ঢাকা, রোববার 8 July 2018, ২৪ আষাঢ় ১৪২৫, ২৩ শাওয়াল ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

রামপালে নদী-খালের বাঁধাজালে আটকা পড়ে গবাদিপশুর মৃত্যু বাড়ছে

রামপাল (বাগেরহাট) সংবাদদাতা: রামপালে নদী-খালের বাঁধাজালে আটকা পড়ে গোবাদি পশুর মৃত্যু বাড়ছে। মোংলা-ঘষিয়াখালী চ্যানেল সংলগ্ন নদী ও খালে এক শ্রেণির অসাধু ব্যক্তিরা নেট, পাটা ও বাঁধাজাল দিয়ে আটকে রাখায় স্রোতের গতি প্রবাহ কমে যাওয়ার উপক্রম দেখা দিয়েছে। স্থানীয় লোকজন নেট, পাটা ও বাঁধাজাল দিয়ে পানি আটকে রাখা ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহনের দাবি জানিয়েছেন। জানা গেছে, উপজেলার বাঁশতলী ইউনিয়নের মুচিখালীর খাল, শ্যাদলার খাল, কাটাখালীর খাল ও দাউদখালী নদীর বিভিন্ন এলাকায় এক শ্রেণির জেলেরা বাঁধাজাল দিয়ে আটকে রেখে পানির গতি প্রবাহের বাঁধার সৃষ্টি করছে। এছাড়াও বিলে গবাদি পশু খাবার খাওয়ার জন্য নদী ও খাল সাতরিয়ে পার হওয়ার সময় জেলেদের জালে আটকা পড়ে বেশ কয়েকটি গবাদি পশুর মৃত্যুর ঘটনাও ঘটেছে। সম্প্রতি দাউদখালী নদীতে জাফরের জালে আটকা পড়ে আঃ হাই নামের এক ব্যক্তির একটি বড় গরু মারা যায়। মুচিখালীর খালে একটি বাঁধাজালে আটকা পড়ে আঃ বারিক সরদারের আরও একটি গরু মারা যায় জেলে শহিদের জালে পড়ে। হতদরিদ্র এসব কৃষকের গরু মারা যাওয়ায় আর্থিকভাবে তারা ক্ষতির সম্মুখিন হয়েছেন।
ক্ষতিপুরণের আসায় বিভিন্ন প্রভাবশালীদের দারে দারে ঘুরলেও তারা কোন ক্ষতিপুরণ পাননি। নদী-খালে নেট, পাটা উচ্ছেদের বিষয় উপজেলা সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা রিপন কুমার ঘোষের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, উচ্ছেদ অভিযান শুরু করেছি, নদী-খালের সকল বাঁধা দ্রুত অপসারণ করা হবে এবং দায়িদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ