ঢাকা, শুক্রবার 20 July 2018, ৫ শ্রাবণ ১৪২৫, ৬ জিলক্বদ ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

কখনও পদত্যাগের কথা ভাবেননি দেশম

স্পোর্টস ডেস্ক : ইউরোর ফাইনালে হারে রক্ষণাত্মক কৌশলের কারণে সমালোচিত হয়েছিলেন দিদিয়ের দেশম। তারপর বিশ্বকাপের চূড়ান্ত দল ঘোষণায় আরেকবার সমালোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে ছিলেন তিনি। এমনকি রাশিয়ায় যাওয়ার আগে তার প্রধান কোচ থাকা নিয়ে দেখা যায় তীব্র সংশয়।

 পদত্যাগের দাবিকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে সেই তিনিই ফ্রান্সকে এনে দিলেন বিশ্বকাপ শিরোপা। বিশ্বকাপের আগে সমালোচনায় জর্জরিত হয়েছিলেন দেশম। ১৯৯৮ সালের বিশ্ব জয়ী অধিনায়ক তাতে বিচলিত হননি। নিজের সিদ্ধান্তে ছিলেন অটল। শেষ পর্যন্ত লে ব্লুদের দ্বিতীয় বিশ্বকাপ জিতিয়ে তিনি প্রমাণ করলেন, সঠিক ছিলেন তিনি। দেশম সবাইকে দেখিয়ে দিলেন করিম বেনজিমা, আলেজান্দ্রে লাকাজেত্তে ও আন্দ্রে রাবিওটদের মতো তারকাদের বাদ রেখে কাইলিয়ান এমবাপে ও আন্তোয়ান গ্রিয়েজমানদের নিয়ে ভুল করেননি। তবে এই অবিচল থাকার পেছনে দেশমকে সাহস জুগিয়েছেন ফরাসি ফুটবল ফেডারেশন প্রেসিডেন্ট নোয়েল লে গ্রায়েত। তার কাছে কৃতজ্ঞ তিনি। 

খেলোয়াড় ও কোচ হিসেবে বিশ্বকাপ জেতা দেশম প্রকাশ করলেন সমালোচনার মধ্যেও তার দৃঢ়তার কারণ, ‘আমি দুটি কারণে পদত্যাগের কথা মাথায় আনিনি কখনও। প্রথমত, আমি এমন একজন যে কথা দিয়ে রাখে এবং নিশ্চিত করে তার নির্ধারণ করা লক্ষ্য ছোঁয়ার।’ বিশ্বকাপের আগে দেশমের জায়গায় জিনেদিন জিদান ও আর্সেন ওয়েঙ্গারের নাম শোনা যাচ্ছিল। কিন্তু ওসবে কান দেননি দেশম, ‘দ্বিতীয় কারণও আমার কাছে খুব গুরুত্বপূর্ণ। আমার ওপর প্রেসিডেন্টের আস্থা ও শ্রদ্ধার প্রশ্ন ছিল। শুরু থেকে তিনি আমাকে ২০২০ সাল পর্যন্ত দেখতে চেয়েছিলেন। আরও দুই বছরের জন্য আমাকে সমর্থন করা ছিল অপরিহার্য বিষয়।’ গোল ডটকম

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ