ঢাকা, সোমবার 9 July 2018, ২৫ আষাঢ় ১৪২৫, ২৪ শাওয়াল ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে রাজধানীর থানায় থানায় বিক্ষোভ

বিএনপি চেয়ারপার্সন সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে গতকাল রোববার রাধানীতে কামরাঙ্গীরচর থানার বিক্ষোভ মিছিল -সংগ্রাম

স্টাফ রিপোর্টার : সাবেক প্রধানমন্ত্রী বিএনপি চেয়ারপার্সন দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তি ও সু-চিকিৎসার দাবিতে ৭ জুলাই ২০১৮ বি.এনপি কেন্দ্রীয় বার্য্যালয়ের সামনে প্রতিবাদ সমাবেশ করতে না দেওয়ার প্রতিবাদে বি.এন.পি’র কেন্দ্র ঘোষিত কর্মসূচির অংশ হিসাবে ঢাকা মহানগর উত্তর বি.এন.পি’র উদ্যোগে গতকাল থানায় থানায় বিক্ষোভ কর্মসূচী পালিত হয়। এসময় ৩০ জনের বেশি নেতাকর্মীকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলে অভিযোগ করেছে দলটি।
গতকাল রোববার ঢাকার বিভিন্ন স্থানে এই কর্মসূচি পালিত হয়েছে বলে প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে জানিয়েছে বিএনপি।  বাড্ডা থানা বি.এন.পি’র একটি বিক্ষোভ মিছিল বাড্ডা লিংক রোডে অনুষ্ঠিত হয়। মিছিলে নেতৃত্ব দেন ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপি যুগ্ন সম্পাদক এ জি এম সামসুল হক, ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপি’র সহ সাধারণ সম্পাদক মাহাবুবুল করিম জাফর, বাড্ডা থানার সাধারণ সম্পাদক আব্দুল কাদের বাবু, কামরুল ইসলাম স্বপন, রাশেদ আলম মনু, হাজী আব্দুল মতিন, মেজবাহ উদ্দিন টুটুল, যুবনেতা রেজাউল করিম, আজিজুল হক সংগ্রাম, ছাত্রনেতা আর্শেদ আলী আশিক, শ্রমিক নেতা আ: কুদ্দুসসহ বিএনপি ও সকল অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
কাফরুল থানা বি.এন.পি’র একটি বিক্ষোভ মিছিল কাজীপাড়া মাদরাসা মার্কেট রোকেয়া স্বরণী থেকে শুরু হয়। মিছিলে নেতৃত্ব দেন ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপি যুগ্ন সম্পাদক মোয়াজ্জেম হোসেন মতি, কাফরুল থানা বিএনপির সভাপতি আক্তার হোসেন জিল্লু, সাধারণ সম্পাদক আকরাম বাবুল, আরেফিন টুটুল, গোলাম কিবরিয়া শিপু, ছাত্রনেতা শাহিনসহ বিএনপি ও সকল অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।
রামপুরা থানা বি.এন.পি’র একটি বিক্ষোভ মিছিল রামপুরা আবুল হোটেলের সামনে থেকে অনুষ্ঠিত হয়। মিছিলে নেতৃত্ব দেন ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপি যুগ্ন সম্পাদক সাইফুর রহমান মিহির, থানা বিএনপি’র সভাপতি মোঃ মোমিন উদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক জহিরুল ইসলাম ভূইয়া সহ বিএনপি ও সকল অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।
বনানী থানা বি.এন.পি’র একটি বিক্ষোভ মিছিল টিভিগেট থেকে শুরু হয়ে তিতুমীর কলেজের সামনে শেষ হয়। মিছিলে থানার সাধারণ সম্পাদক মোঃ মিজানুর রহমান বাচ্চু, সহসভাপতি মিজানুর রহমান মিজান, সহিদুল ইসলাম সহিদসহ বিএনপি ও সকল অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
মোহাম্মদপুর থানা  বি.এন.পি’র একটি বিক্ষোভ মিছিল মোহাম্মদপুর টাউন হলের সামনে থেকে শুরু হয়ে আসাদগেটে গিয়ে শেষ হয়। মিছিলে থানার সাধারণ সম্পাদক মোঃ এনায়েতুল হাফিজ, এস.এম আহম্মদ আলী, মিজানুর রহমান ইসহাক, এ্যাড: রাজেশ খান, এ্যাড: সোরয়ার সাকিব, সাজেদুল হক রনি, শাওন আহম্মেদ শপন সহ বিএনপি ও সকল অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
আদাবর থানা বি.এন.পি’র একটি বিক্ষোভ মিছিল থানা সভাপতি এ্যাড: আক্তারুজ্জামান ও সাধারণ সম্পাদক মোঃ নাসির উদ্দিনের নেতৃত্বে অনুষ্ঠিত হয়। মিছিলে প্রচুর বিএনপি ও সকল অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
তুরাগ থানা বি.এন.পি’র একটি বিক্ষোভ মিছিল থানা সভাপতি মোঃ আমানউল্লাহ ভূইয়া ও সাধারণ সম্পাদক মোঃ হারুন -অর- রশিদ খোকার নেতৃত্বে অনুষ্ঠিত হয়। মিছিলে প্রচুর বিএনপি ও সকল অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
ভাটারা থানা বি.এন.পি’র একটি বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়। মিছিলে থানার সভাপতি কাজী নুরুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক এস.এম হুমায়ুন কবির, সিনিয়র সহ সভাপতি হাজী মোঃ রেজাউল কবির, আফজালুর রহমান অরুন, মোঃ ফরিদ আহম্মেদ টিটুসহ বিএনপি ও সকল অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। মিছিল থেকে পুলিশ হামলা চালিয়ে চার জনকে গ্রেফতার করেন।
শাহ্আলী থানা বি.এন.পি’র একটি বিক্ষোভ মিছিল শাহ্আলী মাজারের সামনে থেকে শুরু হয়ে শাহ্আলী মার্কেটের সামনে পুলিশী বাধায় শেষ হয়। মিছিলে থানার সভাপতি এস. এম কায়সার পাপ্পু, সাধারণ সম্পাদক হুমায়ুন কবির রওশন, সহ-সভাপতি শাহ জামাল বাচ্চু, মিজানুর রহমান ছোট মিজান, হিমেল সহ বিএনপি ও সকল অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
খিলক্ষেত থানা বি.এন.পি’র একটি বিক্ষোভ মিছিলে থানা বিএনপির সভাপতি হাজী এসএম ফজলুল হক ও সাধারণ সম্পাদক মোঃ সোহরাব খান স্বপন, প্রফেঃ আক্তারুজ্জামান, সিএম আনোয়ার, সুলতান মাহমুদ, মুরাদ মজুমদার, জহির উদ্দিন বাবু, নাসির উদ্দিন দেওয়ানসহ বিএনপি ও সকল অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
উত্তরা পূর্ব থানা বি.এন.পি’র একটি বিক্ষোভ মিছিল থানা সভাপতি আ: সালাম সরকার, সাধারণ সম্পাদক অ্যাড: এফ ইসলাম চন্দনের নেতৃত্বে অনুষ্ঠিত হয়। মিছিলে বিএনপির সকল অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
দারুসসালাম থানা বি.এন.পি’র একটি বিক্ষোভ মিছিল মাজার রোডে অনুষ্ঠিত হয়। মিছিলে ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপির সহসভাপতি হাজী মোঃ মাসুদ খান, থানা সভাপতি হাজী আব্দুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক আরিফ মৃধাসহ বিএনপি ও সকল অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
বিমান বন্দর থানা বি.এন.পি’র একটি বিক্ষোভ মিছিলে থানা সভাপতি জুলহাস পারভেজ ও সাধারণ সম্পাদক মনির হোসেন ভূইয়াসহ বিএনপি ও সকল অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
দক্ষিন খান থানা  বি.এন.পি’র বিক্ষোভ মিছিলে থানা সভাপতি সাহাব উদ্দিন সাগর, সাধারণ সম্পাদক আলী আকবর আলী, সাংগঠনিক সম্পাদক আমীরুল ইসলাম বাবলুসহ বিএনপি ও সকল অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
মিরপুর থানা  বি.এন.পি’র  বিক্ষোভ মিছিল থানা সভাপতি আবুল হোসেন আব্দুল এর নেতৃত্বে অনুষ্ঠিত হয়। মিছিলে থানা বিএনপির ও সকল অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
মিরপুর থানা  বি.এন.পি’র বিক্ষোভ মিছিল দেলোয়ার হোসেন দুলুর নেতৃত্বে অনুষ্ঠিত হয়। মিছিলে পুলিশ অতর্কিত হামলা চালায় এবং মিছিলটি পন্ড হয়ে যায়। মিছিল থেকে ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপির সহ সাধারণ সম্পাদক দেওয়ান মোঃ গিয়াস উদ্দিন সহ ৮/৯ জন নেতাকর্মীকে মিরপুর থানা পুলিশ গ্রেফতার করেন। এলাকায় বাড়িতে বাড়িতে পুলিশ তল্লাশি চালালে সাধারণ মানুষের মধ্যে আতংক ছড়িয়ে পড়ে।
পল্লবী থানা বি.এন.পি’র একটি বিক্ষোভ মিছিল থানা সভাপতি কমিশনার সাজ্জাদ হোসেন ও সাধারণ সম্পাদক বুলবুল মল্লিকের নেতৃত্বে ৬ নং বাজার মার্কেটের সামনে থেকে শুরু করতে গেলে পল্লবী ও রূপনগর থানার সিভিল পুলিশ মিছিলটি ঘিরে ফেলে এবং সেখান থেকে পল্লবী থানা বিএনপি নেতা সংস্কৃতি সম্পাদক রাজিব হাসান, ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক শাহ্আলম, শ্রমিকদল সভাপতি ৯১ নং ওয়ার্ড সাগরসহ প্রায় ১০/১২ জনকে পুলিশ ব্যানারসহ গ্রেফতার করে নিয়ে যায়। পুলিশি বাধায় মিছিলটি পন্ড হয়ে যায়।
রূপনগর থানা বি.এন.পি’র একটি বিক্ষোভ মিছিল থানা সভাপতি মোঃ আব্দুল আউয়াল, সাধারণ সম্পাদক ইঞ্জি মোঃ মজিবুল হকের নেতৃত্বে অনুষ্ঠিত হয়। মিছিল থেকে রূপনগর থানার মোঃ জাকির হোসেন, আব্দুল হাই ও মোঃ শাহিন আলমসহ ৬ জন গ্রেফতার করে রূপনগর থানা পুলিশ।
উত্তরখান থানা বি.এন.পি’র একটি বিক্ষোভ মিছিল থানা সভাপতি আহসান হাবীব আহসান ও সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম বেপারীর নেতৃত্বে অনুষ্ঠিত হয়। মিছিলে থানা বিএনপির ও সকল অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
উত্তরা পশ্চিম থানা বি.এন.পি’র একটি বিক্ষোভ মিছিল থানা সভাপতি হাজী মোঃ দুলালের নেতৃত্বে অনুষ্ঠিত হয়। মিছিলে থানা বিএনপির ও সকল অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। উত্তরা পশ্চিম থানা বিএনপির আরেকটি বিক্ষোভ মিছিল মোঃ  আফাজ উদ্দিন এর নেতৃত্বে অনুষ্ঠিত হয়। মিছিলে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন উত্তরা পশ্চিম থানা বিএনপি নেতা আজমল হুদা মিঠু, কামাল পাশা, আওলাদ হোসেন- সহ বিএনপির ও সকল অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। ক্যান্টনমেন্ট থানা বি.এন.পি’র একটি বিক্ষোভ মিছিল থানা সভাপতি প্রিন্সি: লিয়াকত আলীর নেতৃত্বে অনুষ্ঠিত হয়। মিছিলে থানা বিএনপির ও সকল অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
দারুস সালাম  থানার আরেকটি মিছিল এইচ.এম ইমরান, নজরুল ইসলাম, আজিজুল হক টিটু, ফারুক আহম্মেদ ও সেন্টু মাহমুদের নেতৃত্বে অনুষ্ঠিত হয়। মিছিল থেকে পুলিশ আজিজুল ও রুবেল রানা নামের ২জন কে গ্রেফতার করে থানায় নিয়ে যায়।
গুলশান থানা বি.এন.পি’র একটি বিক্ষোভ মিছিল থানা সভাপতি মোঃ ফারুক হোসেন ভূইয়া ও সাধারণ সম্পাদক মোঃ দ্বীন ইসলাম এর নেতৃত্বে অনুষ্ঠিত হয়। মিছিলে থানা বিএনপির ও সকল অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
মোহাম্মদপুর থানা বিএনপির আরেকটি মিছিল থানা সভাপতি ওসমান গনি শাহজাহান এর নেতৃত্বে অনুষ্ঠিত হয়। মিছিলে থানা বিএনপির ও সকল অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
তেজগাঁও থানা বি.এন.পি’র একটি বিক্ষোভ মিছিল থানা সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ আলীর নেতৃত্বে  অনুষ্ঠিত হয়। অন্যদের মধ্যে উপস্থিত বাহারুল মোজাহিদ সহ বিএনপির ও সকল অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
তেজগাঁও থানা বিএনপির আরেকটি বিক্ষোভ মিছিল থানা সভাপতি এল রহমান এর নেতৃত্বে  অনুষ্ঠিত হয়। কাওরান বাজারের সামনে গেলে পুলিশি বাধাঁয় মিছিলটি পন্ড হয়ে যায়। মিছিলে আরো উপস্থিত ছিলেন মজিবুর রহমান কাজী, কাজী বাবু সহ সকল অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
ভাষানটেক থানা বি.এন.পি’র একটি বিক্ষোভ মিছিল পুলিশি বাধায় পন্ড হয়ে যায়। তেজগাঁও শিল্পাঞ্চল থানা বি.এন.পি’র একটি বিক্ষোভ মিছিল আইনুল ইসলাম চঞ্চলের নেতৃত্বে অনুষ্ঠিত হয়। মিছিলটিতে বিএনপি সহ সকল অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
বিএনপি জানিয়েছে বিক্ষোভ কর্মসূচী পালন করতে গিয়ে পুলিশের কাছে গ্রেফতার হয়েছে অনেক নেতাকর্মী।  এরমধ্যে পল্লবী থানায় ১২ জন,  রূপনগর থানায় ৬ জন, মিরপুর থানায় ৮ জন, ভাটারা থানায় ৪ জন, গুলশান থানায় ১ জন, এবং দারুস সালাম থানায় ০২ জন গ্রেফতার হয়েছেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ