ঢাকা, রোববার 8 July 2018, ২৪ আষাঢ় ১৪২৫, ২৩ শাওয়াল ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

২ মাসে ৭ কোটি অ্যাকাউন্ট বন্ধ করে দিয়েছে টুইটার

৭ জুলাই, ওয়াশিংটন পোস্ট : সামাজিক যগাযগমাধ্যম টুইটার গত মে ও জুন মাস জুড়ে প্রায় ৭ কোটি অ্যাকাউন্ট বন্ধ করে দিয়েছে। জুলাই মাসেও প্রক্রিয়াটি চলমান রয়েছে। ব্যবহারকারীর সংখ্যা কমে যাওয়ার আশঙ্কা সত্ত্বেও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমটি থামছে না। তাদের লক্ষ্য মাধ্যমটিতে থাকা ভুয়া অ্যাকাউন্ট ও কমপিউটার চালিত বট অ্যাকাউন্টগুলিকে চিহ্নিত করে বন্ধ করে দেওয়া। এর আগে অপব্যবাহার রোধে টুইটার ‘অপারেশন মেগাফোন’ নামের প্রকল্প চালু করেছিল ভুয়া অ্যাকাউন্ট কিনে নিতে। টুইটারের এমন আগ্রাসী নীতি তাদের পরিচালনাগত দর্শনের সঙ্গেও খাপ খায় না। তাছাড়া পূর্বে প্রতিষ্ঠানটি দাবি করেছিল, তাদের নিয়মিত ব্যবহারকারীর মাত্র ৫ শতাংশ ভুয়া অ্যাকাউন্ট ব্যবহার করে।

অ্যাকাউন্ট বাতিলের এমন দৃঢ় পদক্ষেপের পেছনে রয়েছে মার্কিন নির্বাচনে রুশ হস্তক্ষেপের অভিযোগ এবং সেই হস্তক্ষেপ প্রক্রিয়ায় টুইটারের মত সেবার ব্যহƒত হওয়ার দাবি। ২০১৬ সালের নির্বাচনের আগে রুশ ট্রোলরা ভুয়া অ্যাকাউন্ট ব্যবহার করে টুইটারকে যথেচ্ছ ব্যবহার করেছে। এতে জনপ্রিয় মাধ্যমটির মার্কিন ব্যবহারকারীদের মধ্যে তারা ব্যাপক আকারে বিভিন্ন সামাজিক ও রাজনৈতিক বিষয়ে বিভ্রান্তি তৈরি করতে সমর্থ হয়েছিল। অভিযোগ উঠেছে, এর প্রভাব পড়েছিল প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে। ২০১৬ সালে অনুষ্ঠিত ওই নির্বাচনে রাশিয়ার হস্তক্ষেপের তথ্য প্রকাশ করতে মার্কিন সংসদ টুইটারের ওপর চাপ প্রয়োগ করেছিল। গত অক্টোবরে পর টুইটার বাধ্য হয়েছিল এ সংক্রান্ত তথ্য উপাত্ত তাদের সামনে হাজির  করতে। এরপর থেকে দ্বিগুণেরও বেশি হারে ভুয়া ও সন্দেহজনক অ্যাকাউন্ট বাতিল করতে শুরু করে প্রতিষ্ঠানটি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ