ঢাকা, রোববার 8 July 2018, ২৪ আষাঢ় ১৪২৫, ২৩ শাওয়াল ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

দক্ষিণ বেদকাশি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতির বিরুদ্ধে শ্রমিক লীগের সাংবাদিক সম্মেলন

খুলনা অফিস : খুলনার কয়রা উপজেলার দক্ষিণ বেদকাশি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ইউপি চেয়ারম্যান কবি সামছুর রহমান ও তার ছেলে মশিউর রহমান মিলনের বিরুদ্ধে শ্রমিক লীগ নেতাকে মারপিট ও বাড়িতে হামলা চালিয়ে ঘর ভাংচুরের অভিযোগ উঠেছে। গতকাল শনিবার দুপুর ১২টায় খুলনা প্রেসক্লাবে সাংবাদিক সম্মেলনে এসব অভিযোগ করেন ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ড শ্রমিক লীগের সভাপতি মো. আব্দুস ছালাম মোল্যা ও সাধারণ সম্পাদক মো. হাবিবুর রহমান।
লিখিত বক্তব্যে তারা বলেন, গত ৪ জুলাই উপজেলা শ্রমিক লীগের সভাপতি মো. আব্দুল হালিম গাজী ওয়ার্ড শাখার সভাপতি আব্দুস ছালাম মোল্যার বাড়িতে দাওয়াত খেতে যান। তিনি চলে আসার পর ইউপি চেয়ারম্যাম ছালাম মোল্যাকে তার জোড়শিংস্থ অস্থায়ী কার্যালয়ে ডেকে শ্রমিক লীগ একটা ভুয়া সংগঠন। এ সংগঠন করা যাবে না বলে উপস্থিত শত শত মানুষের সামনে কান ধরে বাধ্য করেন ইউপি চেয়ারম্যান। সেখানে উপস্থিত ইউপি চেয়ারম্যানের ছেলে মশিউর রহমান মিলনও শ্রমিক লীগ না করতে শাসিয়েছেন বলে লিখিত বক্তব্যে অভিযোগ করেন তারা। একইদিন ওয়ার্ড শ্রমিক লীগের সাধারণ সম্পাদক হাবিবুর রহমানের বাড়িতে হামলা চালিয়ে তার ঘওে ভাংচুর ও তার স্ত্রীকে লাঞ্ছিত করেন ইউপি চেয়ারম্যানের ছেলে মশিউর রহমান মিলনের নেতৃত্বে সন্ত্রাসী বাহিনী। এসময় তারা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, তার ছেলে সজিব ওয়াজেদ জয়, জেলা শ্রমিক লীগের সভাপতি বিএম জাফর, সাধারণ সম্পাদক শেখ মো. পীর আলী, দপ্তর সম্পাদক গাজী কামরুল ইসলাম, উপজেলা সভাপতি হাজী আব্দুল হালিম, সাধারণ সম্পাদক কামরুল ইসলাম সাগরের ছবি সম্বলিত জাতীয় শ্রমিক লীগের প্যানাটি ছিড়ে ফেলে দেয়। ইউপি চেয়ারম্যান কবি সামসুর রহমান ও তার ছেলে মশিউর রহমান মিলনের অত্যাচার থেকে বাঁচতে দলের সর্বশেষ আশ্রয়স্থল প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দৃষ্টি আর্কষণ করেছেন তারা। সাংবাদিক সম্মেলনে ওয়ার্ড, ইউনিয়ন ও থানা পর্যায়ের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ