ঢাকা, রোববার 22 July 2018, ৭ শ্রাবণ ১৪২৫, ৮ জিলক্বদ ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

বৃদ্ধাকে ধর্ষণ ও খুনের অভিযোগে গণপিটুনিতে নিহত ১

চৌগাছা (যশোর) সংবাদদাতা: যশোরের পল্লীতে বৃদ্ধাকে ধর্ষণ ও খুনের অভিযোগে এক ব্যক্তিকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে বলে দাবী করেছে পুলিশ। নিহত ব্যক্তি হলেন সদর উপজেলার বসুন্দিয়া এলাকার জগন্নাথপুর গ্রামের ইরাদত খান (৪০)।
ইরাদতের বিরুদ্ধে ৭০ বছর বয়সী এক বৃদ্ধাকে ধর্ষণের পর হত্যার অভিযোগ ওঠে সোমবার। এর আগে একটি বাচ্চা মেয়েকে ধর্ষণের পর খুন করাসহ নৈতিক স্খলনজনিত নানা অভিযোগ ছিল তার বিরুদ্ধে।
যশোরের বসুন্দিয়া পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ হায়াৎ মাহমুদ মঙ্গলবার সকালে ইরাদতের মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করেছেন।
এসআই হায়াৎ মাহমুদ জানান, ১৬ জুলাই দুপুরে ইরাদত ওরফে ইরাদ প্রতিবেশী এক বৃদ্ধাকে (৭০) ভাত রান্নার কথা বলে বাড়িতে ডেকে নেয়। এরপর বিকেল থেকে ওই বৃদ্ধাকে খুঁজে না পাওয়ায় প্রতিবেশীরা ইরাদকে সন্দেহ করে। স্থানীয়দের জিজ্ঞাসাবাদের মুখে সে অসংলগ্ন কথাবার্তা বলতে থাকে। এতে উত্তেজিত হয়ে লোকজন তাকে মারপিট করে। মারপিটের এক পর্যায়ে সে স্বীকার করে যে, ওই বৃদ্ধার লাশ তার বাড়ির পাশে মুরগির ঘরে প্লাস্টিকের বস্তার মধ্যে রয়েছে।সন্ধ্যায় ওই প্লাস্টিকের বস্তার মধ্যে থেকে বৃদ্ধার লাশ উদ্ধার করা হয়। আর গণপিটুনির শিকার ইরাদকে এলাকাবাসী স্থানীয় চিকিৎসক আব্দুল হাইয়ের কাছে নিয়ে যান। রাত সাড়ে দশটার দিকে মুমূর্ষু অবস্থায় পুলিশ তাকে সেখান থেকে যশোরে নিয়ে আসে।
এসআই হায়াৎ মাহমুদ জানান, হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পর কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ