ঢাকা, শনিবার 30 June 2018, ১৬ আষাঢ় ১৪২৫, ১৫ শাওয়াল ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

বাংলাদেশের স্বার্থেই সবার অংশগ্রহণমূলক এবং বিশ্বাসযোগ্য নির্বাচন খুবই গুরুত্বপূর্ণ

স্টাফ রিপোর্টার : ঢাকা সফরে আসা যুক্তরাজ্যের পররাষ্ট্র ও কমনওয়েলথ বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী মার্ক ফিল্ড বাংলাদেশের আসন্ন জাতীয় নির্বাচনের জন্য আগাম শুভকামনা জানিয়ে বলেছেন, বাংলাদেশে অবাধ, নিরপেক্ষ ও গ্রহণযোগ্য জাতীয় নির্বাচন দেখতে চায় যুক্তরাজ্য।
গতকাল শুক্রবার তিনদিনের সফরের প্রথম দিনেই ব্রিটিশ হাইকমিশনারের বাসভবনে সাংবাদিকদের সঙ্গে মত বিনিময়কালে তিনি এ কথা জানান। এ সময় যুক্তরাজ্য সরকারের নারী সমতা বিষয়ক বিশেষ দূত জোয়ানা জোয়ানা রোপার ও যুক্তরাজ্যের ভারপ্রাপ্ত হাইকমিশনার কানবার হুসেইন উপস্থিত ছিলেন।
সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে মার্ক ফিল্ড বলেন, বাংলাদেশের আগামী জাতীয় নির্বাচন অবাধ, নিরপেক্ষ ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশে অনুষ্ঠিত হবে বলে যুক্তরাজ্য প্রত্যাশা করে। আগামী জাতীয় নির্বাচন পরিস্থিতি নিয়ে তিনি লন্ডনে বিএনপি নেতাদের সঙ্গে আলাপ করেছেন বলেও জানান। বাংলাদেশের স্বার্থেই উন্নয়ন ও স্থিতিশীলতার প্রয়োজনে সবার অংশগ্রহণমূলক এবং বিশ্বাসযোগ্য নির্বাচন খুবই গুরুত্বপূর্ণ। বাংলাদেশের নির্বাচনী আইনের অধীনে থাকা দলগুলোর স্বার্থেও তা হওয়া উচিত। পাশাপাশি অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন নিশ্চিত করতে সকল দলের অংশগ্রহণের ব্যাপারেও তিনি এসময় আশাবাদ প্রকাশ করেন।
ব্রিটিশ পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী রোহিঙ্গা সংকট প্রসঙ্গ তুলে ধরে বলেন, মিয়ানমার থেকে প্রাণভয়ে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গাদের নিজ দেশে ফেরাতে মিয়ানমারের ওপর আরও চাপ প্রয়োগ করবে যুক্তরাজ্য। তিনি জানান, রোহিঙ্গা সঙ্কটের শুরু থেকেই যুক্তরাজ্য এর সমাধানে কাজ করছে। তিনি নিজেও মিয়ানমার সফর করেছেন এবং সঙ্কটের স্থায়ী সমাধানের বিষয়ে অং সান সুচির সঙ্গে আলাপ করেছেন। তিনি আশা করেন রোহিঙ্গারা মর্যাদার সঙ্গে রাখাইনে তাদের নিজ গ্রামে ফিরে যাবেন এবং সেখানে তাদের নাগরিক অধিকার ও নিরাপদ বসবাসও নিশ্চিত হবে।
সাংবাদিক সম্মেলনে যুক্তরাজ্য সরকারের নারী সমতা বিষয়ক বিশেষ দূত জোয়ানা জোয়ানা রোপার বলেন, বাংলাদেশে নারীর অগ্রযাত্রা ইতিবাচক। নারীর ক্ষমতায়ন বৃদ্ধিতে যুক্তরাজ্য ও বাংলাদেশ সরকার একযোগে কাজ করছে।
ঢাকা সফরকালে মার্ক ফিল্ড বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ এবং পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলমের সঙ্গে বৈঠক করবেন। এ ছাড়া কক্সবাজারের রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শনেও যাবেন তিনি।
২০১৭ সালে রাখাইনে মিয়ানমার সেনাবাহিনীর নির্যাতনের ফলে রোহিঙ্গারা দেশ ছাড়া শুরু করলে প্রথম কোনো বিদেশি পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী হিসেবে মার্ক ফিল্ড ওই রাজ্যটি পরির্দশন করেন। পরিদর্শন শেষে গত বছরের ২৮ সেপ্টেম্বর দেশটির রাজধানীতে অং সান সুচির সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন তিনি। ওই সময় তিনি বলেন, রাখাইনে আমরা যা দেখেছি তা কঠোরতম ও অগ্রহণযোগ্য এক ট্রাজেডি। অবিলম্বে এই সহিংসতা বন্ধ করতে ও রোহিঙ্গাদের দ্রুততম সময়ে এবং নিরাপদে তাদের বাড়িতে ফিরিয়ে আনতেও সুচিকে আহ্বান জানান এই ব্রিটিশ প্রতিমন্ত্রী।
উল্লেখ্য, মার্ক ফিল্ড গতবছরের ১৩ জুন প্রতিমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব নেন। এরপর তার বাংলাদেশে এটাই প্রথম সফর।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ