ঢাকা, শুক্রবার 13 July 2018, ২৯ আষাঢ় ১৪২৫, ২৮ শাওয়াল ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

 রোহিঙ্গাদের যে গ্রামে সাংবাদিকদের ঢুকতে দেয়া হয়নি

১২ জুলাই, বিবিসি: মিয়ানমারের নির্মম নির্যাতনের অবস্থা খুব সহজেই অনুমান করা যায় বিবিসির ভিডিও প্রতিবেদনে দেখতে পাওয়া গ্রামটির দিকে তাকালে। গত বছর মিয়ানমারের উত্তর রাখাইনে যখন মিয়ানমারের সামরিক বাহিনী এক বর্বরোচিত অভিযান শুরু করে, তখন সেখান থেকে পালিয়েছিল প্রায় সাত লাখ রোহিঙ্গা মুসলিম।শত শত গ্রাম জ্বালিয়ে মাটিতে মিশিয়ে দেয়া হয়। সেখানে ব্যাপক হারে হত্যা ও ধর্ষণের ঘটনা ঘটে। জাতিসংঘের বিবেচনায় এটি ছিল জাতিগত নির্মূল অভিযান। তবে মিয়ানমারের সরকার বলেছিল তার রোহিঙ্গা জঙ্গীদের বিরুদ্ধে লড়াই করছে, বেসামরিক লোকজনকে এই অভিযানে টার্গেট করা হচ্ছে না।

সম্প্রতি মিয়ানমারের কর্মকর্তারা একদল সাংবাদিককে রাখাইনে নিয়ে যায়। এই দলে বিবিসির এক সাংবাদিকও ছিলেন। কিন্তু এই সফর ছিল একেবারেই সরকারি নিয়ন্ত্রণে।

উল্লেখ্য, বাংলাদেশে বর্তমানে রোহিঙ্গাদের নিবন্ধন শেষ করেছে। নির্যাতনের মুখে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গা মুসলিমদের সংখ্যা মোট ১১ লাখ ১৮ হাজার ৫৭৬ জন। রোহিঙ্গাকে নিবন্ধন করানোর কথা জানিয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল বলেছেন, আর কোনো অনিবন্ধিত রোহিঙ্গা বাংলাদেশে নেই।

 রোহিঙ্গাদের যে গ্রামটি বিবিসিকে দেখতে দিতে চায়নি মিয়ানমার:গত বছর মিয়ানমারের উত্তর রাখাইনে যখন মিয়ানমারের সামরিক বাহিনী এক বর্বরোচিত অভিযান শুরু করে, তখন সেখান থেকে পালিয়েছিল প্রায় সাত লাখ রোহিঙ্গা মুসলিম।শত শত গ্রাম জ্বালিয়ে মাটিতে মিশিয়ে দেয়া হয়। সেখানে ব্যাপক হারে হত্যা ও ধর্ষণের ঘটনা ঘটে। জাতিসংঘের বিবেচনায় এটি ছিল জাতিগত নির্মূল অভিযান। তবে মিয়ানমারের সরকার বলেছিল তার রোহিঙ্গা জঙ্গীদের বিরুদ্ধে লড়াই করছে, বেসামরিক লোকজনকে এই অভিযানে টার্গেট করা হচ্ছে না। সম্প্রতি মিয়ানমারের কর্মকর্তারা একদল সাংবাদিককে রাখাইনে নিয়ে যায়। এই দলে বিবিসির এক সাংবাদিকও ছিলেন। কিন্তু এই সফর ছিল একেবারেই সরকারি নিয়ন্ত্রণে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ