ঢাকা, শনিবার 21 July 2018, ৬ শ্রাবণ ১৪২৫, ৭ জিলক্বদ ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

অন্যায় আর দুর্নীতির কারণে সরকার নার্ভাস -মঈন খান

স্টাফ রিপোর্টার: বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. আব্দুল মঈন খান বলেছেন, সরকার যদি দেশের উন্নয়ন করে থাকে, তাহলে সুষ্ঠু নির্বাচন দিতে ভয় পাচ্ছে কেন? উন্নয়ন করে থাকলে জনগণ তো আপনাদেরই ভোট দেবে। তারা বিএনপির নেতাকর্মীদের প্রায় ৭৮ হাজার মামলা দিয়ে অন্যায় নিপীড়ন চালাচ্ছে। এরপরেও তারা নার্ভাস কেন? কারণ তারা অন্যায় ও দুর্নীতি করেছে তাই মানসিকভাবেই দুর্বল হয়ে গেছে। আর যারা অন্যায় দুর্নীতি করে তাদের মানসিকতা থাকে-এই বুঝি ক্ষমতা চলে গেল। আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীদের কথা শুনে মনে হচ্ছে সরকার নার্ভাস। তারা অন্যায় ও দুর্নীতি করেছে।
গতকাল শুক্রবার জাতীয় প্রেস ক্লাবে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী নবীন দল আয়োজিত ‘বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তি ও সুচিকিৎসার দাবিতে প্রতিবাদ সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।
সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি হুমায়ুন আহমেদ তালুকদারের সভাপতিত্বে সভায় আরও বক্তব্য দেন বিএনপি চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা জয়নুল আবদিন ফারুক, কিশোরগঞ্জ জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি অ্যাডভোকেট জালাল উদ্দীন জালাল প্রমুখ।
ড. মঈন খান বলেন, আওয়ামী লীগের ঊর্ধ্বতন নেতারা বলেছেন বিএনপি ক্ষমতায় আসলে আওয়ামী লীগকে কচুকাটা করবে। আমার প্রশ্ন- আপনারা এমন কি করেছেন যে বিএনপি ক্ষমতায় আসলে মানুষ আপনাদের কচুকাটা করবে? আপনারা যদি দেশের উন্নয়ন করে থাকেন তাহলে মানুষ আপনাদেরকে কচুকাটা করবে কেন?
তিনি বলেন, বেগম খালেদা জিয়াকে অবশ্যই মুক্ত করতে হবে। সরকারের কাছে কোনো দাবি নেই। এ দাবি জনগণের কাছে। প্রত্যেক জনগণের দায়িত্ব দেশে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করা, বাকশালী শাসক বিতাড়িত করা। পৃথিবীর কোনো স্বৈরশাসকই এমনি এমনি বিতাড়িত হয়নি। স্বৈরশাসককে বিতাড়িত করতে হলে আন্দোলন করে তাদের চলে যেতে বাধ্য করতে হবে এবং বিএনপিকে আগামীতে সেটাই করতে হবে। মঈন খান বলেন, সরকার যদি মনে করে থাকে, বেগম জিয়াকে জেলে রেখে পাতানো নির্বাচনের মাধ্যমে সংসদে একটি গৃহপালিত বিরোধী দল তৈরি করবে, এবার আমরা সেটা হতে দেব না।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ