ঢাকা, সোমবার 2 July 2018, ১৮ আষাঢ় ১৪২৫, ১৭ শাওয়াল ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

নাটোরে র‌্যাব পরিচয়ে চাঁদাবাজি ॥ আটক এক

নাটোরে র‌্যাবের নামে চাঁদাবাজির অভিযোগে সালাম শেখ নামের এক ব্যক্তিকে আটক করেছে র‌্যাব

নাটোর সংবাদদাতা : নাটোরে র‌্যাবের নামে চাঁদাবাজির অভিযোগে সালাম শেখ নামের এক ব্যক্তিকে আটক করেছে র‌্যাব-৫। শনিবার গভীর রাতে সদর উপজেলার আহম্মেদপুর বাজার সংলগ্ন ব্রিজের কাছ থেকে তাকে আটক করা হয়। পরে রাতেই তার নামে চাঁদাবাজির মামলা দিয়ে সদর থানায় সোপর্দ করা হয়। আটক সালাম শেখ বড়াইগ্রাম উপজেলার ভবানীপুর গ্রামের মৃত আনোয়ার হোসেনের ছেলে। পরে রোববার দুপুরে র‌্যাব-৫, নাটোর সিপিসি-২ কার্যালয়ে এক প্রেস ব্রিফিংয়ের মাধ্যমে সাংবাদিকদের এসব তথ্য জানানো হয়। প্রেস ব্রিফিংকালে র‌্যাব-৫, সিপিসি-২ এর কমান্ডার মেজর শিবলী মোস্তফা জানান, সম্প্রতি কতিপয় অসাধু চক্র র‌্যাবের ভাবমূর্তি নষ্ট করার জন্য র‌্যাবের পরিচয় দিয়ে চাঁদা দাবি, র‌্যাবের সদস্য হিসেবে হুমকি প্রদান সহ নানা অপকর্মে লিপ্ত হয়েছে এমন সংবাদ তাদের কাছে আসে। এরই ধারাবাহিকতায় গোপনে তারা সংবাদ পান যে, সালাম শেখ নিজেকে র‌্যাব-৫ এর সদস্য হিসেবে দাবি করে নাটোর শহরের কানাইখালী মহল্লার পরেশ চন্দ্র ঘোষের ছেলে প্রণব কুমার ঘোষ ও একই এলাকার মৃত আবুল হোসেনের ছেলে আবুল কালামকে মাদক ব্যবসায়ী হিসেবে র‌্যাবের কাছে ধরিয়ে দেবে বলে ভয়ভীতি প্রদর্শন করে হুমকী দেয়। পরে তাদের কাছে ৭৫ হাজার টাকা চাঁদা দাবি করে। ভয়ে পরেশ চন্দ্র ঘোষ ও আবুল কালাম প্রথম দফায় সালাম শেখকে ৭০ হাজার টাকা চাঁদা প্রদান করে। দ্বিতীয় দফায় পাঁচ হাজার টাকা ৩০ জুন শনিবার রাতে পরিশোধ করার কথা বলে বিষয়টি তারা গোপনে র‌্যাবকে জানান। এই সংবাদের ভিত্তিতে ঐদিন রাতে সদর উপজেলার আহম্মেদপুর বাজার সংলগ্ন ব্রিজ এলাকায় র‌্যাব-৫, সিপিসি-২ কার্যালয়ের কমান্ডার শিবলী মোস্তফার নেতৃত্বে র‌্যাব-৫ এর সদস্যরা অভিযান চালিয়ে তাকে আটক করে। পরে রাতেই আটককৃত সালাম শেখকে নাটোর সদর থানায় সোপর্দ করা হয়। এ ঘটনায় সদর থানায় একটি মামলা দায়ের হয়েছে। এ ব্যাপারে নাটোর সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা কাজী জালাল উদ্দিন আহমেদ ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, এ ঘটনায় নাটোর শহরের কানাইখালী মহল্লার পরেশ চন্দ্র ঘোষের ছেলে প্রণব কুমার ঘোষ নাটোর সদর থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন। আটক সালাম শেখকে আদালতের মাধ্যমে জেলা হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ