ঢাকা, রোববার 22 July 2018, ৭ শ্রাবণ ১৪২৫, ৮ জিলক্বদ ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

ভোট কারচুপি করা হলে সরকার পতনের আন্দোলন শুরু হবে -আব্দুল্লাহ আল নোমান

বরিশাল অফিস : ৩০ জুলাই বরিশাল আসন্ন সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের সময় যতই ঘনিয়ে আসছে মেয়র প্রার্থীসহ কাউন্সিলরগণ গণসংযোগ ও প্রচার প্রচারণা জোড় কদমে চালিয়ে যাচ্ছেন। বরিশাল সিটি নির্বাচনে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল (বিএনপি) ধানের শীষের মনোনিত প্রার্থী কেন্দ্রীয় বিএনপি যুগ্ম-মহাসচিব মজিবর রহমান সরোয়ারের সমর্থনে নগরীর বিভিন্ন অলিগলিতে প্রচার-প্রচারণায় অংশ নিয়েছে কেন্দ্রীয় বিএনপি উচ্চ পর্যায়ের নেতৃবৃন্দ।
গতকাল শনিবার সকাল ১১টায় নগরীর কাশীপুর বাজারের ধানে শীষের প্রচার কালে ইলেক্টনিক্স ও গনমাধ্যমেকে কেন্দ্রীয় ভাইস চেয়ারম্যান আবদুল্লাহ-আল নোমান বলেন, বরিশাল সিটি নির্বাচনে কোনো প্রকার ভোট কারচুপি করা হলে এখান থেকে সরকার পতনের আন্দোলন শুরু হবে।
তিনি বলেন, নির্বাচন কমিশন আমাদের সমান সুযোগ দিচ্ছে না। সরকারি দলের প্রার্থীর সমর্থকরা মিছিলসহ অতিরিক্ত সময় নষ্ট করে মিটিং করছে সেখানে কোনো ধরনের বাধা নেই আমাদের নির্ধারিত সময়ের আগেই আমাদের সভা বন্ধ করে দিচ্ছে।
ভাইস চেয়ারম্যান নোমান আরো বলেন, খুলনা ও গাজীপুর সিটি নির্বাচনে যে অনিয়ম হয়েছে নির্বাচন কমিশন তা স্বীকার করে নিয়েছে। আমরা চাই একটি সুষ্ঠ, সুন্দর নির্বাচন।
নোমান আরো বলেন, বরিশালে নির্বাচন কমিশন যেভাবে কথা বলেছে পুলিশ প্রশাসনসহ সরকারি কর্মকর্তারা সঠিকভাবে দায়িত্ব পালন না করে, তারা আমাদের কাজে বাধা প্রদান করার কাজে ব্যস্থতা দেখাচ্ছে। আমরা বলতে চাই নির্বাচন কমিশন মাহাবুব তালুকদার প্রার্থীদের উপস্থিতিতে যে কথা বলেছে তা যদি সঠিক ভাবে তার ওয়াদা পালন করে তাহলে ধানের শীষের প্রার্থী মজিবর রহমান সরোয়ার বিপুল ভোটে বিজয় লাভ করবে।
এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্রীয় ভাইস চেয়ারম্যান সাবেক সাংস্কৃতিক প্রতিমন্ত্রী বেগম সেলিমা রহমান, কেন্দ্রীয় বিএনপি সদস্য সাবেক সংসদ সদস্য মেজবা উদ্দিন ফরহাদ, মেহেন্দিগঞ্জ উপজেলা বিএনপি সভাপতি সাবেক পৌর মেয়র সৈয়দ রফিকুল ইসলাম লাবু,সাধারন সম্পাদক গিয়াস উদ্দিন দিপেন, নুরুল আলম রাজু,আসাদুজ্জামান মুক্তা সহ হিজলা ও মেহেন্দিগঞ্জের বিএনপি ও দলীয় অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ ধানের শীষ মার্কার সমর্থনে লিফলেট বিতরণ ও গনসংযোগ করেন।
এর পূর্বে আবদুল্লাহ আল নোমান ও সেলিমা রহমান কাশীপুর বাজারে আসার পূর্বে এয়ারপোর্ট থানার এস আই অরবিন্দ চার/পাঁচজন করে গনসংযোগ করার নির্দেশ দেন।
পরে তারা কাশীপুর বাজার,সহ ফিসারীরোড, সহ ২৮ নং ওয়ার্ড থেকে শুরু করে উক্ত এলাকার বাসাবাড়ি পথচারীদের কাছে ধারে শীষ মার্কায় ভোট প্রত্যাশা করেন।
এদিকে সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণভাবে ভোট গ্রহণের জন্য বরিশাল সিটি করপোরেশন নির্বাচনে সেনাবাহিনী মোতায়েনের দাবি জানিয়েছেন বিএনপির মেয়র প্রার্থী মজিবর রহমান সরোয়ার। গণসংযোগকালে সরোয়ার বলেন, “খুলনা ও গাজীপুর সিটি নির্বাচনে ভোট চুরি হয়েছে। তাই বরিশাল সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে ভোট চুরি ঠেকাতে সেনাবাহিনীর বিকল্প নেই।”
মজিবর রহমান সরোয়ার অভিযোগ করেন, প্রতিদ্বন্দ্বী আওয়ামী লীগ প্রার্থী নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘন করে চলছেন। এ ব্যাপারে নির্বাচন কমিশন নিশ্চুপ।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ