ঢাকা, শনিবার 21 July 2018, ৬ শ্রাবণ ১৪২৫, ৭ জিলক্বদ ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

পুতিনকে যুক্তরাষ্ট্রে আমন্ত্রণ ট্রাম্পের

২০ জুলাই, বিবিসি : মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনকে যুক্তরাষ্ট্র সফরের আমন্ত্রণ জানিয়েছেন। হোয়াইট হাউসের প্রেস সেক্রেটারি সারাহ স্যান্ডার্স টুইটারে এ আমন্ত্রণের বিষয়টি জানিয়েছেন বলে খবর বিবিসির।

দুই বছর আগের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে রুশ হস্তক্ষেপের অভিযোগ ও যুক্তরাজ্যে বিষাক্ত নার্ভ এজেন্ট দিয়ে পক্ষত্যাগী রুশ গুপ্তচরকে ‘হত্যাচেষ্টার’ ঘটনা নিয়ে দুই দেশের কূটনৈতিক সম্পর্কে টানাপোড়েন চলছে।

এর মধ্যেই চলতি সপ্তাহের শুরুর দিকে ফিনল্যান্ডের হেলসিংকিতে রুশ ও মার্কিন প্রেসিডেন্ট একান্তে বৈঠক করেন। ওই ধারাবাহিকতাতেই পুতিনকে যুক্তরাষ্ট্র সফরের আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে বলে ধারণা পর্যবেক্ষকদের।

রুশ প্রেসিডেন্টের সফর নিয়ে দুই দেশের মধ্যে আলোচনা চলছে বলেও জানিয়েছেন স্যান্ডার্স। ট্রাম্প-পুতিনের দ্বিতীয় বৈঠকের সম্ভাবনা নিয়ে ক্রেমলিন এখনো কিছু না জানালেও যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় গোয়েন্দা সংস্থার পরিচালক ড্যান কোটস বলেছেন, “এটা বিশেষ কিছু হতে চলেছে।”

কলোরাডোতে চলা আস্পেন নিরাপত্তা সম্মেলনে পুতিনকে দেওয়া ট্রাম্পের আমন্ত্রণের খবর পেয়ে কোটসকে বিস্মিত হতে দেখা গেছে। হেলসিংকির বৈঠকে মার্কিন ও রুশ প্রেসিডেন্টের মধ্যে কী নিয়ে আলোচনা হয়েছে তা এখনও জানেন বলেও দাবি করেছেন এ গোয়েন্দা পরিচালক।

 সোমবারের ওই বৈঠকে ট্রাম্প ও পুতিনের সঙ্গে কেবল তাদের অনুবাদকরাই উপস্থিত ছিলেন। দুই ঘণ্টার ওই বৈঠকে কী নিয়ে আলোচনা হয়েছে তা জানা না গেলেও বৃহস্পতিবার ট্রাম্প হেলসিংকির বৈঠককে ‘বিরাট সাফল্য’ হিসেবে অ্যাখ্যায়িত করেছেন।

পুতিনের সঙ্গে পরবর্তী বৈঠকের দিকে তাকিয়ে আছেন বলেও জানান এ মার্কিন প্রেসিডেন্ট।

যুক্তরাষ্ট্রের ভেতরেই ট্রাম্প-পুতিনের ফিনল্যান্ড বৈঠক নিয়ে ব্যাপক আলোচনা-সমালোচনা চলছে। বিশ্ব রাজনীতিতে প্রভাবশালী দুই প্রেসিডেন্ট কী নিয়ে কথা বলেছেন তা জানতে চেয়েছে ডেমোক্রেট ও রিপাবলিকান পার্টির সাংসদরাও।

বৃহস্পতিবার মার্কিন সিনেটের ডেমোক্রেট নেতা চাক শুমার এক বিবৃতিতে ওই বৈঠকের সবকিছু জানাতে ট্রাম্পের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।

“হেলসিংকিতে দুই ঘণ্টার বৈঠকে কী নিয়ে আলোচনা হয়েছে তা যতক্ষণ পর্যন্ত জানতে না পারছি ততক্ষণ পর্যন্ত প্রেসিডেন্ট আর পুতিনের সঙ্গে একান্তে কথা বলতে পারবেন না। না যুক্তরাষ্ট্রে, না রাশিয়ায়, কোথাও না,” বিবৃতিতে বলেন এ ডেমোক্রেট সিনেটর। 

রুশ প্রেসিডেন্টকে আমন্ত্রণের খবর দেওয়ার আগেই হোয়াইট হাউস মার্কিন কর্মকর্তাদের জিজ্ঞাসাবাদে পুতিনের অনুরোধ ফিরিয়ে দেয় বলেও জানিয়েছে বিবিসি।

 ডেমোক্রেট পার্টির কম্পিউটার হ্যাকিংয়ের অভিযোগে ১২ রুশ গোয়েন্দা কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে মার্কিন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল রড রজেনস্টাইনের অভিযোগের পাল্টায় মস্কো ধনকুবের বিলি ব্রাউডার ও রাশিয়ায় যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক রাষ্ট্রদূত মাইকেল ম্যাকফলসহ মার্কিন নাগরিকদের জিজ্ঞাসাবাদে আগ্রহের কথা জানিয়েছিল।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ