ঢাকা, সোমবার 24 September 2018, ৯ আশ্বিন ১৪২৫, ১৩ মহররম ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

পাকিস্তানে সন্ত্রাসী হামলায় এএনপি’র প্রার্থীসহ নিহত ১৩

তালেবানের বিরুদ্ধে কঠোর অবস্থান ঘোষণা করেছিলেন নিহত হারুন বিলোর

সংগ্রাম অনলাইন ডেস্ক:

পাকিস্তানের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলীয় পেশোয়ার শহরে আওয়ামী ন্যাশনাল পার্টি বা এএনপি’র এক নির্বাচনি সমাবেশে আত্মঘাতী বোমা হামলায় দলটির একজন প্রভাবশালী প্রার্থীসহ অন্তত ১৩ ব্যক্তি নিহত হয়েছেন।

আগামী ২৫ জুলাই পাকিস্তানে অনুষ্ঠেয় সাধারণ নির্বাচনকে সামনে রেখে ওই নির্বাচনি জনসভার আয়োজন করা হয়েছিল। নির্বাচনকে সামনে রেখে দেশে সন্ত্রাসী হামলা হতে পারে বলে পাকিস্তানের সেনা মুখপাত্র এক ঘোষণা দেয়ার কয়েক ঘণ্টা পর মঙ্গলবার পেশোয়ারে ওই হামলা হয়।

আওয়ামী ন্যাশনাল পার্টি নির্বাচনে জয়ী হলে তালেবানের মতো উগ্র জঙ্গি গোষ্ঠীগুলোর বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ নেয়ার আশ্বাস দিয়েছে।  

নির্বাচনি বিলবোর্ডে হারুন বিলোর (লাল টুপি) ও বশির বিলোরের (সাদা চুল) ছবি

খাইবার পাখতুনখোয়া প্রদেশের রাজধানী পেশোয়ারের নগর পুলিশ প্রধান কাজি জামিল বলেছেন, আত্মঘাতী বোমা হামলায় রাজনীতিবিদ হারুন বিলোরসহ ১৩ জন নিহত ও অন্তত ৫৪ জন হয়েছেন। হারুন বিলোর আওয়ামী ন্যাশনাল পার্টির প্রার্থী ছিলেন এবং তিনি এই প্রদেশের একটি প্রভাবশালী রাজনৈতিক পরিবারের সন্তান। তার পিতা বশির বিলোর ২০১২ সালে এক আত্মঘাতী বোমা হামলায় নিহত হন।

পেশোয়ারের পুলিশ কর্মকর্তা শাফকাত মালিক বার্তা সংস্থা এএফপিকে বলেছেন, প্রাথমিক তদন্তে প্রতীয়মান হচ্ছে, হারুন বিলোরকে লক্ষ্য করেই আত্মঘাতী হামলাটি চালানো হয়েছে। কোনো গোষ্ঠী এ হামলার দায়িত্ব স্বীকার না করলেও তালেবান গোষ্ঠী বিগত বছরগুলোতে পেশোয়ারে এ ধরনের অসংখ্য হামলা চালিয়েছে।-পার্স টুডে

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ