ঢাকা, বৃহস্পতিবার 28 June 2018, ১৪ আষাঢ় ১৪২৫, ১৩ শাওয়াল ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

যশোরে মসলেম উদ্দিনের ইন্তিকালে জামায়াতের ভারপ্রাপ্ত আমীরের শোক

বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর প্রবীণ সদস্য (রুকন) যশোর জেলার মহেশপুর উপজেলার কাজিরবেড় ইউনিয়নের পলিয়ানপুর গ্রাম নিবাসী মসলেম উদ্দিন ৮৩ বছর বয়সে গত ২৬ জুন দিবাগত রাত ৪টায় হার্ট অ্যাটাক করে ইন্তিকাল করেছেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। তিনি জামায়াতের একটি ওয়ার্ড সভাপতির দায়িত্ব পালন করছিলেন। তিনি ৪ পুত্র ও ৪ কন্যাসহ বহু আত্মীয়-স্বজন রেখে গিয়েছেন। যশোর জেলার মহেশপুর উপজেলার কাজিরবেড় ইউনিয়নের পলিয়ানপুর গ্রামে গতকাল বুধবার বিকাল ৪টায় নামাযে জানাযা শেষে তাকে পারিবারিক কবর স্থানে দাফন করা হয়েছে।
শোকবাণী: মসলেম উদ্দিনের ইন্তিকালে গভীর শোক প্রকাশ করে বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর ভারপ্রাপ্ত আমীর ও সাবেক এমপি মাওলানা আ.ন.ম. শামসুল ইসলাম গতকাল শোকবাণী দিয়েছেন।
শোকবাণীতে তিনি বলেন, মসলেম উদ্দিন (রাহিমাহুল্লাহ) কে আল্লাহ সুবহানাহু ওয়া তা’আলা ক্ষমা ও রহম করুন এবং তাকে নিরাপত্তা দান করুন। তাকে সম্মানিত মেহমান হিসেবে কবুল করুন ও তার কবরকে প্রশস্ত করুন। তার গুণাহখাতাগুলোকে নেকিতে পরিণত করুন। তার জীবনের নেক আমলসমূহ কবুল করে তাকে জান্নাতুল ফিরদাউসে স্থান দান করুন।
তিনি শোকবাণীতে তার শোকসন্তপ্ত পরিবার-পরিজনদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানিয়ে বলেন, আল্লাহ সুবহানাহু ওয়া তা’আলা তাদেরকে এ শোকে ধৈর্য ধারণ করার তাওফিক দান করুন।
ঝিনাইদহের হাবিবুর রহমানের ইন্তিকাল: জামায়াতে ইসলামীর সদস্য (রুকন) ঝিনাইদহ জেলার হরিণাকু-ু উপজেলার দৌলতপুর ইউনিয়নের ভেড়াখালি গ্রাম নিবাসী মোঃ হাবিবুর রহমান ৫০ বছর বয়সে গত ২৬ জুন দিবাগত রাত ২টায় হার্ট অ্যাটাক করে ইন্তিকাল করেছেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। তিনি দীর্ঘ দিন যাবত ডায়াবেটিসেও ভুগছিলেন। তিনি স্ত্রী, ২ পুত্র ও ১ কন্যাসহ বহু আত্মীয়স্বজন রেখে গিয়েছেন। ঝিনাইদহ জেলার হরিণাকুণ্ডু উপজেলার দৌলতপুর ইউনিয়নের ভেড়াখালি গ্রামে গতকাল বাদ জোহর নামাযে জানাযা শেষে তাকে গ্রামের কবর স্থানে দাফন করা হয়েছে।
শোকবাণী: মোঃ হাবিবুর রহমানের ইন্তিকালে গভীর শোক প্রকাশ করে বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর ভারপ্রাপ্ত আমীর ও সাবেক এমপি মাওলানা আ.ন.ম. শামসুল ইসলাম শোকবাণী দিয়েছেন।
শোকবাণীতে তিনি বলেন, জনাব মোঃ হাবিবুর রহমান (রাহিমাহুল্লাহ) কে আল্লাহ সুবহানাহু ওয়া তা’আলা ক্ষমা ও রহম করুন এবং তাকে নিরাপত্তা দান করুন। তাকে সম্মানিত মেহমান হিসেবে কবুল করুন ও তার কবরকে প্রশস্ত করুন। তার গুণাহখাতাগুলোকে নেকিতে পরিণত করুন। তার জীবনের নেক আমলসমূহ কবুল করে তাকে জান্নাতুল ফিরদাউসে স্থান দান করুন।
তিনি শোকবাণীতে তার শোকসন্তপ্ত পরিবার-পরিজনদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানিয়ে বলেন, আল্লাহ সুবহানাহু ওয়া তা’আলা তাদেরকে এ শোকে ধৈর্য ধারণ করার তাওফিক দান করুন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ