ঢাকা, মঙ্গলবার 3 July 2018, ১৯ আষাঢ় ১৪২৫, ১৮ শাওয়াল ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

বটিয়াঘাটায় সারের অভাবে কৃষকরা দিশেহারা

খুলনা অফিস : খুলনার বটিয়াঘাটা উপজেলার জলমায় ২০ গ্রামে সারের ডিলার না থাকায় কৃষকরা দিশেহারা হয়ে পড়েছেন। বর্তমান আমন মওসুমে সারের অভাবে কৃষকরা বীজতলা তৈরি করতে পারছেন না।
জানা যায়, জলমা ইউনিয়নের ১, ২ ও ৩নং ওয়ার্ডে ৯ জন ডিলারের মধ্যে ৮ জন ডিলারকে নিয়োগ দেয়া হয়েছে। এর মধ্যে ১নং ওয়ার্ডে কৈয়া বাজারে ৫ জন, রাজবাঁধ গ্রামে ২ জন ও নিজখামার গ্রামে ১ জন সারের ডিলার হিসেবে নিয়োগ পেয়েছে। এ সকল ডিলাররা পার্শ্ববর্তী উপজেলা ডুমুরিয়ার কৃষকদের কাছে অধিক মুনাফায় সার বিক্রি করছে। এতে জলমা ইউনিয়নের কৃষকরা সার থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। বিশেষ করে জলমার ৪, ৫, ৬, ৭, ৮ ও ৯নং ওয়ার্ডের সাচিবুনিয়া বাজার, পুঁটিমারী বাজার, তেঁতুলতলা বাজার, চক্রাখালী বাজার, মল্লিকের মোড় বাজার, গুপ্তমারী ব্রিজ সংলগ্ন বাজার, ছয়ঘরিয়া স্কুল বাজার, কচুবুনিয়া স্কুল বাজার এলাকায় সার পাওয়া যাচ্ছে না। এ অঞ্চলের কৃষকদের সার ক্রয় করতে কৈয়া বাজারে যেতে হচ্ছে। এতে একদিকে যাতায়াত ভাড়াসহ আর্থিক ক্ষতি ও অন্যদিকে সময়ের অপচয় হচ্ছে। ইউনিয়ন কমিটির অনিয়ম ও দুর্নীতির কারণে এ অঞ্চলের কৃষকদের এ ভোগান্তির শিকার হতে হচ্ছে।
এ ব্যাপারে সার ডিলার এর আবেদনকারী ৯নং ওয়ার্ড পুঁটিমারী গ্রামের শীলা বাড়ৈ জানান, আমার অঞ্চলের ২০টি গ্রামের কৃষক সার থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। এ অঞ্চলের কৃষকদের ১ কেজি সার ক্রয় করতে কৈয়া বাজারে যেতে হচ্ছে। এতে কৃষকের খাজনার চেয়ে বাজনায় বেশি ব্যয় হচ্ছে।
কৃষক প্রকাশ রায় জানান, ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান, মেম্বররা তাদের ব্যক্তি স্বার্থ চরিতার্থ করতে তাদের পছন্দের ডিলারদের নামের তালিকা উপজেলা কমিটিতে সুপারিশ করে পাঠিয়েছে। যে কারণে ৪, ৫, ৬, ৭, ৮ ও ৯নং ওয়ার্ডের প্রায় দু’টি গ্রামের কৃষকরা সার থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। তিনি আরও জানান, একটি ওয়ার্ডে ২০টি গ্রামের কৃষকদের সুবিধার্থে পুঁটিমারী গ্রামের শিবপদ বাড়ৈ এর স্ত্রী শীলা বাড়ৈ ডিলারের জন্য আবেদন করে। কিন্তু ইউনিয়ন কমিটি তার নাম সুপারিশ না করে এ অঞ্চলের কৃষকদের সার থেকে বঞ্চিত করে। যার ফলে এ অঞ্চলের কৃষকরা সারের অভাবে আমনের বীজতলা তৈরি করতে দিশেহারা হয়ে পড়েছে।
জলমা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আশিকুজ্জামান আশিক জানান, এ ইউনিয়নে ৯ জন সারের ডিলার নিয়োগ দেয়া হয়েছে। ৯নং ওয়ার্ডেও একজন ডিলার নিয়োগ দেয়া হয়েছে। সে ডিলার কৈয়া বাজারে সার বিক্রি করছে।
এ ব্যাপারে বটিয়াঘাটা উপজেলা কৃষি অধিদপ্তরের কৃষি অফিসার মো. রবিউল ইসলাম জানান, আমি নতুন যোগদান করেছি। বিষয়টি সত্য। জলমা ইউনিয়নের এ ছয়টি ওয়ার্ডের কোন বাজারে সার বিক্রি হচ্ছে না। তবে আগামী ৫ জুলাই মিটিং এর মাধ্যমে এ সমস্যার সমাধান করা হবে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ