ঢাকা, বৃহস্পতিবার 28 June 2018, ১৪ আষাঢ় ১৪২৫, ১৩ শাওয়াল ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

মে মাসে রাজনৈতিক সন্ত্রাস

মুহাম্মদ ওয়াছিয়ার রহমান : [তিন]
কৃষক লীগ ঃ ৩১ মে গাজীপুরের কাপাসিয়ায় কৃষক লীগের দলীয় কোন্দলে ইফতার মাহফিলটি পন্ড হয়ে যায়। এ সময় তারা ইফতার ছিনতাই, মাইক্রবাস, টেবিল ও চেয়ার ভাংচুর করে।
শ্রমিক লীগ ঃ ৪ মে ফেনীর ছাগলনাইয়া উপজেলা সাবেক শ্রমিক লীগ সভাপতি এয়ার আহমেদকে চুরির মামলায় আটক করা হয়। গত ২ মে দিবাগত রাতে এই চুরির ঘটনা ঘটে। ৬ মে ফরিদপুর সোনালী বাংক আঞ্চলিক শাখা থেকে সিবিএ সাধারণ সম্পাদক ও শহর শ্রমিক লীগ যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক নূরুজ্জামান নান্নু প্রাইজবন্ড চুরি করে। ১০০ টাকার ২৭ টি প্রাইজবন্ড চুরি করার পর সিসি টিভি দেখে তার চুরির ঘটনা ধরা পড়ে।  ৮ মে ঢাকার আশুলিয়া থেকে ট্রাক ভর্তি গরু ছিনতাই কালে সড়ক পরিবহন শ্রমিক লীগ আশুলিয়া থানা সাধারণ সম্পাদক রাজা মিয়া ও তার সহযোগী জনি মিয়াকে আটক করে পুলিশ।
 স্বেচ্ছাসেবক লীগ ঃ ৭ মে পিরোজপুরের নাজিরপুরে উপজেলা ছাত্রদল আহ্বায়ক মাজেদুল কবীর রাসেলকে শ্রীরামকাঠি মধ্য রাস্তায় পিটিয়ে ডান হাত ও বাম পা ভাঙ্গাসহ মারাত্মক জখম করে স্বেচ্ছাসেবক লীগ উপজেলা সাধারণ সম্পাদক আরিফুর রহমান সবুজ। ঢাকার আশুলিয়ায় ধানসোনা ইউনিয়ন যুব মহিলা লীগ নেত্রীকে মারধর ও ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে স্বেচ্ছাসেবক লীগের হিরা, আজহার, জুয়েল, নাহিদ ও সৌরভসহ ৭ জনের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দায়ের।
বিএনপি ঃ ৩ মে বগুড়া জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি ও আদমদীঘি আসনের সাবেক এমপি মোমিন তালুকদারের বিরুদ্ধে ১৯৭১ সালের মানবতা বিরোধী অপরাধের অভিযোগ উত্থাপন করে এক সংবাদ সম্মেলন করে আর্ন্তজাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের তদন্ত সংস্থা। ২০ মে খুলনা জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আমির এজাজ খান, মহানগর যুবদল সাধারণ সম্পাদক নাজমুল হুদা চৌধূরী সাগর, যুবদল নেতা শেখ কামাল উদ্দিন ও ছাত্রদল নেতা হেলাল আহমেদ সুমন আদালতে হাজির হয়ে জামিনের আবেদন করলে আদালত তাদের জামিন নামঞ্জুর করে জেল হাজতে পাঠায়। ২১ মে পটুয়াখালীর দুমকি উপজেলা বিএনপির প্রচার সম্পাদক সোলাইমান বাদশাকে আটক করে পুলিশ। ২২ মে হবিগঞ্জের বানিয়াচংয়ে মুরাদপুর ইউনিয়ন বিএনপি নেতা মধু মিয়া তালুকদারকে পুলিশ কোর্ট মসজিদ এলাকা থেকে আটক করে।
ছাত্র দল ঃ ২৮ মে পটুয়াখালীর দশমিনাতে উপজেলা ছাত্রদল সাধারণ সম্পাদক জোবায়ের হোসেন আক্কাসকে সবুজবাগ থেকে আটক করে পুলিশ। 
যুব দল ঃ ২২ মে ফরিদপুরের বোয়ালমারী উপজেলা যুবদল সাধারণ সম্পাদক ও পৌর কাউন্সিলর মিনহাজুর রহমান লিপনকে আটক করে পুলিশ। 
শ্রমিক দল ঃ ২৭ মে নোয়াখালীর সুবর্ণচরে থানারহাট বাজার থেকে উপজেলা শ্রমিক দল সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুল বাতেন শাহেদকে আটক করে পুলিশ।
 স্বেচ্ছাসেবক দল ঃ ৬ মে নাটোর জেলা স্বেচ্ছাসেবক দল সাংগঠনিক সম্পাদক রাসেল আহমেদ আদালতে হাজির হয়ে জামিনের আবেদন করলে আদালত তার জামিন নামঞ্জুর করে তাকে জেল হাজতে পাঠায়।
জামায়াত ঃ ১ মে নীলফামারীর ডোমার উপজেলা জামায়াতের সাবেক সেক্রেটারি আব্দুল হককে জুম্মাপাড়া জামে মসজিদ থেকে আটক করে পুলিশ। ৪ মে মেহেরপুরের গাংনী আনন্দবাস গ্রাম থেকে জেলা জামায়াত সেক্রেটারি ও সদর উপজেলা ভাইস-চেয়ারম্যান মাওলানা মাহ্বুবুল আলম, গাংনী উপজেলা জামায়াত আমীর রবিউল ইসলাম, কর্মী আব্দুর রহীম, আব্দুল খালেক, হাশেম আলী, নাছির উদ্দিন ও মহ্বিুল ইসলামকে পুলিশ আটক করে। ১২ মে নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জ মুক্তিনগর হক সুপার মার্কেট থেকে পুলিশ থানা জামায়াতের সাবেক আমীর আব্দুল্লাহ আল বাকি ও আবুল কালাম আজাদকে আটক করে। ১৪ মে চুয়াডাঙ্গার জীবননগরে সেনেরহুদা গ্রামের মাওলানা মহিউদ্দিন ও নূরুল হুদা, মনোহরপুর ইউনিয়ন জামায়াতের আমীর মাওলানা আসাবুল হক, যাবদপুর গ্রামের আবু বক্কর সিদ্দিক, খয়েরহুদা গ্রামের জান মোহাম্মদ এবং জীবননগর পৌর জামায়াতের অফিস সেক্রেটারি গোলাম রসুলকে আটক করে পুলিশ। বগুড়া সদরের দশটিকা দক্ষিণপাড়া গ্রাম থেকে ২৫ জামায়াত নেতা-কর্মীকে পুলিশ আটক করে। এ সময় পুলিশ জামায়াতের সদস্য সংগ্রহ অভিযানের লিফলেট ও ১০টি মটর সাইকেল জব্দ করে। সাতক্ষীরা সদরে ইটাগাছা ও পলাশপোল মধু মোল্লার ডাঙ্গি থেকে সাতক্ষীরা পৌর জামায়াত সেক্রেটারি ওবায়দুল্লাহ্ মোল্লা, তার স্ত্রী রাজিয়া সুলতানা, মেহেরুল্লাহ্্, ৭নং ওয়ার্ড জামায়াত সেক্রেটারি মাওলানা আব্দুল হাই সিদ্দিকী, ১নং ওয়ার্ড নেতা এস.এম হায়দার আলী, কামালনগর ওয়ার্ড শিবির সেক্রেটারি আমিনুর রহমান, শিবির কর্মী মোখলেসুর রহমান, ঘোনা ইউনিয়ন শিবির কর্মী রাসেল ইকবাল ও পৌর সভার শিবির কর্মী আল-আমিনকে আটক করে। পুলিশ দাবি করে তাদের কাছ থেকে ৫টি পেট্রোল বোমা ও বিপুল পরিমান জিহাদী বই উদ্ধার করা হয়।
২০ মে চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদা থেকে উপজেলা জামায়াত আমীর মহসীন আলী ও জামায়াত নেতা আবুল বাশারসহ ৩ জনকে আটক করে পুলিশ। ২১ মে কুমিল্লার লাঙ্গলকোট বাহুড়ায় এক ইফতার মাহফিল থেকে জোড্ডা পূর্ব ইউনিয়ন জামায়াত আমীর ডাঃ মোহাম্মদ আলী আমু, বেলাল হোসেন, আব্দুল মতিন, জাভেদ আলী, ফারুক ও জালাল উদ্দিন স্বপনকে আটক করে পুলিশ। ২২ মে রংপুর সাংগঠনিক জেলা জামায়াত আমীর এ.টি.এম আজম খান আদালতে জামিনের আবেদন করলে আদালত তা নামঞ্জুর করে তাকে জেল হাজতে পাঠায়। ২৫ মে কুষ্টিয়ার মিরপুর থেকে পুলিশ উপজেলা জামায়াত আমীর আব্দুল গফুর, উপজেলা সহকারী সেক্রেটারি রফিকুল ইসলাম ও জামায়াত নেতা শফি মোল্লাকে আটক করে।
বাংলাদেশ শ্রমিক কল্যাণ ফেডারেশন ঃ ১ মে নারায়নগঞ্জ শহরে শ্রমিক কল্যাণ ফেডারেশনের ৯ নেতা-কর্মীকে মে দিবসের র‌্যালি থেকে আটক করে পুলিশ। আটককৃতরা হলো- মিজান, শাহীন, শরীফুল ইসলাম, সাইফুল ইসলাম, সুজন হোসেন, দেলোয়ার হোসেন, নূরুল হুদা, সৌরভ ও মনির হোসেন। কুমিল্লা শহরের ফৌজদারি মোড় ও চকবাজার এলাকা থেকে শ্রমিক কল্যাণ ফেডারেশনের ১০ নেতা-কর্মীকে পুলিশ আটক করে। আটককৃতরা হলো- এমদাদ, মেহেদী মিরাজ, জাহাঙ্গীর আলম, তৌহিদ হোসেন সরকার, শাহীন মিয়া, আব্দুল মজিদ, আনোয়ার হোসেন, ইসমাইল হোসেন, বাচ্চু মিয়া ও সিদ্দিকুর রহমান। ১২ মে ঢাকার কাফরুল থেকে শ্রমিক কল্যাণ ফেডারেশনের ৪০ নেতা-কর্মীকে আটক করে পুলিশ। আটককৃতরা হলো- অধ্যাপক হারুণ-অর-রশীদ খান, আবুল কাশেম, আব্দুল আউয়াল মিয়া ও গোলাম মোস্তাফাসহ ৪০ জন।
২০ দলীয় জোট ঃ ৪ মে গাজীপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনকে সামনে রেখে ২০ দলীয় জোটের ৩ নেতা-কর্মীকে আটক করে পুলিশ।
আটককৃতরা হলো- মহানগর জামায়াত প্রচার সম্পাদক আফজাল হোসাইন, জেলা জিয়া পরিষদ আহ্বায়ক আশরাফ হোসেন টুটুল ও ছাত্রদল নেতা উজ্জ্বল।
জাতীয় পার্টি ঃ ১১ মে বরিশালের বাকেরগঞ্জে কাঁঠালিয়া ইসলামিয়া মাদরাসার জমি দখলে বাধা দেয়ায় মাদরাসা সুপার মাওলানা আবু হানিফার মাথায় মল ঢেলে লাঞ্ছিত করে জাতীয় পার্টি জাহাঙ্গীর আলম খন্দকার, তার সহযোগী জাকির হোসেন, মাসুদ সরদার, এনামুল হাওলাদার, রেজাউল খান, মিনজু হাওলাদার, সোহেল খন্দকার ও বেলাল হোসেন। ঘটনাটি ভিডিওতে ধারন করে ফেসবুকে ছেড়ে দেয়। পুলিশ মিনজু হাওলাদার ও বাদল নামে দু’জনকে আটক করে।
ছাত্র মৈত্রী ঃ ৩০ মে রাজশাহী কলেজের অধ্যক্ষের কাছে ২০ হাজার টাকা চাঁদা না পেয়ে তার অফিস ভাংচুর করে ছাত্র মৈত্রী রাজশাহী মহানগর সভাপতির নেতৃত্বে একদল নেতা-কর্মী।
জেএমবি ঃ ১৬ মে ঢাকার মতিঝিল আরামবাগ এলাকা থেকে জেএমবির ২ নারী সদস্য রুবাইয়া ওরফে হুরের রাণী ও নাঈমা আক্তার হিমালয়কে আটক করে র‌্যাব-১১। ১৮ মে ময়মনসিংহ শহরের হামিদ উদ্দিন রোড থেকে জেএমবি সদস্যা ফিরোজা রহমান সোবাকে আটক করে র‌্যাব-১১। ২০ মে সিরাজগঞ্জের একটি আদালত ফৌজদারী অপরাধের দায়ে আতাউল্লাহ বাহাদুরকে সাড়ে ৪ বছরের কারাদন্ড এবং ৪ হাজার টাকা অর্থদন্ড দেয়। ৩০ মে রাজশাহী ও চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে র‌্যাব-৫ জেএমবির ৫ সদস্য খাইরুল ইসলাম, সেলিম রেজা, জিয়াউল হক ওরফে আকবর আলী, নাওশাদ আলী ও শাকিল আহমেদকে আটক করে।
আনছার আল-ইসলাম ঃ ২৪ মে ঢাকার মহানগরীর যাত্রাবাড়ি, মুগদা ও বারিধারা থেকে আনছার আল-ইসলামের ৭ সদস্য মহ্বিŸুর রহমান, এরশাদুল, কামাল উদ্দিন, সিফাত, দিদারুল ইসলাম, রিফাতুল্লাহ সাব্বির খান ও শীতল মিয়াকে আটক করে র‌্যাব-৩। র‌্যাব দাবি করে তাদের কাছ থেকে বোমা তৈরীর সারঞ্জাম, বিস্ফোরক ও বই উদ্ধার করা হয়।
ইউপিডিএফ (প্রসিত) ঃ ৩ মে রাঙ্গামাটির নানিয়ারচরে ইউপিডিএফ(প্রসিত)-এর হাতে জেএসএস-এমএন কেন্দরীয় সহ-সভাপতি ও নানিয়ারচর উপজেলা চেয়ারম্যান এ্যাডঃ শক্তিমান চাকমা গুলিবিদ্ধ হয়ে নিহত হয়। এ সময় রূপক চাকমা গুলিতে আহত হয়। ৪ মে রাঙ্গামাটির নানিয়ারচরে বেতছড়ি কাঁঠাল বাগান এলাকায় ইউপিডিএফ (প্রসিত) গ্রুপের হাতে ইউপিডিএফ ) বর্মা গ্রুপ প্রধান তপন জ্যোতি চাকমা ওরফে বর্মা, সুজন চাকমা, টনক চাকমা, সেতু লাল চাকমা ও মোঃ সজিব খুন হয়। গত ৩ মে নিহত শক্তিমান চাকমার শেষকৃত্য অনুষ্ঠানে যোগদান করতে যাওয়ার পথে এই হামলা করা হয়। ২৮ মে রাঙ্গামাটির বাঘাইছড়িতে ইউপিডিএফ দু’গ্রুপের বন্দুক যুদ্ধে গনতান্ত্রিক গ্রুপের সঞ্জীব চাকমা নিহত হয়।
ইউপিডিএফ (গনতান্ত্রিক) ঃ ২৮ মে রাঙ্গামাটির বাঘাইছড়িতে ইউপিডিএফ দু’গ্রুপের বন্দুক যুদ্ধে প্রসিত গ্রুপের অটল চাকমা ও স্মৃতি চাকমা নিহত হয়।
বাঙালি ছাত্র পরিষদ ঃ ৮ মে খাগড়াছড়িতে সরকারী জমি দখল ও কারাগারের জেলারকে মারধর করার অভিযোগে বাঙালি ছাত্র পরিষদ কেন্দরীয় সভাপতি ও খাগড়াছড়ি পৌর কাউন্সিলর আব্দুল মজিদকে আটক করে পুলিশ। [সমাপ্ত]

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ