ঢাকা, শনিবার 14 July 2018, ৩০ আষাঢ় ১৪২৫, ২৯ শাওয়াল ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

ভোলাহাটে এক ব্যক্তির হাত পায়ের রগ কেটে দিয়েছে প্রতিপক্ষ

ভোলাহাট (চাঁপাইনবাবগঞ্জ) সংবাদদাতা: ভোলাহাটে এক ব্যক্তির হাত পায়ের রগ কেটে দিয়েছে প্রতিপক্ষ। মঙ্গলবার উপজেলার ফতেপুর খাসপাড়া গ্রামের জামিরুলের ছেলে রবিউল আওয়াল(২৬) মামলার হাজিরা দিতে বিআরটিসি যোগে চাঁপাইনবাবগঞ্জ আদালতে যাওয়ার পথে সকাল সাড়ে ৭টার দিকে ধরমপুর গ্রামে বাসের গতি রোধ করে প্রতিপক্ষ। এ সময় বাস থেকে রবিউলকে নামিয়ে তার মামলার বাদিপক্ষ শিবগঞ্জ উপজেলার কর্ণখালি গ্রামের মৃতঃ নুমানের ছেলে শিশ মোহম্মদ(৫৫), শিশ মোহম্মদের ছেলে শামিম(২৬), নুমানের ছেলে ইব্রাহিম(৪২) ও নুহু(৫২), বেলালের ছেলে লিটিল(৩৬), সেলিম(৪০)সহ ১০/১১জন হাসুয়া ও হাতুড়ি দিয়ে বেধড়ক পিটাতে থাকে। এক পর্যায়ে রবিউলের বাম পা ও ডান হাতের রগ কেটে হত্যার চেষ্টা করে এবং হাতুড়ি দিয়ে শরীরের বিভিন্ন অংশে বেধড়ক পিটিয়ে গুরুত্বর আহত করে। এ সময় স্থানীয়রা তার চিৎকারে ছুটে এসে তাকে রক্ষা করার চেষ্টা করলে প্রতিপক্ষরা পালিয়ে যায় বলে প্রত্যক্ষদর্শিরা জানান। স্থানীয়রা জানান, প্রতিপক্ষদের সাথে র্দীঘদিনে শত্রুতার জেরে রবিউলের বিরুদ্ধে চাঁপাইনবাবগঞ্জ আদালতে ৮মাস পূর্বে একটি মামলা করে। মামলার হাজিরা দিতে গিয়ে তারা এ ঘটনা ঘটায়। বর্তমানে রবিউল আওয়াল গুরুত্বর অবস্থায় রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ৩১নং ওয়াড়ের ২৪ নং বেডে মৃত্যুর সাথে পঞ্জা লড়ছেন বলে তার স্বজনেরা জানান। এ ব্যাপারে ভোলাহাট থানার অফিসার ইনর্চাজ ফাছিরউদ্দিনের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন এখন পর্যন্ত কোন অভিযোগ পাননি। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানান তিনি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ