ঢাকা, শনিবার 7 July 2018, ২৩ আষাঢ় ১৪২৫, ২২ শাওয়াল ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের তত্ত্বাবধানে পানি পরীক্ষার জন্য ৩ সদস্যের কমিটি গঠন

চট্টগ্রাম ব্যুরো: চট্টগ্রাম মহানগরীর হালিশহরে জন্ডিসের প্রকোপ বৃদ্ধি সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে গণমাধ্যমে প্রকাশিত সংবাদে সৃষ্ট জনবিভ্রান্তি ও জন আতংক দূরীকরণে নানামুখী আলোচনান্তে চট্টগ্রাম ওয়াসার পাইপ লাইন থেকে সরাসরি লাইন সরবরাহকৃত পানি এবং রিজার্ভারের সংরক্ষিত পানির নমূনা নিয়ে পরীক্ষা নিরীক্ষার ব্যাপারে ৩ সদস্যের একটি কমিটি গঠন করা হয। এ উপলক্ষে গতকাল বৃহস্পতিবার বিকেলে চসিক মেয়র দপ্তরে সিটি মেয়রের সভাপতিত্বে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন,চট্টগ্রাম ওয়াসা এবং চট্টগ্রাম জেলা স্বাস্থ্য অধিদপ্তর এক ত্রিপক্ষীয় বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। কমিটিতে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. সেলিম আকতার চৌধুরীকে আহবায়ক, ডেপুটি সিভিল সার্জন ডা.হুমায়ুন কবির ও ওয়াসা’র পক্ষ থেকে সহকারি প্রকৌশলী ইফতেখারুল্লাহ মামুনকে সদস্য করা হয়েছে। উক্ত কমিটি ওয়াসার সরবরাহকৃত পানি সংগ্রহ করে পরীক্ষা পূর্বক আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে কর্পোরেশন বরাবরে রিপোর্ট জমা দেয়ার জন্য সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন নির্দেশনা দিয়েছেন। এসময় চসিক প্রধান নির্বাহি কর্মকর্তা মো. সামসুদ্দোহা, চট্টগ্রাম ওয়াসা চেয়ারম্যান এ কে এম ফজলুল্লাহ, সিভিল সার্জন ডা. আজিজুর রহমান সিদ্দিকী এবং চসিক প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. সেলিম আকতার চৌধুরী উপস্থিত ছিলেন।
আলোচনায় সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন গঠিত কমিটির উদ্দেশ্যে বলেন, হালিশহরে জন্ডিসের প্রকোপ বৃদ্ধি নিয়ে গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশিত হওয়ার খবরে চট্টগ্রাম ওয়াসার সরবরাহকৃত পানি নিয়ে নগরবাসীর মধ্যে বিভ্রান্তি ও আতংক সৃষ্টি হয়েছে। জন আতংক দূর করা এবং জননিরাপত্তার স্বার্থে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের তত্ত্বাবধানে পানিতে জীবাণুর উপস্থিতি আছে কি না তা পরীক্ষা নিরীক্ষার ব্যাপারে একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে। এই কমিটি দুই ভাবে ওয়াসার পানি সংগ্রহ করে তা সায়েন্স ল্যাবরেটরীতে পরীক্ষা নিরীক্ষার জন্য পাঠাবে। ল্যাবরেটরীতে পরীক্ষার পর আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে রিপোর্টটি  কর্পোরেশনে জমা দেয়ার জন্য সিটি মেয়র নির্দেশনা প্রদান করেন। তিনি নগরবাসীকে আতংকিত না হয়ে খাওয়ার ও ব্যবহারের পানি ফুটিয়ে ব্যবহার করার জন্য নগরবাসীর কাছে আহবান এবং চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের স্বাস্থ্য বিভাগের চলমান কার্যক্রম অব্যাহত রাখার জন্য সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ প্রদান করেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ