ঢাকা, শনিবার 30 June 2018, ১৬ আষাঢ় ১৪২৫, ১৫ শাওয়াল ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

বেসরকারি শিক্ষক কর্মচারী ফোরামের সাংবাদিক সম্মেলনে আবারো আন্দোলনের হুমকি

স্টাফ রিপোর্টার : জাতীয় সংসদের চলতি অধিবেশনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শিক্ষা ব্যবস্থা সরকারিকরণের বিষয়ে সুস্পষ্ট ঘোষণা না দিলে ফের আন্দোলনে নামার হুমকি দিয়েছে বাংলাদেশ বেসরকারি শিক্ষক কর্মচারী ফোরাম। গতকাল শুক্রবার রাজধানীর জাতীয় প্রেস ক্লাবে সাংবাদিক সম্মেলনে সংগঠনের পক্ষ থেকে এ তথ্য জানানো হয়। সাংবাদিক সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ বেসরকারি শিক্ষক-কর্মচারি ফোরামের সভাপতি মো. সাইদুল ইসলাম সেলিম।
আন্দোলনের অংশ হিসেবে আগামী ২৩ থেকে ২৬ জুলাই সারাদেশের বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে প্রতিদিন এক ঘণ্টা করে কর্মবিরতি পালন করা হবে বলে জানানো হয় ওই সাংবাদিক সম্মেলনে। এর আগে বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ভিত্তিক সংগঠনগুলোর মধ্যে এ নিয়ে সমঝোতা হবে বলেও জানান তিনি।
সাংবাদিক সম্মেলনে অন্যদের মধ্যে মহাসচিব মো. আব্দুল খালেক, সিনিয়র সহসভাপতি মো. রফিকুল ইসলাম, সহসভাপতি বিপ্লব কান্তি দাস, আমিনুল ইসলাম, হারুন অর রশিদ, এবিএ রেজাউল হক ও বশিরুজ্জামান উপস্থিত ছিলেন।
লিখিত বক্তব্যে ফোরাম সভাপতি সাইদুল ইসলাম সেলিম বলেন, শিক্ষাখাতে বিরাজমান বৈষম্য ও অব্যবস্থাপণা দূর করতে আমরা দীর্ঘদিন ধরে শিক্ষা ব্যবস্থা জাতীয় করণের দাবি জানিয়ে আসছি। গত ডিসেম্বরে আমরা দীর্ঘদিন ঢাকার রাজপথে অবস্থান কর্মসূচি ও অনশন পালন করেছি। এরপর শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের আশ্বাস ও মাধ্যমিক পরীক্ষার কথা চিন্তা করে কর্মসূচি স্থগিত করে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ফিরে গিয়েছি। কিন্তু সরকার তার আশ্বাস রাখেনি। তাই বাধ্য হয়ে আবারো রাজপথে নামার ঘোষণা দিচ্ছি।
তিনি বলেন, দেশের প্রায় ২৬ হাজার শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে লক্ষ লক্ষ শিক্ষক তাদের মেধা, শ্রম আর সময় দিয়ে জাতি গড়ার কাজ করে। অথচ সরকার বৃহৎ এ শ্রেণির সুবিধা এমনকী ন্যয্য অধিকার দিতে নানা ছলচাতুরির আশ্রয় নেয়, যা দুর্ভাগ্যজনক।
তিনি বলেন, সরকারের আশ্বাসে আমরা আশ্বস্ত হয়ে ঘরে ফিরেছিলাম কিন্তু ২০১৮-১৯ অর্থ বছরের বাজেটে শিক্ষা ব্যবস্থা জাতীয়করণের জন্য কোনো বরাদ্দ না রাখায় আমরা প্রতারিত হয়েছি। আমরা এমপিও নীতিমালা ও জনবল কাঠামো ২০১৮-তে বৈষম্যমূলক বিধান রেখে জারিকৃত নীতিমালা সংশোধনের দাবি জানাই।
এসময় তিনি আগামী ১৩ জুলাই সকল শিক্ষক সংগঠনগুলোকে নিয়ে একটি জোট গঠন এবং ১৫ আগস্ট জোটের শরিকদের সঙ্গে নিয়ে নতুন কর্মসূচির মাধ্যমে শক্তিশালী আন্দোলন গড়ে তোলার ঘোষণাও দেন তিনি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ