ঢাকা, শনিবার 21 July 2018, ৬ শ্রাবণ ১৪২৫, ৭ জিলক্বদ ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

পত্নীতলায় বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধটি জরাজীর্ণ সংস্কারের উদ্যোগ নেই

পত্নীতলা (নওগাঁ) সংবাদদাতা: কর্তৃপক্ষের অবহেলার কারনে পত্নীতলা ধামইরহাট এলাকার আত্রই নদীর পার্শ্বে নির্মিত ঐতিহ্যবাহী বন্যা নিয়ন্ত্রন বাঁধটি মুখ থুবরে পরে থাকলেও কর্তৃপক্ষের নজর আজও পরেনি সে দিকে।
জানা গেছে ২০০১ সালে পত্নীতলা ধামইরহাট এলাকার বন্যা নিয়ন্ত্রন বাঁধটি নির্মিত হলে, পত্নীতলা-ধামইরহাট উপজেলা যোগাযোগ ব্যবস্থার অনেক উন্নতি হয়।
কিন্তু ২০১৭ সালের ভয়াবহ বন্যা ও আষাঢ়ের প্রবল বৃষ্টিতে বন্যা নিয়ন্ত্রন বিশ্ব বাঁধটির অনেক ক্ষতি সাধন হয়। এর ফলে বন্যা নিয়ন্ত্রন বিশ্ব বাঁধটির বিভিন্ন স্থানে বড় বড় খালা খন্দকের সৃষ্টি হয়ে দুই উপজেলার যাতায়াত ব্যবস্থা ভেঙ্গে পড়ে। স্থানীয় এলাকাবাসীর অভিযোগে জানায় বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধটি সংস্কারের জন্য আমরা পানি উন্নয়ন বোর্ডে বারবার অভিযোগ করার পরেও আজও কর্তৃপক্ষের কোন নজর পড়েনি।
ঐতিহ্যবাহি বন্যা নিয়ন্ত্রণ বিশ্ব বাঁধটির দিকে। এলাকার প্রবীন ব্যক্তিরা বলেন বন্যা নিয়ন্ত্রণ বিশ্ব বাঁধটির যে অবস্থা যেকোন বন্যা ও বর্ষার প্রবল বর্ষনে ভেঙ্গে যাওয়ার আশংকা রয়েছে। অপর দিকে পত্নীতলা উপজেলার পত্নীতলা বাজার খাদ্য গোডাউনের পাকা রাস্তাটি বড় বড় খালা খন্দকের সৃষ্টি হয়ে যোগাযোগ ব্যবস্থা ভেঙ্গে পড়েছে। এ ব্যাপারে পত্নীতলা খাদ্য গোডাউনের এলএসডি মোঃ মশিউর রহমানের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান ভারি বর্ষন বিভিন্ন যানবাহনের  চাপে রাস্তাটির কার্পেটিং উঠে খানা খন্দক সৃষ্টি হয়ে যাতায়াত ব্যবস্থা হুমকির মুখে পড়েছে। এলাকাবাসী বন্যা নিয়ন্ত্রণ বিশ্ব বাঁধ ও খাদ্য গোডাউনের রাস্তাটি সংস্কারের জন্য জোর দাবি জানায়। অনুসন্ধানে জানা গেছে আত্রই নদীর বুক ব্লক দিয়ে মেট্রোসিন করা হলে এক সপ্তাহ যেতে না যেতে ব্লক গুলো নদীতে ধুসে যেতে শুরু করেছে। এলাকাবাসী অভিযোগে আরও জানায় ঠিকাদারের লোকজন ভালোভাবে কার্পেটিং না করার কারনে মেট্রোসিনকৃত  ব্লক গুলো ধুসে যাচ্ছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ