ঢাকা, শনিবার 21 July 2018, ৬ শ্রাবণ ১৪২৫, ৭ জিলক্বদ ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

পাকিস্তানের জাতীয় নির্বাচনে তৃতীয়লিঙ্গের ৪ প্রার্থী

২০ জুলাই, বিবিসি : শুধুমাত্র তৃতীয়লিঙ্গের মানুষ হওয়ার কারণে নায়াব আলিকে তার স্বজনরাই শারীরিক ও যৌন নিপীড়ন করত। যে কারণে বাধ্য হয়ে ১৩ বছর বয়সে ঘর ছাড়েন। হন অ্যাসিড হামলার শিকার। তারপরও দমে যাননি। বরং বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতক ডিগ্রি গ্রহণের পর জাতীয় নির্বাচনে অংশ নিচ্ছেন।

নিজেদের অধিকার আদায়ের লক্ষ্যে কাজ করতে এ নির্বাচনে তৃতীয়লিঙ্গের চার প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন বলে জানায় বিবিসি। নায়াব বলেন, “আমি বুঝতে পেরেছি, রাজনৈতিক শক্তি এবং পার্লামেন্টের অংশ না হয়ে আমরা আমাদের অধিকার অর্জন করতে পারব না।” সমাজ ব্যবস্থায় তৃতীয়লিঙ্গের মানুষদের চরম বৈষম্যের শিকার হতে হয়। তাদের এমনকি শিক্ষা, স্বাস্থ্যসেবা এবং কর্মসংস্থানের সুযোগ পাওয়ার মত মৌলিক মানবিক অধিকার থেকেও বঞ্চিত হতে হয়।

যদিও ভারতীয় উপমহাদেশের দেশগুলোর মধ্যে তৃতীয়লিঙ্গের মানুষদের নানা অধিকার প্রদানের দিক দিয়ে পাকিস্তান ‘প্রথম দিকে আছে’ বলে জানান উজমা ইয়াকুব। যিনি তৃতীয়লিঙ্গের মানুষদের অধিকার সুরক্ষায় কাজ করেন। তৃতীয়লিঙ্গকে আইনি বৈধতা দেওয়া দেশগুলোর মধ্যেও পাকিস্তান প্রথম দিকে আছে। প্রায় এক দশক আগে দেশটির জাতীয় পরিচয়পত্রে তৃতীয়লিঙ্গকে স্বীকৃতি দেওয়া হয়। 

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ