ঢাকা, মঙ্গলবার 24 July 2018, ৯ শ্রাবণ ১৪২৫, ১০ জিলক্বদ ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

আসামে নাগরিকত্ব থেকে নাম বাদ গেলেও আটক করা হবে না---রাজনাথ সিং

২৩ জুলাই, রয়টার্স : উত্তর-পূর্ব ভারতের সবচেয়ে বড় রাজ্য আসামে যেসব ভারতীয়র নাম নাগরিকত্বের তালিকা থেকে বাদ পড়বে তাদের আটক করা হবে না। দেশটির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ শিং এক বিবৃতিতে বলেন, ৩০ জুলাই জাতীয় নাগরিকত্বের নিবন্ধনের (এনআরসি) হালনাগাদ প্রকাশ করা হবে।

'এর পর আসামের সব অধিবাসীকে প্রমাণ দেখাতে হবে যে ১৯৭১ সালের ২৪ মার্চের আগে তারা কিংবা তাদের পরিবার সেখানে বসবাস করছিলেন।'

অবৈধ বাংলাদেশী অভিবাসী খোঁজার অজুহাতে মুসলমানদের টার্গেট করা হয়েছে বলে আতঙ্কের মধ্যে ভারত সরকার এ খবর দিয়েছে।

রাজনাথ সিং বিবৃতিতে জানিয়েছেন, আমরা প্রতিটি ব্যক্তির জন্য ন্যায়বিচার নিশ্চিত করতে চাই। সবার সঙ্গে মানবিক আচরণ করতে চাই। আইন অনুসারে সবাইকে প্রতিকার পেতে যথেষ্ট সুবিধা দেয়া হবে।

তিনি বলেন, যদি কোনো ব্যক্তি এ দাবির ফলে সন্তুষ্ট হতে না পারেন, তবে তিনি ফরেনার্স ট্রাইব্যুনালে আপিল করতে পারবেন। কাজেই নাগরিকত্বের জাতীয় নিবন্ধন (এনআরসি) প্রকাশের পর কাউকেই আটকের প্রশ্ন আসতে পারে না। নরেন্দ্র মোদির হিন্দু জাতীয়তাবাদী দল ক্ষমতায় আসার পর আসামের মুসলমানদের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে। কারণ নির্বাচনের প্রচারের সময় বাংলাদেশ থেকে আসা অবৈধ অভিবাসীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন তিনি। গত জানুয়ারিতে সীমান্তবর্তী রাজ্যটিতে এনআরসির খসড়া তালিকা থেকে এক কোটি ৩০ লাখ লোকের নাম বাদ পড়ে যায়। মানবাধিকারকর্মীরা বলেন, সরকারের এ উদ্যোগে ভারতীয় মুসলিম নাগরিকদের টার্গেটে পরিণত করা হয়েছে।রাজনাথ সিং বলেন, নাগরিকত্বে নামে যাতে কেউ হয়রানির শিকার না হন, সে জন্য আসামকে নিরাপত্তা জোরদার করতে বলা হয়েছে। 

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ