ঢাকা, রোববার 15 July 2018, ৩১ আষাঢ় ১৪২৫, ১ জিলক্বদ ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

রাজশাহী সিটি কর্পোরেশন মেয়র নির্বাচন

রাজশাহী : গতকাল রাসিক মেয়র নির্বাচনে বিএনপি প্রার্থী বুলবুল ও আ’লীগ প্রার্থী লিটন জনসংযোগ করেন -সংগ্রাম

বুলবুলের অভিযোগ
নির্বাচন কমিশনকে পরিস্থিতি
জানিয়ে কোন লাভ হচ্ছে না
রাজশাহী অফিস : রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের মেয়র নির্বাচনে বিএনপি জোটের মেয়র প্রার্থী মহানগর বিএনপি’র সভাপতি মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুল অভিযোগ করেন, আওয়ামী লীগ ও পুলিশের আচরণ সম্পর্কে নির্বাচন কমিশনকে জানিয়ে কোন লাভ হচ্ছে না। তারা সরকারের আজ্ঞাবহ হয়েই কাজ করছে বলে প্রতীয়মান হচ্ছে। তিনি নগরীর বিভিন্ন ওয়ার্ডে গণসংযোগকালে এই অভিযোগ করেন।
এসময় বিএনপি’র উপদেষ্টা, সাবেক মেয়র ও এমপি মিজানুর রহমান মিনু, পুঠিয়া-দূর্গাপুরের সাবেক সংসদ সদস্য ও বিএনপি জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য এ্যাডভোকেট নাদিম মোস্তফা, মহানগর বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক এ্যাড. শফিকুল হক মিলন, ২৮ নং ওয়ার্ড বিএনপি সভাপতি আনসার আলী, সাংগঠনিক সম্পাদক কাজদার আলী, সেন্টার কমিটির আহ্বায়ক আব্দুল মান্নান, সদস্য সচিব জার্জিস আলী, বিএনপি নেতা ওয়ালিউল হক রানা, যুবদল নেতা মাহফুজুর রহমান রিটন, শফিকুল আলম সমাপ্ত, মহানগর ছাত্রদলের সভাপতি আসাদুজ্জামান জনি ও সাধারণ সম্পাদক রফিকুল ইসরাম রবিসহ অত্র ওয়ার্ডের মহিলা দলের নেতৃবৃন্দ, বিএনপি, অঙ্গ ও সহযোগি সংগঠনের অন্যান্য নেতৃবৃন্দ এবং শত শত সমর্থক উপস্থিত ছিলেন। বুলবুলসহ নেতাকর্মীরা ওয়ার্ডের বিভিন্ন পাড়া-মহল্লার বাসা বাড়ি এবং বউ বাজারে যান এবং ধানের শীষের জন্য দোয়া ও ভোট প্রার্থণা করেন। এসময় সমর্থকরা ধানের শীষের পক্ষে স্লোগান দিতে থাকে। গণসংযোগকালে বুলবুল বলেন, বিভিন্ন ওয়ার্ডে বিএনপি মেয়র প্রার্থীর পোস্টার, ব্যানার, ও ফেস্টুন সরকার দলীয় প্রার্থীর সন্ত্রাসীরা ছিড়ে ফেলছে। এছাড়াও পুলিশ কোন মামলা ছাড়াই নেতাকর্মীদের গ্রেফতার করে জটিল মামলা দিয়ে জেল হাজতে প্রেরণ করছে। রাতের অন্ধকারে নেতাকর্মীদের বাসা বাড়িতে রেইড করছে। এছাড়াও তারা আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের সাথে একাত্মতা ঘোষণা করে সাধারণ ভোটারদের ভোট কেন্দ্রে যেতে নিষেধ করছে। প্রচার প্রচারণা করতে প্রতিনিয়ত বাধা প্রদান করেছে। এই অবস্থা নির্বাচন কমিশনকে জানিয়ে কোন লাভ হচ্ছে না। নির্বাচন কমিশনও সরকারের আজ্ঞাবহ হয়ে কাজ করছে বলে তিনি পুণরায় অভিযোগ করেন। সুষ্ঠু নির্বাচনের স্বার্থে তিনি অতি উৎসাহী পুলিশ সদস্য কর্মকর্তাদের দ্রুত অপসারনের দাবী জানান। মিজানুর রহমান মিনু বলেন, নিজের ভোট নিজে প্রদান করতে পারে তার জন্য বিএনপি শেষ পর্যন্ত কেন্দ্রের পাশে এবং পাড়া ও মহল্লায় পাহারা দেবে বলে তিনি জনগণকে আশস্ত করেন।

লিটনের জনসংযোগ
ভোটারদের দিচ্ছেন
নানান প্রতিশ্রুতি
রাজশাহী অফিস : রাজশাহী মহানগরীর রেলওয়ে কলোনীর বস্তিবাসীর জন্যে স্থায়ী বসতি ও বাড়ি গড়ে তুলে দেয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন। শুক্রবার বিকেলে বস্তি পরিদর্শন ও গণসংযোগের সময় তিনি এ প্রতিশ্রুতি দেন তিনি।
বস্তিবাসীকে খায়রুজ্জামান লিটন বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ছিন্নমূল ও ভূমিহীন মানুষদের জন্যে বাড়ি নির্মাণ করে দিচ্ছেন। আমাকে কাজ করার সুযোগ দিন। আমি মেয়র নির্বাচিত হতে পারলে আপনাদের জন্যে স্থায়ী আবাসনের ব্যবস্থা করবো। আপনাদের জন্যে সুন্দর পরিবেশে থাকার ব্যবস্থা করা হবে। লিটন আরো বলেন, আপনাদের এখান থেকে কেউ উচ্ছেদ করতে পারবে না। কেউ উচ্ছেদ করতে আসলে অথবা উচ্ছেদ করা হবে বলে অপপ্রচার চালালে তাদের প্রতিহত করবেন। আমি আপনাদের লোক, সব সময় আপনাদের পাশে আছি। পরে সেখানে তিনি স্থানীয় মসজিদে মাগরিবের নামায আদায় করেন। এর আগে তিনি শিরোইল কলোনী উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে স্থানীয় ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ আয়োজিত এক মতবিনিময় সভায় বক্তব্য দিতে গিয়ে বিভিন্ন প্রতিশ্রুতির কথা ব্যক্ত করেন। সন্ধ্যায় নগরীর গুড়িপাড়া এলাকায় ১নং ওয়ার্ড সামাজিক শৃঙ্খলা রক্ষা কমিটির উদ্যোগে আয়োজিত ‘সুধী সমাবেশে’ প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন তিনি। ওয়ার্ড সামাজিক শৃঙ্খলা রক্ষা কমিটির আহ্বায়ক রবিউল আলম বাবুর সভাপতিত্বে উপস্থিত ছিলেন মহানগর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আজিজুল আলম বেন্টু প্রমুখ।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ