ঢাকা, শনিবার 14 July 2018, ৩০ আষাঢ় ১৪২৫, ২৯ শাওয়াল ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

মাদারীপুরের ঝাউদীতে ভুমিদস্যু নারী নির্যাতনকারীদের দৌরাত্ম্য

মাদারীপুর সংবাদদাতা: মাদারীপুর সদর উপজেলার ঝাউদী ইঊনিয়নে মোয়াজ্জেম মোল্লা, ফারুক মোল্লা  কালাম কাজী এর বিরুদ্ধে এলাকায়  ও ভুমিদস্যু হিসাবে অন্যের জমি জোরপূর্বক দখল করা ও নারী নির্যাতনের  অভিযোগ উঠেছে। ফলে এলাকার সাধারণ মানুষ এদের দৌরাত্ম্যে অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছে। এদের দ্বারা জীবননাশের আশংকায় অনেকে এলাকা ছেড়ে আত্মগোপন করে আছে।
নির্ভরযোগ্য সুত্রে জানা যায়, মোয়াজ্জেম মোল্লা ভমি  অফিসে নাজীর পদে চাকুরী করার সময় দুর্নীতির কারণে চাকুরীচ্যুত হয়। গত ২০ জুন এলাকার মোয়াজ্জেম মোল্লা ফারুক মোল্লা কালাম কাজী সদর উপজেলার শিমুলতলা ব্রামনদী গ্রামের জনৈক সালাম মোল্লার ৩০৩ দাগের ২০ শতাংশ জমি জোরপূর্বক দখলের চেষ্টা করে। ফলে সালাম মোল্লা বাদী হয়ে ফৌজাদারী কার্যবিধি ১৪৪ ধারামতে আদালতে  একটি  মামলা (পি ৬২১/১৮) করে। উক্ত মামলায় নোটিশ পেয়ে মোয়াজ্জেম মোল্লা সালাম মোল্লাকে জীবননানশের হুমকি প্রদান করায় সালাম এলাকা ছেড়ে আত্মগোপনে রয়েছে। মাদ্রায় ২০১৪ সালের ১৩ সেপ্টেম্বর আজিজুল হক চৌকিদারকে সর্বহারা পাটির সদস্যরা গুলী করে খুন করলে পুলিশ তদন্ত করে মোয়াজ্জেম মোল্লার সম্পৃক্ততা পেয়ে আদালতে তার বিরদ্ধে চার্জশীট দাখিল করে।উক্ত মামলায় জেল খেটে জামিনে বের হয়ে ব্রামনদী এলাকায় একটি মেয়েকে জোরপূর্বক অপহরণ করে ধর্ষণ করে। ওই ঘটনায় মামলা (জি আর৫৬১/১৫) হলে মোয়াজ্জেম তার লোকেরা নির্যাতিতা ও তার ভাইকে  হত্যার হুমকি দিয়েছে  মর্মে মাদারীপুর সদর থানায় পৃথক ২টি সাধারণ ডায়েরী করা হয়।
মাদারীপুর সদর থানা ওসি কামরুল হাসান বলেন, মোয়াজ্জেম মোল্লার বিরুদ্ধে যে সব মামলা হয়েছে তা আদালতে বিচার চলছে। তবে তার বিরুদ্ধে করা ২টি  সাধারণ ডায়েরীর বিষয়ে তদন্ত করে সত্যতা পাওয়া গেলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ