ঢাকা, রোববার 15 July 2018, ৩১ আষাঢ় ১৪২৫, ১ জিলক্বদ ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

সাংবাদিক কাঙ্গাল হরিনাথ স্মৃতি জাদুঘর ঐতিহ্যের ধারক

কুমারখালী (কুষ্টিয়া) : সাংবাদিক কাঙ্গাল হরিনাথ স্মৃতি জাদুঘর -সংগ্রাম

গ্রামীণ সাংবাদিকতার পথিকৃৎ কাঙাল হরিনাথ মজুমদার। বাংলা সংবাদপত্রের ইতিহাস লিখতে গেলে কাঙাল হরিনাথ মজুমদারের নাম সবার আগে চলে আসে। তার স্বপ্নের সব নাড়ি কুমারখালীর কুন্ডুপাড়ার মাটিতে পোঁতা। এতদিন রক্ষণাবেক্ষণের অভাবে চরম অনাদর আর অবহেলায় পড়ে ছিল সাংবাদিক কাঙ্গাল হরিনাথ মজুমদারের স্মৃতিগুলো। অবশেষে স্মৃতিগুলো সরকারি উদ্যোগে রক্ষনাবেক্ষণের জন্য মিউজিয়াম, অডিটোরিয়াম, লাইব্রেরী নির্মাণ প্রকল্প বাস্তবায়ন হয়েছে।  সাংবাদিক কাঙ্গাল হরিনাথ স্মৃতি জাদুঘর প্রতিষ্ঠা লাভ করেছে। ঐতিহাসিক ছাপার যন্ত্র এম এন প্রেস-এর মডেল, কিছু যন্ত্রাংশ, বাংলা টাইপ অক্ষর, ছবি ও কিছু পান্ডুলিপিসহ বেশকিছু কালের সাক্ষী  স্মৃতি জাদুঘরে স্থান পেয়েছে।
কুমারখালীর ইতিহাস ঐতিহ্যের ধারক ও বাহক সাংবাদিক কাঙ্গাল হরিনাথ স্মৃতি জাদুঘরের মিউজিয়াম ম্যানেজার সৈয়দ এহসানুল হক জানান, বর্তমানে গড়ে অর্ধশত দর্শনার্থী পরিদর্শন করছেন। দেশের বাইরের বিশেষ করে কলকাতার অনেক পর্যটক দেখে গেছেন। তারা জাদুঘর দেখে বেশ আপ্লুতও হয়েছেন। তিনি আরো জানান, ফান্ড পেলে প্রচার প্রচারণার জন্য বিলবোর্ড, ব্যানার, পোষ্টার ও স্থানীয় চ্যানেলে কাঙ্গাল হরিনাথ স্মৃতি জাদুঘরের প্রচারের জন্য বিজ্ঞাপন দেওয়া হবে।
দর্শনীয় নির্মানশৈলীর দুইতলা ভবনে কাঙ্গাল হরিনাথ স্মৃতি জাদুঘরের গ্যালারীতে ১৬৬টি নিদর্শন রয়েছে। যার মধ্যে কিছু নিদর্শন ফ্রেমে আটকানো এখনো হয়নি। মনোরম নিরিবিলি পরিবেশে অবস্থিত লাইব্রেরীতে বইয়ের সংখ্যা প্রায় পাঁচ শত। রয়েছে একটি আধুনিক মিলনায়তন, যার আসনের সংখ্যা শতাধিক।  সাংবাদিক কাঙ্গাল হরিনাথ স্মৃতি জাদুঘরের দুইতলা দৃষ্টি নন্দন ভবনে ছোট বড় ১৫টি কক্ষ রয়েছে। সামনে রয়েছে সান বাঁধানো মুক্তমঞ্চ, সেখানে  সাংবাদিক কাঙ্গাল হরিনাথ মজুমদারের ভাস্কর্য শোভা বৃদ্ধি করেছে। সমগ্র জাদুঘরটি সিসি ক্যামেরার মাধ্যমে মনিটরিং করা হয়। তাছাড়া মাল্টিমিডিয়া প্রজেক্টরের সাহায্যে সাংবাদিক কাঙ্গাল হরিনাথ মজুদদারকে নিয়ে ভিডিও প্রদর্শনেরও ব্যবস্থা রয়েছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ