ঢাকা, বুধবার 18 July 2018, ৩ শ্রাবণ ১৪২৫, ৪ জিলক্বদ ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

চট্টগ্রামে দুদকের মামলায় অগ্রণী ব্যাংকের চার কর্মকতা কারাগারে

চট্টগ্রাম ব্যুরো : চট্টগ্রামে অর্থ আত্মসাতের অভিযোগে দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) দায়ের করা মামলায় অগ্রণী ব্যাংকের চার কর্মকর্তাকে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত। মঙ্গলবার চট্টগ্রাম মহানগর স্পেশাল জজ ও মহানগর দায়রা জজ আকবর হোসেন মৃধার আদালত তাদের কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন। অগ্রণী ব্যাংকের চার কর্মকতা হলেন, আগ্রাবাদ কর্পোরেট শাখার উপ-মহাব্যবস্থাপক মো. নুরুল আমিন, অবসরপ্রাপ্ত সিনিয়র প্রিন্সিপাল অফিসার উদয়ন কুমার বিশ্বাস, আগ্রাবাদ শাখার প্রিন্সিপাল অফিসার মো. শাহাজাদুল আলম ও প্রিন্সিপাল অফিসার ইয়াসিন ফারুকী।
দুদকের আইনজীবী আডভোকেট কাজী সানোয়ার  হোসেন লাভলু বলেন, অগ্রণী ব্যাংকের চার কর্মকতা অর্থ আত্মসাতের মামলায় আদালতে হাজির হয়ে জামিন আবেদন করলে আদালত জামিন আবেদন নাকচ করে তাদের কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন। তিনি জানান, অগ্রণী ব্যাংকের আগ্রাবাদ শাখা থেকে ১৫৫ কোটি ৪৪ লাখ টাকা আত্মসাতের অভিযোগে চলতি বছরের ১৬ মে ডবলমুরিং থানায় অগ্রণী ব্যাংকের পাঁচ কর্মকতা ও ইলিয়াস ব্রাদার্সের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. সামসুল আলম সহ ১১ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন দুদকের প্রধান কার্যালয়ের উপ-পরিচালক  মো. সামসুল আলম।
মামলার আসামীরা হলেন, ইলিয়াস ব্রাদার্সের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. সামসুল আলম, চেয়ারম্যান মো. নুরুল আলম, পরিচালক মো. নুরুল আবসার, পরিচালক জয়নাব বেগম, পরিচালক কামরুন্নাহার বেগম, পরিচালক তাহামিনা বেগম, অগ্রণী ব্যাংকের পাঁচ কর্মকতা হলেন, আগ্রাবাদ কর্পোরেট শাখার উপ-মহাব্যবস্থাপক মো. নুরুল আমিন, অবসরপ্রাপ্ত সিনিয়র প্রিন্সিপাল অফিসার উদয়ন কুমার বিশ্বাস, আগ্রাবাদ শাখার প্রিন্সিপাল অফিসার মো. শাহাজাদুল আলম, প্রিন্সিপাল অফিসার ইয়াসিন ফারুকী ও অবসরপ্রাপ্ত সহকারী মহাব্যবস্থাপক মো. জোনায়েদ বোগদাদী। মামলা দায়েরের পর আসামীরা হাইকোর্ট থেকে ৬ সপ্তাহের অন্তবর্তীকালীন জামিন নেন বলে জানান কাজী সানোয়ার হোসেন লাভলু।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ