ঢাকা, বৃহস্পতিবার 12 July 2018, ২৮ আষাঢ় ১৪২৫, ২৭ শাওয়াল ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

ফাহিমার হ্যাটট্রিকে বিশ্বকাপ বাছাই পর্বের সেমিফাইনালে বাংলাদেশ

স্পোর্টস ডেস্ক : ফাহিমা আক্তারের হ্যাটট্রিকে আরব আমিরাতকে ৮ উইকোট হারিয়ে বিশ্বকাপ বাছাইপর্বের সেমিফাইনালে উঠেছে বাংলাদেশ। নারী বিশ্বকাপের বাছাইপর্বের ১১তম ম্যাচে আরব আমিরাতের দেওয়া ৪০ রানের টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে ৭৯ বল হাতে রেখেই বড় ব্যবধানে জিতে যায় বাংলাদেশের নারী ক্রিকেটাররা। বিশ্বকাপ বাছাইপর্বের ম্যাচে গত মঙ্গলবার  সংযুক্ত আরব আমিরাতের বিপক্ষে মাঠে নামে বাংলাদেশের নারী ক্রিকেট দল। বাছাইপর্বের ১১তম ম্যাচে টসে হেরেও আমিরাত প্রথম  ব্যাটিংয়ে নামে। ব্যাট করতে নেমে ২৮ রানে দুই উইকেট হারালো আমিরাত। ইনিংসের ১৩তম ওভারে বল করতে এসে ওভারের শেষ তিন বলে তিনি যথাক্রমে ওজা (১৮), ডোনা (৩) ও এগোদাগের (০) উইকেট তুলে নেন ফাহিম। এর মধ্যে রুমানার ক্যাচে বিদায় নেন ডোনা, নাহিদা আক্তারের তালুবন্দী হয়ে ফিরেন সর্বোচ্চ আঠার রান করা ওজা। আর শেষ বলে লেগ বিফোরের ফাঁদে ফেলে এগোদাগেকে বিদায় করে হ্যাটট্রিক পূর্ণ করেন ফাহিমা। টি-টোয়েন্টিতে প্রথম বাংলাদেশী নারী বোলার হিসেবে হ্যাটট্রিক করেছেন ফাহিমা খাতুন। ইনিংসের ১৩তম ওভারের শেষ তিন বলে টানা তিন উইকেট তুলে নেন ফাহিমা। এর আগে ওয়ানডেতে বাংলাদেশের পক্ষে প্রথম নারী ক্রিকেটার হিসেবে হ্যাটট্রিক করেছিলেন রুমানা আহমেদ। সব মিলিয়ে ৪ ওভার বল করে মাত্র ৮ রান খরচে ৪ উইকেট তুলে নেন ফাহিমা। দুই উইকেট করে নেন নাহিদা আক্তার ও রুমানা। বাকি উইকেটটি রান আউট। শেষ পর্যন্ত ১৬.২ ওভারে মাত্র ৩৯ রানে সব উইকেট হারায় সংযুক্ত আরব আমিরাত। ৪০ রানের টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে ৭ ওভারে ২ উইকেট হারিয়ে জয়ের বন্দরে পৌঁছে যায় টাইগ্রেসরা। বাংলাদেশের হয়ে সর্বোচ্চ রান আসে নিগার সুলতানার (২২ বলে ২১) ব্যাট থেকে। ম্যাচসেরা খেলোয়াড় নির্বাচিত হন  ফাহিমা খাতুন। আরব আমিরাতকে হারিয়ে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের বাছাইপর্বে টানা তৃতীয় জয় পায় বাংলাদেশের মেয়েরা। এই জয়ে 'এ' গ্রুপের চ্যাম্পিয়ন হওয়া নিশ্চিত বাংলাদেশের। তাতে মিলেছে সেমিফাইনালের টিকিট। যেখানে প্রতিপক্ষ হবে বি- গ্রুপের রানার্সআপ ও তৃতীয় স্থানে থাকা দলের মধ্যকার প্লে-অফ খেলে জিতে আসা দলটি। তাতে জিতে ফাইনালে পা রাখতে পারলেই মিলবে বিশ্বকাপে খেলার টিকিট। ওই প্লে-অফে খেলবে 'বি' গ্রুপের রানার্স আপ স্কটল্যান্ড ও তৃতীয় হওয়া উগান্ডার মেয়েরা।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ