ঢাকা, বৃহস্পতিবার 12 July 2018, ২৮ আষাঢ় ১৪২৫, ২৭ শাওয়াল ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

গঙ্গাচড়ায় তিস্তার ভাঙন থেকে নদী তীরবর্তী অবকাঠামে রক্ষার দাবি

রংপুর অফিস: রংপুরের গঙ্গাচড়া উপজেলায় গত কয়েকদিন ধরে বৃষ্টির পানি এবঙ সীমান্তের ওপার থেকে নেমে আসা পাহাড়ী ঢলে তিস্তা নদীর পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় অব্যাহত নদী ভাঙনের ফলে নদী তীরর্বতী বিভিন্ন এলাকায় ব্যাপক ক্ষতি সাধিত  হয়েছে। এর ফলে তিস্তা নদীর ভাঙন থেকে নদী তীরবর্তী এলাকার  অবকাঠামো রক্ষার দাবি জানিয়েছে এলাকাবাসী।
তিস্তা নদীর তীরবর্তি বন্যকবলিত ৭টি ইউনিয়নের সড়ক-সেতু আবাদী জমি, গাছ, বাঁশ, মসজিদসহ প্রায় দেড় শতাধীক বাড়ি বিলীন হয়ে গেছে। হুমকিতে পড়েছে স্কুল, মাদরাসা, আশ্রয়ন প্রকল্প, গুচ্ছ গ্রাম, মসজিদ, পোষ্ট অফিস, স্বাধীনতার স্মৃতি বিজরিত উপজেলা একমাত্র বধ্যভূমিসহ বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ প্রতিষ্ঠান। তিস্তা নদীর ভাঙনের কবল থেকে শংকরদহে অবস্থিত উপজেলার একমাত্র বধ্যভূমি রক্ষার্থে মুক্তিযোদ্ধাগন উদ্ধর্তন কর্তৃপক্ষের নিকট দাবি করেন। লক্ষীটারী ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল্লা আল হাদী জানান, স্বাধীনতার স্মৃতি বিজরিত একমাত্র বধ্যভূমি তিস্তার ভাঙনে হুমকির মুখে পড়েছে। নদী ভাঙন রোধে ব্যবস্থা না নিলে স্বাধীনতার এ স্মৃতি রক্ষা করা যাবেনা। তিনি বধ্যভূমিসহ তার ইউনিয়নের ৩ টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, ২টি হাফেজিয়া মাদরাসা, ১ টি গুচ্ছগ্রাম, ২ টি আশ্রয়ন কেন্দ্রসহ ২ হাজার পরিবারের বসত ভিটা বাড়িঘর ভাঙন থেকে রক্ষার জন্য জরুরী পদক্ষেপ গ্রহনের জন্য উপজেলা নির্বাহী অফিসারের নিকট আবেদন করেছেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ