগিয়েই দিয়েছিলেন আন্দ্রেস গ্রাঙ্কভিস্ট। হেক্টর মোরেনোর দুর্দান্ত রক্ষণে সে যাত্রায় রক্ষে পায় মেক্সিকো। পুরো প্রথমার্ধ জুড়েই ছিল দুই দলের খেলোয়াড়দের এমন গোলের সুযোগ মিসের ছড়াছড়ি।ম্যাচের ২৬ মিনিটে লোজানোকে পেছন থেকে বাজে ফাউল করায় সুইডিশদের পক্ষে প্রথম হলুদ কার্ড দেখেন সেবাস্তিয়ান লারসন। ৩০ মিনিটে ডি-বক্সের মধ্যেই হ্যান্ডবল করে বসেন হাভিয়ের হার্নান্দেজ। তবে অনিচ্ছাকৃত হওয়ায় সেটিকে পেনাল্টির ঘোষণা দেননি রেফারি। কর্ণার থেকে দুর্দান্ত এক আক্রমণ সাজায় সুইডেন। সেই আক্রমণের চেয়েও বেশি ক্ষিপ্র গোলকিপিংয়ে দৃষ্টান্ত দেখান ওচোয়া। গোলবারের খুব কাছ থেকে মার্কাস বার্গের শট ফিরিয়ে দেন তিনি। এর খানিকবাদে আবারো গোল মিস করেন ভেলা। ডি-বক্সের মধ্যে খালি জায়গায় বল পেয়েও গোল করতে ব্যর্থ হন তিনি। ফলে গোলশূন্য ড্র নিয়েই মাঠ ছাড়তে বাধ্য হয় দুই দল।
দ্বিতীয়ার্ধের পঞ্চম মিনিটে এগিয়ে যায় সুইডেন। ডান দিক থেকে মিডফিল্ডার ভিক্তর ক্লসনের বাড়ানো বল একজনের পায়ে লেগে উপরে উঠে যায়। ফাঁকায় পেয়ে জোরালো ভলিতে ওচোয়াকে পরাস্ত করেন ডিফেন্ডার লুদভিক আউগুস্তিনসন ১-০।আর ৬২ মিনিটে সফল স্পট কিকে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন আন্দ্রিয়াস গ্রাংকভিস্ত ২-০। ডি-বক্সে বার্গকে ডিফেন্ডার এক্তর মোরেনো ফাউল করলে পেনাল্টিটি পায় সুইডেন।৭৪ মিনিটে সৌভাগ্যবশত তৃতীয় গোলটি পায় সুইডেন। গোলমুখে আসা ক্রস মেক্সিকোর ডিফেন্ডার এদসন আলভারেস বিপদমুক্ত করতে ব্যর্থ হলে উল্টো বল তার হাতে লেগে জালে ঢুকে যায় ৩-০।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ