ঢাকা, শনিবার 7 July 2018, ২৩ আষাঢ় ১৪২৫, ২২ শাওয়াল ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

রূপগঞ্জে ঝুঁকিপূর্ণ ভবনে চলছে পাঠদান ॥ শিক্ষার্থী হ্রাস

রূপগঞ্জ (নারায়ণগঞ্জ) সংবাদদাতা: নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জের  ১০৭ নং মধূখালী  সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়টি বেহাল দশায় পরিণত হয়েছে। শুধু তাই নয়, ইউনিয়ন পরিষদের অর্থায়নে নির্মিত পুরাতন  টিনসেড ভবনেই দীর্ঘদিন ধরে ঝুঁকিপূর্ণভাবে  চলছে পাঠদান। উপযুক্ত ভবন না থাকায় শিক্ষার্থী সংকট দেখা দিয়েছে।
সরেজমিন ঘুরে দেখা যায়,  উপজেলার সদর ইউনিয়নের  ৫ নং ওয়ার্ড এলাকায় ১০৭ নং মধূখালী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের অবস্থান। ১৯৯৬ সনে কমিউনিটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের অধীনে যাত্রা শুরু হয়।  তৎকালীন সরকার ২ কক্ষ বিশিষ্ট একটি ভবনও নির্মাণ করে দেন। পরবর্তি ১৮ বছরেই  সেই ভবনটির ছাদ অকেজো হয়ে পড়লে  ২০১৪ সনে তা ভেঙ্গে পড়ে। এদিকে প্রধানমন্ত্রী ঘোষিত  রূপগঞ্জ উপজেলার ২৫টি কমিউনিটি বিদ্যালয় পূর্ণ সরকারিকরণ করার সময় এ বিদ্যালয়টিও ২০১৩ ইং সনে পূর্ণ সরকারি হয়। তথাপিও সরকারের কাছে ভবনের জন্য আবেদন করেও কোন প্রকার সুরাহা পাচ্ছেন না স্কুল কমিটি। এতে অনাকাঙ্খিতভাবে  কমছে শিক্ষার্থীর হার। 
একই সময় এসব বেহাল দশায় স্থানীয়দের দাবীর মুখে রূপগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদের ২ দফায় ১০ লাখ টাকা ব্যয়ে একটি অফিষ কক্ষ ও ১টি টিনসেড ভবন নির্মাণ করা হয়।  অপর্যাপ্ত বাজেটে নির্মিত সেই ভবনগুলোও বর্তমানে বেহাল দশায় পরিণত হয়েছে। টিনের চালা ফুটো হয়ে শ্রেণি কক্ষে বৃষ্টির পানি পড়ছে। দেয়াল ভেঙ্গে ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে। শিক্ষার্থীরা ভয়ে বারান্দায় ক্লাস করছে। তাছাড়াও স্থানীয় অভিভাবকরা  জরাজীর্ণ ভবন থাকায় তাদের সন্তানদের বেসরকারী কিন্ডারগার্টেনে পড়াতে বাধ্য হচ্ছেন। তাতে অতিরিক্ত শিক্ষা ব্যয়ে হতদরিদ্রদের সন্তানরা লেখাপড়া বন্ধ করে দিচ্ছেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ