ঢাকা, বৃহস্পতিবার 12 July 2018, ২৮ আষাঢ় ১৪২৫, ২৭ শাওয়াল ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

রিয়াল ছেড়ে জুভেন্টাসে রোনালদো

স্পোর্টস ডেস্কঃ বেশ কিছু দিন ধরে চলা গুঞ্জনই চলছিল  রিয়াল মাদ্রিদ ছেড়ে জুভেন্টাসে যোগ দিয়েছেন ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। রোনালদোকে পেতে ১১ কোটি ২০ লাখ ইউরো খরচ হচ্ছে ইতালিয়ান চ্যাম্পিয়নদের। চার বছরের চুক্তিতে যোগ দেওয়া পর্তুগীজ ফরোয়ার্ড তুরিনের ক্লাবটিতে ২০২২ সালের জুনের শেষ পর্যন্ত খেলবেন। ২০০৯ সালে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড থেকে ওই সময়ের রেকর্ড ট্রান্সফার ফি ৯ কোটি ইউরোতে রিয়ালে যোগ দেওয়া রোনালদো ক্লাবটির হয়ে চারটি চ্যাম্পিয়ন্স লিগ ও দুটি লা লিগাসহ জিতেছেন অসংখ্য শিরোপা। সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে রিয়ালের ইতিহাসে রেকর্ড ৪৫১ গোল করা রোনালদো পাঁচবার বর্ষসেরা ফুটবলারের পুরস্কার জিতেছেন। প্রথম ক্লাব হিসেবে রিয়ালের টানা তিনবার চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জয়ে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রয়েছে রোনালদোর। গত পাঁচ মৌসুমে চার বার ইউরোপ সেরা হয় স্পেনের ক্লাবটি। এর মধ্যে ২০১৪ ও ২০১৭ সালের ফাইনালে গোল করেন প্রতিযোগিতাটির সর্বোচ্চ গোলদাতা। ২০১৬ সালের জুলাইয়ে ৯ কোটি ইউরো ট্রান্সফার ফিতে নাপোলি থেকে গনসালো হিগুয়াইনকে দলে নিয়েছিল ইউভেন্তুস। ক্লাবটির ইতিহাসে আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ডই এত দিন ছিলেন সবচেয়ে দামি ফুটবলার। রেকর্ডটি এখন ৩৩ বছর বয়সী রোনালদোর। বিদায় বেলায় সতীর্থদের ধন্যবাদ জানিয়ে রোনালদো বলেন, “মাঠ ও ড্রেসিং রুমে আমার চমৎকার কিছু সতীর্থ ছিল। আমি অবিশ্বাস্য সব সমর্থকদের উষ্ণতা অনুভব করেছি। একসঙ্গে আমরা টানা তিনটি চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জিতেছি। পাঁচ বছরে চারবার চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জিতেছি। রিয়াল মাদ্রিদ আমার হৃদয়, আমার পরিবারের হৃদয় জয় করেছে।"সময় হয়েছে আমার জীবনের নতুন এক অধ্যায় শুরু করার। এ কারণেই আমি ক্লাবকে আমাকে ছেড়ে দিতে বলেছিলাম।"সান্তিয়াগো বের্নাবেউয়ে ৯ বছর কাটানো ক্লাবের ইতিহাসের অন্যতম সেরা ফুটবলারের বিদায় বেলায় শুভকামনা জানিয়ে বিবৃতি দিয়েছে রিয়াল।“ক্রিস্তিয়ানো রোনালদো সবসময় রিয়াল মাদ্রিদের প্রতীক হয়ে থাকবে।“রিয়াল মাদ্রিদ এমন একজন খেলোয়াড়ের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানাতে চায় যে বিশ্বের সেরা খেলোয়াড় হিসেবে নিজেকে প্রমাণ করেছে এবং যে আমাদের ক্লাবে ও বিশ্ব ফুটবলে অন্যতম সেরা এক যুগের জন্ম দিয়েছে।“রিয়াল মাদ্রিদ সব সময় তোমার বাড়ি হয়ে থাকবে।”

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ