ঢাকা, বৃহস্পতিবার 19 July 2018, ৪ শ্রাবণ ১৪২৫, ৫ জিলক্বদ ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

স্ট্র ব্যবহারে স্বাস্থ্যের ক্ষতি

কোমল পানীয় থেকে শুরু করে নানা রকম জ্যুস খেতে অনেকেই প্লাস্টিকের স্ট্র ব্যবহার করেন। কিন্তু স্বাস্থ্য সচেতন মানুষকে এবার স্ট্র-এর ব্যবহার ছাড়তে হবে। কারণ এটি স্বাস্থ্যের জন্য যেমন ক্ষতিকর, তেমনি পরিবেশের জন্যও ক্ষতিকর। প্লাস্টিকের এই ধরনের স্ট্র নানারকম ক্ষতিকর রাসায়নিক উপাদানে ভর্তি যা শরীরে নানা রকম রোগব্যাধি সৃষ্টি করে। জেনে নিন স্ট্র’র ক্ষতিকর কিছু দিক সম্পর্কে:
স্ট্র মানে প্লাস্টিকের উপাদান খাওয়া: স্বাস্থ্যবিজ্ঞানীরা জানান, স্ট্র দিয়ে কোনো কিছু পান করা সহজ বলে অনেকেরই এটা পছন্দ। গ্লাসে ঠান্ডা বা গরম কোনো পানীয় নিয়ে স্ট্র ব্যবহার করে খাওয়ার অভ্যেস করেন অনেকেই। কিন্তু এইসব স্ট্র পলিইথিলিন যৌগ ব্যবহার করে তৈরি করা হয়। এতে যে ক্ষতিকর সব রাসায়নিক থাকে, তা শরীরে ঢুকে নানা রোগ সৃষ্টি করতে পারে। তবে বাঁশ বা কাগজের তৈরি স্ট্র ব্যবহার করলে ক্ষতি নেই।
মুখে বলিরেখা তৈরি করে: স্ট্র-এর মাধ্যমে কোনো কিছু খেলে মুখের ভেতরের অংশের নড়াচড়ায় কোলাজেন দ্রুত ও সহজে ভাঙে। কোলাজেন হচ্ছে ফাইবার প্রোটিন, যা মানুষের শরীরের এক-তৃতীয়াংশ প্রোটিন তৈরি করে। এতে মুখে অবাঞ্ছিত দাগ ও বলিরেখা তৈরি করে।
স্থূলতা সৃষ্টি করে: বেশিরভাগ স্ট্র-এর ভেতর পেট্রোলিয়াম ভিত্তিক প্লাস্টিক পলিব্রপিলিন ও বিসফেনল থাকে, যা উষ্ণ কোনো তরলের সঙ্গে সহজে মিশে যায়। এ থেকে মুটিয়ে যাওয়া এমনকি ক্যান্সারের মতো সমস্যাও দেখা দিতে পারে।
গ্যাসের সমস্যা তৈরি করে: স্ট্র দিয়ে কিছু খেলে বেশি পরিমাণে বাতাস গিলে ফেলার ঘটনা ঘটে। এতে পেটে গ্যাস জমে খাবার হজমের সমস্যা তৈরি হয়। বিশেষজ্ঞরা তাই স্ট্র’র পরিবর্তে সরাসরি গ্লাস থেকে পান করার পরামর্শ দিয়েছেন।
দাঁত ক্ষয় করে: দীর্ঘদিন ধরে স্ট্র ব্যবহার করলে দাঁতের ক্ষয় বেশি হয়। কারণ, স্ট্র দিয়ে পান করলে চিনি মুখের যেকোনো একটি জায়গায় গিয়ে পড়তে থাকে। দীর্ঘদিন এভাবে চললে দাঁতের ক্যাভিটি বা ক্ষয় দেখা দেয়।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ