ঢাকা, শুক্রবার 6 July 2018, ২২ আষাঢ় ১৪২৫, ২১ শাওয়াল ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

খুলনায় অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজের ৪র্থ আদালত বর্জন অব্যাহত

খুলনা অফিস : অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজের চতুর্থ আদালতে ৩৪ দিন ধরে অচলাবস্থা চলছে। বিচারক ও আইনজীবীর মধ্যে বচসাকে কেন্দ্র করে এ ঘটনা ঘটেছে। আইনজীবীর মৌখিক ঘোষণায় আদালত বর্জনের এক মাস পূর্ণ হয়েছে। গত এক মাসে বিচারপ্রার্থী আসামিরা কয়রা-পাইকগাছাসহ দূর-দূরান্ত থেকে শুধু আদালতে আসা-যাওয়া করেছে। এতে তারা শুধু ভোগান্তিতেই পড়েনি, হয়েছে অনেক আর্থিক ক্ষতি। আর এ এক মাসে হত্যা, মাদক, অস্ত্র ও নাশকতা মামলাসহ প্রায় ৫৮০টি গুরুত্বপূর্ণ মামলার বিচারকার্য বাধাগ্রস্ত হয়েছে। 

আদালত সূত্রে জানা যায়, গত ১৭ মে অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ ৪র্থ আদালতে একটি চেক ডিজঅনার মামলায় আইনজীবী আশরাফুল ইসলাম বাচ্চু বিচার কাজ চলাকালে জেরাকে কেন্দ্র করে বিচারক ও আইনজীবীদের মধ্যে বিতর্ক হয়। তখন বিচারক মো. মেহেদী হাসান তালুকদার বিচার কাজ মুলতবি করেন। এর প্রতিক্রিয়ায় গত ৩০ মে ওই আদালত হতে আইনজীবী, বিচারপ্রার্থী ও পুলিশ সদস্যদের বের করে দেয় আইনজীবী নেতারা। সেদিন থেকে ওই বিচারক ভীতি-শঙ্কার মধ্যে আছেন। তিনি আর বিচার কাজ পরিচালনা করছেন না। বিচারক মো. মেহেদী হাসান তালুকদার হুমকি ও বিচারে বাধা দেয়ার অভিযোগে সুপ্রিম কোর্টের রেজিস্ট্রার জেনারেল, বাংলাদেশ বার কাউন্সিল, আইন সচিব ও খুলনা থানাকে অবহিত করেছেন।

সংশ্লিষ্ট আদালতের অতিরিক্ত পিপি এডভোকেট হেমন্ত কুমার সরকার বলেন, আইনজীবী সমিতির সিদ্ধান্ত ছাড়াই আদালত বর্জন চলছে। বিচারপ্রার্থী জনগণের স্বার্থে বিষয়টি দ্রুত সুরাহা হওয়া প্রয়োজন। 

খুলনা জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি ও পিপি কাজী আবু শাহীন বলেন, বারে প্রথম বৈঠক কোন সিদ্ধান্ত ছাড়াই শেষ হয়। তবে পরে নির্ধারিত দিনে আবার বৈঠক করে আইনজীবীরা আদালত বর্জন কর্মসূচি পালনে সিদ্ধান্ত নেয়, যা অব্যাহত বয়েছে। আইনজীবীরা আদালতের বিচারকের সঙ্গে খারাপ আচরণ করেননি।

সমিতির সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট মো. মশিউর রহমান নান্নু বলেন, গত ৩ ও ৪ জুন সমিতির সভায় আইনজীবীদের মধ্যে ঐক্যমত না হওয়ায় আদালত বর্জনের সিদ্ধান্ত গৃহিত হয়নি। তাছাড়া সমিতির সিদ্ধান্ত ছাড়াই মৌখিকভাবে আদালত বর্জনের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। 

খুলনা সদর থানা অফিসার ইনচার্জ মো. হুমায়ুন কবির জানান, অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ ৪র্থ আদালতে বিচারক মো. মেহেদী হাসান তালুকদারের অভিযোগটি পেয়েছি। ঘটনার তদন্ত চলছে। দোষ প্রমাণিত হলে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা প্রহণ করা হবে।

এদিকে জজ সেমিনারে অংশ নিতে চীন যাচ্ছেন খুলনার অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ ৪র্থ আদালতের বিচারক মো. মেহেদী হাসান তালুকদার। আগামী ১১ জুলাই থেকে ২৬ জুন পর্যন্ত চীনের রাজধানী বেইজিং-এ সেমিনার অনুষ্ঠিত হবে। উক্ত সেমিনারে অংশ নিতে বিচারক মো. মেহেদী হাসান তালুকদার ৯জুন ঢাকা ত্যাগ করবেন। সেমিনার সফলতার সঙ্গে শেষ করে সুস্ততা নিয়ে দেশে ফিরতে পারেন সেজন্য তিনি সকলের নিকট দোয়া চেয়েছেন। উক্ত সেমিনারে বাংলাদেশের মোট ২০জন বিচারক অংশ নিচ্ছেন। আইন মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সহকারী সচিব মো. নুরুল আলম সিদ্দিক স্বাক্ষরীত পত্রে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ