ঢাকা, সোমবার 23 July 2018, ৮ শ্রাবণ ১৪২৫, ৯ জিলক্বদ ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

দৌলতপুরে নিখোঁজের ৩দিন পর জেলের লাশ উদ্ধার

দৌলতপুর (কুষ্টিয়া) সংবাদদাতা : কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে নিখোঁজের ৩ দিন পর পদ্মা নদী থেকে আবুল কালাম (৪৮) নামে এক জেলের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। গতকাল রোববার সকাল ৭টার দিকে উপজেলার চিলমারী ইউনিয়নের উদয়নগর-ডিগ্রিরচর এলাকার পদ্মা নদী থেকে ভাসমান অবস্থায় তার লাশ উদ্ধার করা হয়। তিনদিন ধরে সে নিখোঁজ ছিল। নিহতের স্বজন ও স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যানের অভিযোগ ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিএসএফ জেলে আবুল কালামকে আটক করে নির্যাতন শেষে হত্যার পর লাশ পদ্মা নদীতে ফেলে দেয়। চিলমারী ইউপি চেয়ারম্যান সৈয়দ আহমেদ জানান, তার ইউনিয়নের চরবাহিরমাদী গ্রামের মাছ ধরা জেলে আবুল কালামসহ ৯ জন বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় পদ্মা নদীতে মাছ ধরতে গিয়ে ট্রলারসহ ভারত সীমানায় ঢুকে পড়ে। এসময় ভারতের মুর্শিদাবাদ জেলার সিংপাড়া বিএসএফ ক্যাম্পের নদী পথের টহল দল ট্রলারকে ধাওয়া দিলে ৮জন জেলে নদীতে ঝাঁপ দিয়ে সাঁতরিয়ে প্রাণে বাঁচে। কিন্তু নদী ঝাঁপ না দেয়ায় আবুল কালামকে বিএসএফ আটক করে এবং অমানবিক নির্যাতন শেষে হত্যা করে লাশ নদীতে ফেলে দেয়। গতকাল রোববার সকালে তার লাশ পদ্মা নদীতে ভাসতে দেখে স্থানীয়রা উদ্ধার করে পুলিশকে খবর দেয়। খবর পেয়ে দৌলতপুর থানা পুলিশ নিহত জেলের লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মর্গে প্রেরন করে। নিহত আবুল কালাম চরবাহিরমাদী গ্রামের নজু শেখের ছেলে।  

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ