ঢাকা, বৃহস্পতিবার 19 July 2018, ৪ শ্রাবণ ১৪২৫, ৫ জিলক্বদ ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

দল জিতলে শাহবাজই হবেন পরবর্তী পাকিস্তানী প্রধানমন্ত্রী -খাকান আব্বাসি

শাহবাজ ও খাকান

১৮ জুলাই, ডন : পাকিস্তান মুসলিম লিগ-নওয়াজ (পিএমএলএন) এর মধ্যে বিভাজন তৈরি হওয়ার খবর নাকচ করে দিয়েছেন দলটির নেতা ও সাবেক পাকিস্তানী প্রধানমন্ত্রী শহিদ খাকান আব্বাসি। তিনি বলেন, দলটি নির্বাচনে জয়লাভ করলে শাহবাজ শরিফই প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্বগ্রহণ করবেন। তবে দলীয় সদস্যদের সংখ্যাগরিষ্ঠের মতামতের ভিত্তিতেই চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। গত মঙ্গলবার পাকিস্তানি সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে তিনি এসব কথা বলেন। গত বছর জুলাই মাসে পাকিস্তানের সুপ্রিম কোর্ট পিএমএল-এন’র প্রতিষ্ঠাতা নওয়াজ শরিফকে প্রধানমন্ত্রিত্বের অযোগ্য ঘোষণার পর ক্ষমতাচ্যুত হন তিনি। দলীয় প্রধান হিসেবেও নওয়াজকে অযোগ্য ঘোষণা করা হয়। বর্তমানে তিনি দুর্নীতি মামলায় কারাগারে রয়েছেন। দলীয় প্রধান হিসেবে নওয়াজের স্থলাভিষিক্ত হয়েছেন তার ভাই শাহবাজ শরিফ। তবে এরইমধ্যে দলটির শীর্ষ পর্যায়ের নেতাদের মধ্যে কোন্দল তৈরি হওয়ার গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে। মঙ্গলবার ডনের পক্ষ থেকে এ ব্যাপারে জানতে চাওয়া হলে আব্বাসি বলেন, দল জয়ী হলে শাহবাজ শরিফই পরবর্তী প্রধানমন্ত্রী হবেন। দলের নেতারা সংবিধান মোতাবেক কাজ করতে প্রস্তুত বলেও জানান তিনি। সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ও পিএমএল-এন নেতা চৌধুরী নিসারকে মনোনয়ন না দেওয়ার ব্যাপারে জানতে চাওয়া হলে আব্বাসি দাবি করেন, তিনি (নিসার) দলীয় টিকিটের জন্য আবেদন করেননি। নওয়াজ শরিফ, শাহবাজ শরিফ, মরিয়ম নওয়াজসহ প্রত্যেকে দলীয় টিকিট পাওয়ার জন্য আবেদন করেছিল বলে জানান তিনি। আব্বাসি আরও বলেন, ‘সকল কোন্দলের কথা দলের ভেতরেই আলোচনা করা উচিত, মিডিয়া কিংবা জনগণের সামনে নয়, যেমনটা নিসার করেছেন।’ নির্বাচনের পর জোট সরকার গঠন নিয়ে ডনের পক্ষ থেকে প্রশ্ন করা হলে আব্বাসি বলেন, ‘২০০৮ সালে পিপিপির সঙ্গে করা জোট এক মাসও টেকেনি। একটি সফল ও সক্রিয় জোট সরকারের বিষয়টি নেতাদের মন মেজাজের ওপর নির্ভর করে। এমন কোনও সম্ভাবনা তৈরি হলে তা নিয়ে নির্বাচনের পরে আলোচনা করা হবে।’ উল্লেখ্য, ১৯৪৭ সালে ব্রিটিশ উপনিবেশ থেকে স্বাধীনতা পাওয়া পাকিস্তান বেশিরভাগ সময় সামরিক শাসকদের অধীনে ছিল। ২০১৩ সালে প্রথমবারের মতো পাকিস্তান পিপলস পার্টির নেতৃত্বাধীন নির্বাচিত সরকার তার মেয়াদ পূর্ণ করে পিএমএল-এন সরকারের কাছে ক্ষমতা হস্তান্তর করে। এবার সেই পিএমএল-এন এর শীর্ষ নেতা নওয়াজ প্রধানমন্ত্রী হিসেবে অযোগ্য ঘোষিত হলেও তার দল পূর্ণ মেয়াদ ক্ষমতায় থাকতে সক্ষম হয়। ২৫ জুলাই অনুষ্ঠিত হবে পাকিস্তানের পরবর্তী সাধারণ নির্বাচন। এবারের নির্বাচনে জয়ী হওয়া দল যদি ক্ষমতা গ্রহণ করে তাহলে তা হবে পাকিস্তানের ইতিহাসে গণতান্ত্রিকভাবে ক্ষমতা হস্তান্তরের দ্বিতীয় ঘটনা।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ