ঢাকা, বৃহস্পতিবার 12 July 2018, ২৮ আষাঢ় ১৪২৫, ২৭ শাওয়াল ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

বিএনপি-আ’লীগের মেয়র প্রার্থীর জনসংযোগ আর প্রচারণায় মুখর রাজশাহী

রাজশাহী : রাসিক মেয়র নির্বাচনে বিএনপির প্রার্থী মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুল ও আ’লীগের খায়রুজ্জামান লিটন গতকাল বুধবার জনসংযোগ করেন -সংগ্রাম

রাজশাহী অফিস : রাজশাহী সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে বিএনপি ও আ’লীগের মেয়র প্রার্থীর জনসংযোগ আর প্রচারণায় মুখর হয়ে উঠেছে রাজশাহী মহানগরী। গতকাল বুধবার উভয় প্রার্থীই নগরীর বিভিন্ন এলাকায় জনসংযোগ করেন। অন্যদিকে দুপুরের পর থেকে নগরীতে বিরামহীন মাইকিং চলছে। পোস্টার-প্ল্যাকার্ডে ছেয়ে ফেলা হয়েছে নগরীর মোড় ও আইল্যান্ডগুলো। রাস্তায় ঝোলানো হয়েছে সাদা-কালো পোস্টার। 
জনসংযোগকালে আওয়ামী লীগ প্রার্থী এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন বলেন, ২০১৩ সালের নির্বাচনে তিনি জয়ী হলে এতদিনে রাজশাহী আধুনিক নগরী হিসেবে সারা বিশ্বে পরিচিতি পেতো। কিন্তু গত পাঁচ বছরে রাজশাহীর কোনও উন্নয়ন হয়নি। তাই মানুষ আর ভুল করবে না উন্নয়নের ধারা ফিরিয়ে আনতে এবার নৌকায় ভোট দেবেন। নির্বাচিত হলে রাজশাহী হবে ‘মেগা সিটি’। অপরদিকে সদ্য বিদায়ী মেয়র মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুল বলেন, মামলা দিয়ে তাকে গত মেয়াদের অর্ধেকের বেশি সময়ই নগর ভবনের বাইরে রেখে কাজ করতে দেয়া হয়নি। গত পাঁচ বছরে রাজশাহী সিটির মেয়র থাকার সময়ে তিনি মাত্র ২৬ মাস কাজ করার সুযোগ পেয়েছেন। তার বিরুদ্ধে ১২টি মামলা দেয়া হয়েছে। যেগুলোর ৮টি চলমান চারটি স্থগিত অবস্থায় রয়েছে। হাজতেও থাকতে হয়েছে প্রায় সাত মাস। দু’বার সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। রাজশাহীর মানুষ এসবের সাক্ষী। ভোটারদের কাছে এটা পরিষ্কার, সুযোগ পেলে তিনি রাজশাহীর উন্নয়ন করবেন। বুলবুল বলেন, বর্তমানে নির্বাচনের কোনো পরিবেশ নেই। এখানে লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড  তৈরি করা না গেলে প্রত্যাশিত ফলাফল পাওয়া যাবে না। এর পরও তারা নির্বাচনে অংশ নিচ্ছেন। কারণ দলীয়ভাবে এ নির্বাচনকে তারা কারাবন্দী খালেদা জিয়ার মুক্তির আন্দোলনের অংশ হিসেবেই নিয়েছেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ