ঢাকা, শনিবার 7 July 2018, ২৩ আষাঢ় ১৪২৫, ২২ শাওয়াল ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

যশোরে বিধ্বস্ত বিমানের ‘ফ্লাই ডাটা রেকর্ডার’ উদ্ধার

সংগ্রাম ডেস্ক : যশোরে বিমানবাহিনীর বিধ্বস্ত প্রশিক্ষণ বিমানটির ‘ফ্লাই ডাটা রেকর্ডার’ সংক্ষেপে ‘এফডিআর’ উদ্ধার করা হয়েছে। শীর্ষনিউজ
গতকাল শুক্রবার সকালে ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি ওই যন্ত্রাংশটি উদ্ধার করেছে বলে জানিয়েছেন যশোর ফায়ার সার্ভিসের সহকারী পরিচালক পরিমল চন্দ্র কুণ্ডু।
গত ১ জুলাই রাতে যশোর সদর উপজেলার দেয়াড়া ইউনিয়নের আরিচপুরসংলগ্ন বুকভরা বাঁওড়ে বিমানটি বিধ্বস্ত হয়। এর পর নৌ, বিমান, সেনা ও ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা উদ্ধার অভিযান চালিয়ে আসছেন।
পরিমল চন্দ্র কুণ্ডু জানান, কয়েক দিনের অভিযানের পর আমরা নিশ্চিত হয়েছি বিমানের ইঞ্জিন ২০-২৫ ফুট মাটির নিচে চলে গেছে। এর পর গত বৃহস্পতিবার নতুন পদ্ধতি প্রয়োগ করেছি। পদ্ধতিটি হল- পানির নিচে মাটি কেটে পানি দিয়ে উদ্ধার প্রক্রিয়া।
গতকাল শুক্রবার সকালে নৌ, বিমান, সেনা ও ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা উদ্ধার অভিযান শুরু করেন। একপর্যায়ে ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি বিধ্বস্ত বিমানের ‘ফ্লাই ডাটা রেকর্ডার’ উদ্ধার করেছে বলে তিনি উল্লেখ করেন।
যশোর ফায়ার সার্ভিসের সহকারী পরিচালক আরও বলেন, বিধ্বস্ত বিমানের ৯০-৯৫ শতাংশ উদ্ধার হয়েছে। বাকি অংশ উদ্ধারের চেষ্টা চলছে। অভিযান আর কত দিন চলবে, সেটি নির্ভর করবে আন্তঃবাহিনীর সিদ্ধান্তে।
গত ১ জুলাই রাত আনুমানিক রাত ৯টা ৬ মিনিটে বাংলাদেশ বিমানবাহিনীর একটি কে-৮ ডব্লিউ প্রশিক্ষণ বিমান যশোর বিমানবন্দরের অদূরে পশ্চিম পাশে বুকভরা বাঁওড়ে বিধ্বস্ত হয়।
বিমানটি বিমানবাহিনী ঘাঁটি বীরশ্রেষ্ঠ মতিউর রহমান থেকে রাত ৮টা ৫১ মিনিটে নৈশকালীন প্রশিক্ষণের উদ্দেশ্যে উড্ডয়ন করে। বিমানটি দুজন বৈমানিক স্কোয়াড্রন লিডার এনায়েত কবীর পলাশ এবং স্কোয়াড্রন লিডার মো. সিরাজুল ইসলাম উড্ডয়ন করছিলেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ