ঢাকা, রোববার 8 July 2018, ২৪ আষাঢ় ১৪২৫, ২৩ শাওয়াল ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

ইসলামী দল এবং জোট কখনও কোনো অপশক্তি দুর্নীতিবাজদের সমর্থন ও আপস করতে পারে না

মরহুম আল্লামা উবায়দুল হক ছিলেন ইসলামের দুশমন ও বাতিলের বিরুদ্ধে আপসহীন ইমাম। দেশ-বিদেশে ইসলাম বিরোধী সকল চক্রান্ত ষড়যন্ত্রের মোকাবিলায় তাঁরই নেতৃত্বে এদেশের সর্বস্তরের উলামায়ে কেরাম ঐক্যবব্ধ আন্দোলনে সক্রিয় ছিলেন।
গত শুক্রবার বাদ মাগরিব মরহুম খতীব উবায়দুল হক ও তার দুই পুত্র মরহুম সাঈদুল হক ও ইকরামুল হক-এর স্মরণে আলোচনা সভা ও দোয়ার মাহফিল সিলেটে মরহুম খতীবের সুবিদ বাজারস্থ নিজস্ব বাসভবনে অনুষ্ঠিত হয়। পীরে কামেল শায়খুল হাদীস আল্লামা আব্দুল মতিন ধনপুরীর সভাপতিত্বে দোয়ার মাহফিলে প্রধান অতিথি ছিলেন বিশিষ্ট ইসলামী ব্যাক্তিত্ব ও গবেষক ড. মাওলানা খলিলুর রহমান মাদানী। শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন বিশিষ্ট সমাজ সেবক ও ইসলামী ব্যক্তিত্ব এডভোকেট এহসানুল মাহবুব জুবায়ের। শীর্ষ উলামায়ে কেরামেরদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন- পীরে কামেল শায়খুল হাদীস মাওলানা আব্দুল মতিন ধনপুরী, শায়খুল হাদীস মনসুরুল হাসান রায়পুরী, শায়খুল হাদীস আশরাফ আলী মিয়াজানী, শায়খুল হাদীস মাসুক আহমদ সালামী, মাওলানা আতাউল হক সালামী, কুদরত উল্লাহ জামে মসজিদের খতীব মাওলানা জমির উদ্দীন, প্রিন্সিপাল মাওলানা নাসির উদ্দীন, প্রিন্সিপাল মাওলানা মাহমুদুল হাসান, প্রিন্সিপাল মাওলানা গাজী রহমতউল্লাহ, ইসলামী ঐক্যজোটের সিলেট মহানগরী আমীর প্রিন্সিপাল মাওলানা আছলাম রাহমানী, খেলাফতে রব্বানীর আমীর ও ইসলামী ঐক্যজোটের যুগ্ম মহাসচিব প্রিন্সিপাল মুফতি ফয়জুল হক জালালাবাদী, প্রিন্সিপাল মাওলানাআব্দুস সালাম মাদানী, শাহজালাল বিশ^বিদ্যালয়ের খতীব প্রিন্সিপাল মাওলানা মুতিউর রহমান (ভার্সিটি), প্রিন্সিপাল মাওলানা ক্বারী আবু ইউসুফ চৌধুরী, প্রিন্সিপাল মাওলানা আব্দুল মুকিত হাউশা, প্রিন্সিপাল মাওলানা আঃ রাজ্জাক, প্রিন্সিপাল মাওলানা আলী হায়দার, প্রিন্সিপাল মাওলানা হাফিজ মিফতাহ উদ্দীন, প্রিন্সিপাল মাওলানা আঃ আউয়্যাল তারাপানী, প্রিন্সিপাল মাওলানা মকবুল হোসেন তৈয়্যবী, প্রিন্সিপাল মাওলানা আব্দুল ওয়াদুদ, প্রিন্সিপাল মাওলানা খলিলুর রহমান, প্রিন্সিপাল মাওলানা আঃ হাফিজ মাসুদ, মাওলানা হাবিবুল্লাহ, মাওলানা কলিম উল্লাহ প্রমুখ।
ড. মাওলানা খলিলুর রহমান মাদানী বলেন, মরহুম আল্লামা উবায়দুল হক ছিলেন এদেশের সকল আলেম-উলামা, পীর-মাশায়েখ ও মারকায দরবারের ঐক্যবদ্ধ প্লাটফর্ম। তার জীবদ্দশয় খুটিনাটি। এখতেলাফ ওভারকাম করে দল-মত নির্বিশেষে সকলেই আমরা ঐক্যবদ্ধ ছিলাম। ইসলাম বিরোধী যেকোনো চক্রান্ত, ষড়যন্ত্র, উস্কানী ও কালা-কানুনের বিরুদ্ধে তারই ডাকে আমরা সকলেই ময়দানে সক্রিয় ছিলাম। আজও তারমতো আপসহীন ইমামের বড়ই প্রয়োজন।
তিনি বলেন, সব সময় বলতেন কোনো দলের ক্ষমতায় যাবার সিড়ি হিসেবে ব্যবহৃত হবে না। কাউকে ক্ষমতায় বসানো বা কাউকে ক্ষমতা থেকে নামানো আমাদের কাজ নয়, বরং উলামা-মাশায়েখগণ সর্বদাই ইসলাম বিরোধী সকল অপতৎপরতার বিরুদ্ধে সম্মিলিত প্রতিবাদ আন্দোলন চালিয়ে যাবে ইনশাআল্লাহ।
শুভেচ্ছা বক্তব্য এহছানুল মাহবুব জুবায়ের বলেন, মরহুম উবায়দুল হক সাহেব ছিলেন আমাদের প্রেরণার উৎস। ছাত্র জীবন থেকেই তিনি আমাদেরকে দ্বীনি দাওয়াতের পাশাপাশি সামাজিক বিভিন্ন কর্মকান্ড করতে উদ্বুদ্ধ করতেন। মহানবী (সা.) বলেছেন- “মানব কল্যাণে যে কাজ করে সে সর্বোত্তম ব্যক্তি”। নবুয়্যতের পূর্বেও মহানবী (সা.) মানব কল্যাণ কাজ করেছেন হাদীস শরীফে উল্লেখ রয়েছে।
খতীব পুত্র আল্লামা আতাউল হক বলেন, তিনি হকের পক্ষে সদা মজবুত ছিলেন। আমানত দারিতা ও ওয়াদা রক্ষায় ছিলেন অতুলনিয়। স্বীয় ওয়াদা রক্ষা করতে গিয়ে মরক্কোর গ্রান্ড মসজিদ উদ্বোধনের দাওয়াতও প্রত্যাখান করেছেন।
মাওলানা আসলাম রাহমানী বলেন, মরহুম খতীব সাহেব হুজুরের অবর্তমানে ময়দানে ঐক্যবব্ধভাবে না থাকতে পারার কারণে আমরা আজ ইসলামী বিরোধী অপতৎপরতার বিরুদ্ধে সঠিক ভূমিকা রাখতে পারছিনা। আমাদেরকে মনে রাখতে হবে ইসলামী জোট কখনো কোনো অপশক্তি দুর্নীতিবাজদের সমর্থন দিতে পারে না।
মুফতি ফয়জুল হক জালালাবাদী বলেন, ইসলামী আদর্শ লালন ও বাতিল ষড়যন্ত্র মোকাবিলায় আমাদের সকল মারকাজের মুরব্বীদেরকে ঐক্যবদ্ধ থাকতে হবে। আলোচনা সভা ও দোয়ার মাহফিলে সিলেটের বিভিন্ন মারকাজ-দরবারের শীর্ষ উলামাগণ উপস্থিত ছিলেন। প্রেসবিজ্ঞপ্তি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ