ঢাকা, মঙ্গলবার 3 July 2018, ১৯ আষাঢ় ১৪২৫, ১৮ শাওয়াল ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

খুলনায় ইজিবাইকের আড়ালে মাদক ব্যবসা ৩১ লাখ টাকার ইয়াবাসহ দুইজন গ্রেফতার

খুলনা অফিস : খুলনা  জেলা মাদকদ্রব্যর ‘ক’ সার্কেলে পৃথক অভিযান চালিয়ে ৩১ লাখ টাকা ইয়াবাসহ দুই মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। গ্রেফতারকৃতরা হলো- মো. মিলন মল্লিক (৩৬) ও সুরমা বেগম (২০)। গ্রেফতারকৃত নারীর স্বামী ইয়াবা ব্যবসার মুল হোতা ইজিবাইক চালক মো. সেলিম গাজী (২৮) অভিযানের টের পেয়ে পালিয়ে যান। সে দীর্ঘদিন ধরে ভাড়ায় চালিত ইজিবাইকের আড়ালে প্রশাসনের চোখ ফাঁকি দিয়ে দীর্ঘদিন ধরে ইয়াবা ব্যবসা পরিচালনা করছিল। এ সময় তাদের কাছ থেকে  ৭ হাজার ৬১০ পিচ ইয়াবা উদ্ধার করেন। রোববার রাতে নগরীর মুন্সী পাড়া ও লবণচরা থানাধীন দারোগা লীজ নামক রায়পাড়া রোডস্থ এলাকায় পৃথক অভিযান চালিয়ে তাদেরকে গ্রেফতার করেন পুলিশ।
খুলনা জেলা মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের সূত্র জানায়, সংস্থার উপ-পরিচালক মো. রাশেদুজ্জামানের তত্ত্বাবধায়নে ‘ক’ সার্কেলের পরিদর্শক হাওলাদার সিরাজুল ইসলামের নেতৃত্বে একটি টিম রোববার বিকেলে নগরীর মুন্সী পাড়া তৃতীয় গলিতে অভিযান চালান। এ সময় মো. মিলন মল্লিককে ১১০ পিস ইয়াবাসহ গ্রেফতার করেন। গ্রেফতারকৃত মিলন মল্লিক নগরীর ১নং কাস্টমঘাট এলাকার বাসিন্দা মৃত কদম আলী মল্লিকের ছেলে। এরপর তার স্বীকারোক্তিতে নগরীর লবণচরা থানাধীন দারোগা লীজ নামক রায়পাড়া রোডস্থ রাত সাড়ে ৮টার দিকে মিন্না’র বাড়িতে অভিযান পরিচালনা করেন। এ সময় ওই বাড়ির ভাড়াটিয়া ইজিবাইক চালন সেলিম গাজীর ঘর তল্লাশি চালিয়ে ৭ হাজার ৫শ’ পিস ইয়াবা উদ্ধার করা হয়। এ সময় সেলিম গাজীর স্ত্রী সুরমা বেগমকে গ্রেফতার করেন। পলাতক সেলিম গাজী রূপসা উপজেলা রহিমনগর এলাকার বাসিন্দা মৃত মান্নান গাজীর ছেলে। খুলনা জেলা মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক মো. রাশেদুজ্জামান জানান, ইজিবাইক চালক মো. সেলিম গাজী ভাড়ায় চালিত ইজিবাইক চালিয়ে জীবিকা নির্বাহ করতো। এর আড়ালে প্রশাসনে চোখ ফাকি দিয়ে সে দীর্ঘদিন ধরে ইয়াবা ব্যবসা পরিচালনা করেন। সে মুলত ইয়াবা পাইকারি বিক্রেতা। তিনি বলেন, এর আগে আটক মিলনকে ইয়াবাসহ গ্রেফতার করলে সে ইজিবাইক চালক মিলনের কাছ থেকে ইয়াবা নিয়ে বিভিন্ন জায়গায় সাপ্লাই দিয়ে আসছিল।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ