ঢাকা, রোববার 8 July 2018, ২৪ আষাঢ় ১৪২৫, ২৩ শাওয়াল ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

সিসিক নির্বাচনে বিএনপির বিদ্রোহী প্রার্থী সেলিম আজ কি বলবেন?

কবির আহমদ, সিলেট : আজ ৮ জুলাই রোববার। সিলেট মহানগর বিএনপির নির্বাচিত সেক্রেটারি ও সিলেট সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে বিদ্রোহী প্রার্থী বদরুজ্জামান সেলিম সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে ৩০ জুলাই অনুষ্ঠিতব্য সিসিক নির্বাচনে তার অবস্থান সম্পর্কে জানান দিবেন।  টেলিভিশন মার্কা নিয়ে বদরুজ্জামান সেলিম মেয়র পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। বিএনপির হাইকমান্ড দলের কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য ও সদ্য সাবেক মেয়র আরিফুল হক চৌধুরীকে  বিএনপির মনোনীত প্রার্থী হিসাবে  ঘোষণা দেয়ার পরও বিএনপি নেতা বদরুজ্জামান সেলিম তার অবস্থান থেকে এখনও পিছপা হননি। সেলিম জানিয়েছেন তিনি দীর্ঘ ৩৮ বছর ধরে জনগণের জন্য রাজনীতি করেন। তৃণমূল নেতাকর্মী তথা নগরবাসীর অনুরোধে সিসিক নির্বাচনে মেয়র পদে প্রার্থী হয়েছেন। এখন তিনি প্রার্থীতা প্রত্যাহার করলে নগরবাসীর প্রতি অসম্মান দেখানো হবে। আজ রোববার সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে তার সুদৃঢ় অবস্থান নগরবাসীর কাছে তুলে ধরবেন বদরুজ্জামান সেলিম।  সংবাদ সম্মেলনকে ঘিরে বিএনপির মনোনীত মেয়র প্রার্থী আরিফুল হক চৌধুরীসহ বিএনপি ঘরনা নেতাকর্মীদের মধ্যে উদ্বেগ-উৎকন্ঠা দেখা দিয়েছে।  সেলিম আজ কী বলবেন সংবাদ সম্মেলনে তা জানার অপেক্ষায় নগরবাসী।
আর ২২ দিন পর সিসিকের ৪র্থতম নির্বাচন। এই প্রথম দলীয় প্রতীকে সিলেট সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। দিন যত যাচ্ছে সিসিক নির্বাচন নিয়ে বিএনপির টানাপোড়েন ক্রমশ বাড়ছেই। দলের কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ ধানের শীষ প্রতীকে নির্বাচনে অংশ নিতে সদ্য সাবেক মেয়র আরিফুল হক চৌধুরীকে মনোনীত করেন। দল থেকে অন্যান্য মনোনয়ন প্রত্যাশীরা বিষয়টি মেনে নিলেও এটি মানেননি মহানগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক বদরুজ্জামান সেলিম। তিনি স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়ে মনোনয়ন জমা দিয়েছেন। পুরোদস্তুর প্রচার-প্রচারণায় রয়েছেন।
সর্বশেষ তিনি আজ  রোববার দুপুরে আয়োজন করেছেন একটি সংবাদ সম্মেলনের। সেখানে ‘কি বিষয় নিয়ে’ কথা বলবেন সে প্রশ্নই এখন ঘুরপাক খাচ্ছে। দলের নেতাকর্মী ও সেলিমের শুভাকাক্সক্ষী সকলের মনে একই প্রশ্ন- প্রত্যাহার না প্রস্তুতি? কেন সেলিম গণমাধ্যমের সামনে কথা বলতে চান?’ গতকাল শনিবার সন্ধ্যায় দৈনিক সংগ্রামকে সেলিম জানান, ‘আপাতত আপনাকে শুধু এইটুকুই বলতে পারি যে, আমি ‘ডিটারমাইন্ড’। বিস্তারিত বলবো আজ সংবাদ সম্মেলনে।’ কি বলতে চান এমন প্রশ্নের উত্তরে তিনি জানান- নির্বাচন থেকে সরে আসার ‘টার্গেট’ নিয়ে প্রার্থী হননি তিনি। তার ‘টার্গেট’ জনগণের সেবা করা। আমি মাঠে আছি। মাঠেই থাকবো।
নগরবাসী আমাকে মেয়র পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার জন্য বলেছেন। আজ সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে আমি আমার প্রকৃত অবস্থান তুলে ধরবো। প্রত্যাহার করবেন কি না এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি জানান, প্রত্যাহার করলে  তো অনেক আগেই করতে পারতাম। নির্বাচন করবো বলেই মাঠে-ময়দানে চষে বেড়াচ্ছি।
নাগরিক কমিটি ব্যানারে মেয়রপদে নির্বাচনের লক্ষ্যে তিনি মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। এখন পর্যন্ত তিনি মাঠে কাজ করছেন। প্রচার-প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছেন নগরীর পাড়া-মহল্লায়। আর তাই বেশ বিপাকে রয়েছে সিলেট বিএনপি। এখনো নির্বাচনী রোডম্যাপ ঘুঁচিয়ে আনতে পারেনি তারা।
গত শুক্রবার থেকে একটি গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে- ‘বিদ্রোহী প্রার্থী বদরুজ্জামান সেলিম বিএনপির হাই কমান্ডের নির্দেশে মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করে নিবেন। সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে তিনি বিষয়টি খোলাসা করবেন।’ তবে এমন বিষয়টি সম্পূর্ণই উড়িয়ে দিয়েছেন। তিনি বলেছেন- ‘কি কারণে তিনি প্রার্থী হচ্ছেন? তিনি নির্বাচিত হলে জনগণকে কি কি সুবিধা বা সেবা দিবেন এসবই তুলে ধরবেন সংবাদ সম্মেলনে। 
বদরুজ্জামান সেলিম বলেন- সরে দাঁড়ানোর প্রশ্নই ওঠেনা। যতোই শাস্তি আসুক না কেন আমিই শেষ ব্যক্তি সরে দাঁড়াবো না। ৩০ জুলাই সিলেটবাসী প্রমাণ করবে তারা কাকে চান?’ তবে সিলেট  জেলা বিএনপির সেক্রেটারি আলী আহমদ বদরুজ্জামানের এ বিষয়টি মানতে নারাজ। তিনি আশাবাদী আজ সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে বদরুজ্জামান সেলিম মনোনয়ন প্রত্যাহারের বিষয়টি খোলাসা করতে পারেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ