ঢাকা, মঙ্গলবার 17 July 2018, ২ শ্রাবণ ১৪২৫, ৩ জিলক্বদ ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

আগৈলঝাড়ায় মাদকসহ ব্যবসায়িকে ছেড়ে দেয়ায় এলাকায় ক্ষোভ

আগৈলঝাড়া (বরিশাল) সংবাদদাতা: আগৈলঝাড়ায় স্থানীয় জনগন মাদকসহ চিহ্নিত এক ব্যবসায়িকে আটক করে স্থানীয় মেম্বরের জিম্মায় দিলেও ওই মেম্বর মাদক ব্যবসায়িকে পুলিশকে না দিয়ে অজ্ঞাত কারণে ছেড়ে দেয়ায় এলাকায় ক্ষোভ দেখা দিয়েছে। প্রত্যক্ষদর্শী ও স্থানীয় একাধিক সূত্র জানায়, উপজেলার ২নং বাকাল ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ডের বড়মগড়া এলাকায় গত ৫জুলাই রাত এগারোটার দিকে ওই এলাকার সন্তোষ পান্ডের ছেলে এলাকার চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ি শেখর পান্ডেকে স্থানীয়রা ২৫০গ্রাম গাঁজাসহ আটক করে স্থানীয় ইউপি সদস্য অজিত কুমার শিকারীর কাছে তুলে দেয়। স্থানীয়দের অভিযোগ, দু’বার নির্বাচিত প্রভাবশালী মেম্বর অজিত কুমার শিকারী মাদক ব্যবসায়ি শেখর পান্ডেকে থানা পুলিশে না দিয়ে অজ্ঞাত কারণে ছেড়ে দেয়। মাদকসহ ব্যবসায়িকে ছেড়ে দেয়ার ঘটনা জানাজানি হলে ওই এলাকার জনমনে চরম অসন্তোষ ও ক্ষোভ দেখা দিয়েছে। সূত্র মতে, শেখর মাদকসহ পুলিশের হাতেও গ্রেফতার হয়েছিল। এরপর পরিবার ও পুলিশের উদ্যোগে ছয় মাস শেখরকে মাদকাসক্ত নিরায়ম কেন্দ্রেও রাখা হয়েছিল। সেখান থেকে বেড়িয়ে সম্প্রতি শেখর আবারও মাদক ব্যবসার সাথে জড়িয়ে পরে। এ ব্যাপারে ইউপি সদস্য অজিত কুমার শিকারী মাদকসহ ব্যবসায়িকে ছেড়ে দেয়ার অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, তিনি শুনেছেন যে, স্থানীয় ড্রেজার মেশিন চালানো শ্রমিকেরা শেখরকে সার্স করে কোন মাদক না পাওয়ায় তাকে ছেড়ে দেয়। তিনি আরও বলেন, ঘটনার সময় তার ফোন বন্ধ থাকায় তার সাথে তারা যোগাযোগ করতে না পেরে শেখরকে নিয়ে ওই শ্রমিকেরা তার কাছে আসতে পারেনি। ফলে তাকে ধরার পর ছেড়ে দেয়ার কোন প্রশ্নই আসে না।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ