ঢাকা, রোববার 22 July 2018, ৭ শ্রাবণ ১৪২৫, ৮ জিলক্বদ ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

শ্রমিকদের সংগঠিতকরণের লক্ষ্যে ট্রেড ইউনিয়নের গুরুত্ব অপরিসীম -লস্কর মো. তসলিম

গতকাল বগুড়া অঞ্চল আয়োজিত ট্রেড ইউনিয়ন নেতৃবৃন্দের কর্মশালায় প্রধান অতিথি ছিলেন শ্রমিক কল্যাণ ফেডারেশনের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক লস্কর মোঃ তসলিম

বাংলাদেশ শ্রমিক কল্যাণ ফেডারেশনের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক লস্কর মোঃ তসলিম বলেছেন, শ্রমিকদের ন্যায্য অধিকার আদায়ে অসংগঠিত শ্রমিকদের সংগঠিত করা ছাড়া আর কোনো বিকল্প নেই। শ্রমিকদের ঐক্যবদ্ধ শক্তি বৃদ্ধি করতে না পারলে কোনোভাবেই আমাদের ট্রেড ইউনিয়ন আন্দোলন শক্তিশালী করা যাবে না।
গতকাল বগুড়া অঞ্চল আয়োজিত ট্রেড ইউনিয়ন নেতৃবৃন্দের কর্মশালায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এই কথা বলেন। কেন্দ্রীয় সহ-সাধারণ সম্পাদক আতিকুর রহমানের সভাপতিত্বে রাজশাহী বিভাগ পূর্বের সভাপতি আব্দুল মতিনের পরিচালায় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সিরাজগঞ্জ জেলার প্রধান উপদেষ্টা শাহিনুর রহমান, সাবেক প্রধান উপদেষ্টা আলী আলম, বেলকুচি উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আরিফুল ইসলাম সোহেলসহ বিভাগ ও ট্রেড ইউনিয়ন নেতৃবৃন্দ।
লস্কর তসলিম আরো বলেন, শ্রমিকদের ফেডারেশনগুলো যতই অসংগঠিত শ্রমিকদের সংগঠিত করতে পারবে ততই তারা শক্তিশালী হবে। প্রশিক্ষণ, প্রোগ্রাম, সেমিনার, কর্মশালা প্রচুর অনুষ্ঠিত হয়েছে, এখন সময় এসেছে ওইসব প্রশিক্ষিত ও প্রশিক্ষণরত কর্মীদের অসংগঠিত শ্রমিকদের সংগঠিত করার কাজে ঝাঁপিয়ে পড়া।
তিনি সরকারের কাছে দৃষ্টি আকর্ষণ করে বলেন, সরকারকে অবশ্যই একটি ট্রেড ইউনিয়ন উপযোগী পরিবেশ তৈরি করতে হবে, যাতে শ্রমিকরা ট্রেড ইউনিয়ন গঠন করতে পারেন। কেননা শ্রমিকদের ট্রেড ইউনিয়নে গঠন করা একটি মৌলিক অধিকার এবং বাংলাদেশের সংবিধান শ্রমিকদের এ অধিকার নিশ্চিত করেছে। তাই শ্রমিকদের ট্রেড ইউনিয়ন অধিকার আদায়ের সংগঠন এবং সরকারের কাছ থেকে এ অধিকার তাদের ন্যায্য প্রাপ্য। সরকার ও মালিককে এটা অবশ্যই বুঝতে হবে যে, একমাত্র শক্তিশালী ট্রেড ইউনিয়নই শ্রমিক-মালিক সম্পর্ককে শক্তিশালী করতে পারে। শিল্পে উৎপাদন বৃদ্ধি, শ্রমিক-মালিকের সুসম্পর্ক বজায় রাখা, সরকার-মালিক ও শ্রমিকের মধ্যে ত্রিপক্ষীয় ঐক্য ও সম্প্রীতি বজায় রাখতে শক্তিশালী ট্রেড ইউনিয়ন ছাড়া আর কোনো বিকল্প নেই। প্রেসবিজ্ঞপ্তি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ