ঢাকা, সোমবার 2 July 2018, ১৮ আষাঢ় ১৪২৫, ১৭ শাওয়াল ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

বটিয়াঘাটায় গরুর ক্ষুরা রোগের ভয়াবহতা : দুশ্চিন্তায় খামারীরা

খুলনা অফিস : খুলনার বটিয়াঘাটা উপজেলায় বিভিন্ন এলাকায় গরুর ক্ষুরা রোগ মারাত্মক আকার ধারণ করেছে। এতে গরুর বাছুর বেশি আক্রান্ত হচ্ছে। উপজেলার প্রত্যন্ত অঞ্চলে গরুর ক্ষুরা রোগ মারাত্মক আকার ধারণ করেছে। এ রোগে গরুর পায়ে-মুখে ঘা ও শরীরে অত্যাধিক তাপমাত্রা বৃদ্ধি পেয়ে অসুস্থ হয়ে পড়ছে।
চক্রাখালী গ্রামের চাষি উজ্জ্বল টিকাদার জানান, আমার একটি এক বছরের বাছুর ক্ষুরা রোগে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছে। সুরখালী ইউনিয়নের জোহর আলী শেখ জানান, আমার বকনা বাছুর মারা গেছে। ৭টি ইউনিয়নের খামারীদের অসংখ্য গরু এই রোগে আক্রান্ত হচ্ছে।
এ ব্যাপারে বটিয়াঘাটা উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. স্বপন কুমার রায় জানান, উপজেলায় ব্যাপক সচেতনতা বৃদ্ধি করা প্রয়োজন। নতুন কোনো গরু ক্রয় করে এই মুহূর্তে এলাকায় ঢুকতে দেয়া যাবে না। ওই ক্রয়কৃত গরু ক্ষুরা রোগ বহন করে আনতে পারে। এছাড়া তিনি আরও বলেন, রোগে আক্রান্ত গরুর ক্ষত স্থানে তেঁতুল ব্যবহার করা যাবে না। ক্ষত জায়গায় পটাশ বা সালফিউরিক পাউডার ব্যবহার করতে হবে। এ ব্যাপারে সরকারিভাবে প্রতিষেধক হিসেবে ভ্যাকসিন দিতে হবে। তবে রোগে আক্রান্ত হলে ভ্যাকসিন ব্যবহার করা যাবে না।
অন্যদিকে গোয়ালঘর পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন রাখতে হবে। জানা যায়, ক্ষুরা রোগে যে সকল গরু আক্রান্ত হয়নি এলাকাভিত্তিক ক্যাম্পেইনের মাধ্যমে ওইসব গরুকে অগ্রিম প্রতিষেধক ভ্যাকসিন দেয়া হচ্ছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ