ঢাকা, বৃহস্পতিবার 19 July 2018, ৪ শ্রাবণ ১৪২৫, ৫ জিলক্বদ ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

জুন মাসে রাজনৈতিক সন্ত্রাস

মুহাম্মদ ওয়াছিয়ার রহমান : [দুই]
ছাত্রলীগ দু’গ্রুপের মধ্যে ৬০ টাকা বাজি আদায় না হওয়ায় এই সংঘর্ষ হয়। সংঘর্ষে অংশ নেয় উপজেলা ছাত্রলীগ যুগ্ম-সম্পাদক আমিনুল ইসলাম শাকিল, উপ-সংস্কৃতিক সম্পাদক জাহিদ হাসান রিয়াজ, ইউসুফ ও রাসেলসহ ১৫-২০ জন। ২৭ জুন ঢাকার সরকারী কবি নজরুল কলেজে একাদশ শ্রেনীতে ছাত্র ভর্তি কালে ছাত্র প্রতি ২ হাজার টাকা চাঁদা আদায়ের অভিযোগ পাওয়া গেছে। চট্টগ্রামের মিসরাইয়ে ভারূকিয়া গ্রাম থেকে ছাত্রলীগ বারইয়ারহাট কলেজ সভাপতি ফরহাদ হোসেন রাজুর বাড়ী থেকে ১৭ বোতল ফিনসিডিল, ৯ বোতল বিয়ার ও ১ বোতল উইস্কি আটক করে পুলিশ। পরে তার বিক্রিত ২০০ পিস ইয়াবাও আটক করে। ২৮ জুন নোয়াখালীর বেগমগঞ্জে গোপালপুর উচ্চবিদ্যালয়ে স্কুল ছাত্রীকে ইভটিজিং করতে বাধা দেয়ায় ছাত্রলীগের হাতে স্কুল শিক্ষক মামুন লাঞ্ছিত হয়। ৩০ জুন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে কোটা বিরোধী আন্দোলনকারীদের উপর ছাত্রলীগের হামলায় বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার-সংরক্ষণ পরিষদ-এর যুগ্ম-আহবায়ক নূরুল হক নূরু, ফারুক হাসান, আতাউল্লাহ, আরিফ, মামুন, জসিম, আরশ, আব্দুল্লাহ, সাদ্দাম হোসেন, মাসুদ ও হায়দারসহ ১৫ জন আহত হয়। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক অধ্যাপক এস.এম জাভেদ আহমেদ ঠেকাতে গেলে তাকেও লাঞ্ছিত করে ছাত্রলীগ। হামলাকারীদের মধ্যে ছিলেন- ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি মেহেদী হাসান রনি, রুহুল আমিন, আদিত্য নন্দী, সাকিব হাসান সুইম (ঢাকা কলেজ), যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক নওশাদ সুজন, সাংগঠনিক সম্পাদক এন.এইচ শওকতুর রহমান, দারুস সালাম শাকিল, কৃষিশিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক বরকত হোসেন হাওলাদার, ত্রাণ ও দুর্যোগ বিষয়ক সম্পাদক ইয়াজ আল-রিয়াদ, স্কুল বিষয়ক সম্পাদক জয়নাল আবেদীন, প্রচার সম্পাদক সাইফ বাবু, উপ-সম্পাদক মুরাদ হায়দার টিপু, মহীসন হল শাখা সাধারণ সম্পাদক মেহেদী হাসান সানী ও সূর্যসেন হল সভাপতি গোলাম সরোয়ারসহ অনেকে। হবিগঞ্জের সরকারী বৃন্দাবন কলেজে ছাত্রলীগ দু’গ্রুপের সংঘর্ষে কলেজ ছাত্রলীগ নেতা আফরোজ হোসেন, সাহান মিয়া, হাফিজ উদ্দিন, শাহনুর আহমেদ, সুমেল মিয়া, মনির হোসেন, নিলয় মিয়া, সরোয়ার হোসেন, মোমিন মিয়া, আফজাল মিয়া, শিপন মিয়া, রাসেল মিয়া, আরিফুর রহমান, করিম আহমেদ ও আব্দুল্লাহসহ আহত ২০ জন। চট্টগ্রাম শহীদ এনএমএমজে কলেজে ছাত্রলীগ দু’গ্রুপের সংঘর্ষে কলেজ ছাত্রলীগ যুগ্ম-আহবায়ক রকি ভট্টাচার্য ও ছাত্র তাজবীর আহত হয়। ছাত্রলীগ রকি গ্রুপ ও আজমী গ্রুপের মধ্যে এই সংঘর্ষ হয়।
যুব লীগ : ৫ জুন খুলনা সিটি করপোরেশনের জাকাতের শাড়ি ক্রয়ে টেন্ডারে পাহারা বসিয়ে ৭৬ লাখ টাকার দরপত্র ভাগ বাটোয়ারা করে নেয় যুবলীগ নেতারা। গত ১৫ মে কেসিসি নির্বাচনে মেয়র ও আওয়ামী লীগ মহানগরী সভাপতি তালুকদার আব্দুল খালেক টেন্ডারবাজী বন্ধের ঘোষণা দেয়ার ২০ দিনের মাথায় এই ঘটনা ঘটে। ১৪ জুন বগুড়া পৌর সভার ৯নং ওয়ার্ড পৌর কাউন্সিলর ও যুবলীগ নেতা মোস্তাকিম রহমান পাসপোর্ট কর্মকর্তাকে কুপিয়ে জখম করায় বরখস্ত করে স্থানীয় সরকারর মন্ত্রনালয়। ২০ জুন চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদায় দলীয় কোন্দলে যুবলীগের কেন্দ্রীয় যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক হাশেম রেজা নির্বাচনী প্রচারণা চালাতে গেলে তার মটর সাইকেলটি ভাংচুর করে। এ সময় শাকিল, আব্দুল আলিম, সজীব ও সাজিবুল আহত হয়। ফেনীর সোনাগাজীতে চরডুব্বা গ্রামে নিজ দলীয় কর্মী নূর উদ্দিনের হাত-পা কেটে দেয় যুবলীগ ক্যাডাররা। চাঁদাবাজী ও আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে আমিরাবাদ ইউনিয়ন যুবলীগ সভাপতি ও ইউপি মেম্বার শাহীন এ ঘটনা ঘটায়।
বিএনপি : ১ জুন বরিশালের গৌরনদীতে সরিকুল ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি জাহাঙ্গীর হোসেন মৃধা আওয়ামী লীগে যোগদান করতে রাজি না হওয়ায় আটক করে পুলিশ। ২ জুন সিরাজগঞ্জ জেলার শাহজাদপুর থেকে পৌর বিএনপির সভাপতি ও শিল্পপতি কে.এম তারিকুল ইসলাম আরিফকে নিজ বাসভবন থেকে আটক করে পুলিশ। ৬ জুন চট্টগ্রামের বাঁশখালী গন্ডামারী ইউপি চেয়ারম্যান ও দক্ষিণ জেলা বিএনপি সাবেক যুগ্ম-আহবায়ক লিয়াকাত আলী প্রধানমন্ত্রীর নামে কটুকক্তি করায় অভিযোগে তার নামে মামলা দায়ের করা হয়। ১২ জুন ঢাকার মহানগরীর কদমতলী থানা বিএনপির নবগঠিত কমিটির সাধারণ সম্পাদক পদ থেকে তানভীর আহমেদ রবিন পদত্যাগ। রবিন সাবেক ঢাকা মহানগরী দক্ষিণ সাগঠনিক সম্পাদক দায়িত্ব পালন করছিলেন। ১৪ জুন যশোর জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক এ্যাডঃ সাবেরুল হক সাবু ও নগর সভাপতি মারুফুল ইসলামকে আটক করে সাদা পোষাকের পুলিশ। কিন্তু পুলিশ তা স্বীকার করেনি। ১৯ জুন চট্টগ্রামর বাশখালী একটি কমিউনিটি সেন্টার থেকে শাহেদ, আতিকুল ও নূরুল আবছারসহ বিএনপির ৫ জনকে আটক করে পুলিশ।
ছাত্র দল : ২৮ জুন রাজবাড়ী সদর থেকে ছাত্রদল কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি মনিরুজ্জামান গাজী মানিককে উদয়পুর নিজ বাড়ী থেকে আটক করে পুলিশ। ২৯ জুন কুষ্টিয়া বক চত্ত্বর ব্যারিষ্টার রাগীব রউফের বাসা থেকে ছাত্র দলের ৩৪ নেতা-কর্মীকে আটক করে পুলিশ। আটককৃতরা হলো- কুষ্টিয়া জেলা ছাত্রদল সভাপতি মাহফুজুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক এস.আর শিপন, যুগ্ম-সম্পাদক রাকিবুল ইসলাম, রফিকুল ইসলাম ও সাংগঠনিক সম্পাদক রোকুনুজ্জামান রাসেলসহ ৩৪ জন। পুলিশ দাবী করে তাদের কাছ থেকে ২৩টি ককটেল উদ্ধার করা হয়।
যুব দল : ১৩ জুন ঢাকা মহানগর পুলিশ জাতীয়তাবাদী যুবদল কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক সুলতান সালাহ উদ্দিন টুকুকে আটক করে।
জামায়াত : ৪ জুন দিনাজপুর জেলার নবাবগঞ্জ জেলা জামায়াতের সাবেক  সেক্রেটারি আবুল কাশেমকে গোলাপগঞ্জ ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ড যুবলীগ নেতাদের ইন্দনে ইফতার মাহফিল থেকে আটক করে পুলিশ। ৬ জুন সাতক্ষীরার কলারোয়া থেকে মাঝপাড়া গ্রামের জামায়াত কর্মী রফিকুল ইসলামকে আটক করে পুলিশ। ১২ জুন নড়াইল সদর উপজেলা জামায়াতের সাবেক সভাপতি মুশফিকুর রহমানকে আটক করে পুলিশ। ১৪ জুন রাজশাহী মহানগর জামায়াতের নায়েবে আমীর এ্যাডঃ আবু মোহাম্মদ সেলিম ও  সেক্রেটারি অধ্যক্ষ সিদ্দিক হোসেনকে চন্দ্রিমা থানা পুলিশ আটক করে। ২০ জুন চট্টগ্রামের সাতকানিয়ার কেঁওচিয়া গ্রাম থেকে জামায়াত কর্মী জামাল উদ্দিনকে পুলিশ আটক করে। ২১ জুন ফেনীর ছাগলনাইয়ায় উপজেলা জামায়াত আমীর মুজিবুর রহমানকে পুলিশ একটি স্কুল থেকে আটক করে। ২৩ জুন চট্টগ্রাম নগরীর ষ্টেশন রোডে পর্যটন করপোরেশনের সৈকত মোটেল থেকে জামায়াত-শিবিরের ২১০ নেতা-কর্মীকে আটক করে পুলিশ। ২৯ জুন সাতক্ষীরার আশাশুনিতে পুলিশ জামায়াতে ইসলামীর উপজেলা জেলা  সেক্রেটারি আবু মুছা তারিকুজ্জামান তুষার, জেলা সহকারী  সেক্রেটারি অধ্যাপক শহীদুল ইসলাম, কালিগঞ্জ উপজেলা  সেক্রেটারি অধ্যক্ষ মোসলেম উদ্দিন ও কর্মী খলিল ঢালীসহ ৫ জনকে আটক করে।
ছাত্র শিবির : ২১ জুন রাজশাহী মহানগর শিবির সাবেক সভাপতি মঞ্জুর রহমান মুনিরকে শাহ মাখদুম এলাকা থেকে পুলিশ আটক করে।
জাতীয় পার্টি : ২৩ জুন নীলফামারীর কিশোরগঞ্জে চাঁদখানা ইউপি চেয়ারম্যান ও জাতীয় পার্টি নেতা হাফিজার রহমান জিআর-এর চাল সঠিক ভাবে বিতরণ না করে মাঝপাড়া গ্রামের মোতাহার হোসেন ও ছাদেক আলীর বাড়ীতে রেখে শতাধিক বস্তা চাল কালবাজারে বিক্রি করে।
ইসলামী শাসনতন্ত্র আন্দোলন : মুন্সীগঞ্জের শ্রীনগরে তন্তরা ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান ও ইসলামী শাসনতন্ত্র আন্দোলন নেতা জাকির হোসেনের বিরুদ্ধে আদালতের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে জমি দখলের অভিযোগ করে জনৈক ওসমান শেখ।
জেএমবি : ১২ জুন ঢাকার দারুস সালাম থেকে জেএমবির ‘বিবিএম’ টিমের ৪ সদস্য সিরাজুল ইসলাম সবুজ, জাহাঙ্গীর আলম আমজাদ, আব্দুল্লাহ্্ আল-মারুফ ও আনোয়ার হোসেনকে বাগবাড়ী এলাকা থেকে আটক করে ডিএমপির কাউন্টার টেরোরিজম (সিটি) ইউনিট। ২৫ জুন গাজীপুর চৌরাস্তা থেকে জেএমবির সদস্য আল-আমিন ইব্রাহিমকে আটক করে র‌্যাব-২। ২৭ জুন শেরপুরের নকলার জেএমবি সদস্য আবুল কাশেম ওরফে আবু মুসাকে ২১ বছরের কারাদন্ড দেয়া হয়।
হিজবুত তাহরীর : ৩০ জুন ঢাকার ঝিগাতলা থেকে হিজবুত তাহরীরের সদস্য আব্দুর রকীব খানকে আটক করে র‌্যাব-২। [সমাপ্ত]

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ