ঢাকা, সোমবার 23 July 2018, ৮ শ্রাবণ ১৪২৫, ৯ জিলক্বদ ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

মিরসরাই অর্থনৈতিক অঞ্চলে ৪০ থেকে ৮০ বিলিয়ন ডলার বিনিয়োগ হবে

মিরসরাই(চট্টগ্রাম)সংবাদদাতা: চট্টগ্রামের মিরসরাই অর্থনৈতিক অঞ্চলে গাছ লাগানো কার্যক্রম উদ্বোধন করা হয়েছে। শনিবার অর্থনৈতিক অঞ্চলের সড়কে গাছের চারা রোপন করে কার্যক্রমের উদ্বোধন করে প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ের মূখ্য সমন্বয়ক (এসডিজি) আবুল কালাম আজাদ।
চারা রোপন উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে আবুল কালাম আজাদ বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর শেখ মুজিবুর রহমান বলেছিলেন, মুক্তির সংগ্রামের চেয়ে দেশ গড়ার কাজ অনেক কঠিন। দেশ গড়ার কাজে সবাইকে সর্ব শক্তি নিয়োগ করতে হবে। অর্থনৈতিক অঞ্চল গড়ে তোলা দেশ গড়ার একটি অংশ। এখানে সবাইকে সর্বশক্তি দিয়ে কাজ করতে হবে। অর্থনৈতিক অঞ্চলে এখানকার ক্ষতিগ্রস্ত প্রতিটি পরিবারের সদস্যদের কারিগরি প্রশিক্ষণের মাধ্যমে কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করা হবে। এজন্য বেজা প্রশিক্ষণের উদ্যোগে গ্রহণ করবে। তিনি বলেন, শেখ হাসিনা শুধু স্বপ্ন দেখেনা তা বাস্তবায়ন করেন। এ অর্থনৈতিক অঞ্চলে ৪০ থেকে ৮০ বিলিয়ন ডলার বিনিয়োগ হবে বলে তিনি বিশ্বাস করেন বলে জানান।
তিনি বলেন, ‘সারাদেশে পরিচালিত বৃক্ষরোপন কর্মসূচির সাথে সামঞ্জস্য রেখে পরিকল্পিত শিল্প প্রতিষ্ঠান স্থাপন করা হলে পরিবেশের সুরক্ষাও নিশ্চিত হবে। টেকশই উন্নয়নের মূল শর্তানুযায়ী এসব অর্থনৈতিক অঞ্চলে বৃক্ষরোপনের ফলে জীববৈচিত্র রক্ষার পাশাপাশি ভূমির ক্ষয়রোধ পাবে এবং ভূমির স্থিতি রক্ষা হবে।
ওইদিন বৃক্ষরোপণ কর্মসূচির উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সরকারি কর্মকর্তা ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন বিভিন্ন বেসরকারি শিল্প প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তাবৃন্দ।
অনুষ্ঠান শেষে সুপার পেট্রোকেমিক্যাল প্রাইভেট লিমিটেড নামের পৃষ্টপোষক প্রতিষ্ঠান বৃক্ষরোপনের ওপর একটি থ্রি ডি এনিমেশন প্রদর্শন করে। যাতে অর্থনৈতিক এলাকার বিভিন্ন সড়ক, ভেড়ীবাঁধ ও উন্মুক্ত স্থানে গাছ লাগানোর পরিকল্পনা তুলে ধরা হয়।
 বিশেষ অতিথির বক্তব্যে অর্থনৈতি অঞ্চলে চারা লাগানো দায়িত্ব পাওয়া সুপার  পেট্রোকেমিক্যাল লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালন মোস্তাফা হায়দার বলেন, আগামী ৫-৬ বছরের মধ্যে তিন ধাপে মিরসরাই অর্থনৈতিক অঞ্চলে ২০ লাখ গাছের চারা রোপন করা হবে।
অনুষ্ঠানে বেজার নির্বাহী চেয়ারম্যান পবন চৌধুরীর সভাপতিত্বে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ ইলিয়াস, ফেনী জেলা প্রশাসক মনোজ কুমার রায়। অনুষ্ঠান শেষে মূখ্য সমন্বয়ক আবুল কালাম আজাদ, বেজার নির্বাহী চেয়ারম্যান পবন চৌধুরী অর্থনৈতিক অঞ্চলে কাজের অগ্রগতি পরির্দশন করেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ