ঢাকা, মঙ্গলবার 24 July 2018, ৯ শ্রাবণ ১৪২৫, ১০ জিলক্বদ ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

সিসিক নির্বাচনে মেয়র প্রার্থী জুবায়েরকে নিয়ে এত মিথ্যাচার কেনো?

কবির আহমদ, সিলেট : সিসিক নির্বাচনে সিলেট নাগরিক ফোরাম মনোনীত মেয়র প্রার্থী এডভোকেট এহসানুল মাহবুব জুবায়ের। তাঁর রাজনৈতিক প্রতিপক্ষও তাঁকে সজ্জন, নির্বিবাদী ব্যক্তিত্ব হিসেবে আখ্যা দিয়ে থাকেন। সিলেটের আদালত পাড়ায় তাঁর রয়েছে সুনাম-সুখ্যাতি। আগামী ৩০ জুলাই অনুষ্ঠিতব্য সিলেট সিটি করপোরেশন নির্বাচনে মেয়র পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন এই সদা হাস্যেজ্জ্বল এডভোকেট জুবায়ের।
নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার পর থেকে বিএনপি মনোনীত মেয়র প্রার্থী আরিফুল হক চৌধুরী ও বিএনপির বিদ্রোহী প্রার্থী নগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক বদরুজ্জামান সেলিম একে অপরের বিরুদ্ধে কাঁদা ছোড়াছুড়িতে লিপ্ত, ঠিক তথন থেকে অদ্যবধি নগরবাসীর প্রিয় নেতা জুবায়ের সুবিধাজনক অবস্থানে রয়েছেন। সম্প্রতি সেলিম আরিফকে সমর্থন দিলেও জুবায়েরের জনপ্রিয়তায় ভাটা পড়েনি। গণসংযোগকালে শত শত মানুষের উপস্থিতি জুবায়েরের প্রতি নগরবাসীর ভালোবাসা ও সমর্থন বৃদ্ধি পাচ্ছে। এরপরও এডভোকেট জুবায়েরের লিফলেট, পোস্টার ছেড়া হচ্ছে বিরামহীনভাবে। গত সপ্তাহে টেবিল ঘড়ির সমর্থনে নগরীর দর্শনদেউড়ী এলাকায় লিফলেট বিতরণকালে তাঁর কয়েকজন কর্মীর উপর হামলা করে দুর্বৃত্তরা। তাঁর পোস্টার ছিড়া নিয়ে ইতিমধ্যে রিটার্নিং অফিসারের কাছে অভিযোগও করেছেন এডভোকেট জুবায়ের। সম্প্রতি নগরীর সুবিদবাজারে একটি রেস্টুরেন্টে কে বা কারা হামলা ঘটনা ঘটায়। এই খোঁড়া অজুহাতকে কেন্দ্র করে গতকাল সোমবার মৌরসি রেস্টুরেন্টের প্রতিবেশি হাসান আব্দুল গণি নাগরিক ফোরামের মেয়র প্রার্থী এডভোকেট জুবায়ের ও তার দল জামায়াতে ইসলামীর বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলনে করেন। সাংবাদিকরা বিভিন্ন প্রশ্ন করলেও তিনি কোনো সদুত্তর না দিয়ে এড়িয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেন। রেস্টুরেন্টের মালিক জনৈক আব্দুল হান্নান। আব্দুল গণি মালিক না হয়েও কেনো সংবাদ সম্মেলন করতে এলেন এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি জানান, প্রতিবেশি হিসেবে দায়িত্ব পালন করতে এসেছি। গণি অভিযোগ করেন জামায়াত-শিবিরের কর্মীরা তাকে হুমকি দিচ্ছে, তার সন্তানরা বিদ্যালয়ে যেতে পারছে না। হুমকির প্রেক্ষিতে কেনো জিডি করছেন না এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি জানান, থানায় যাবো এ নিরাপত্তা দিবে কে?। তাহলে প্রেসক্লাবে আসলেন কিভাবে এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি ধামাচাপা দেয়ার চেষ্টা করে সবাইকে সালাম জানিয়ে স্থান ত্যাগ করেন। সিলেট প্রেসক্লাবে আসা অপর এক সংবাদ সম্মেলন আয়োজনকারী লোকজন গণির সংবাদ সম্মেলনকে প্রশ্নবিদ্ধ আখ্যা দিয়ে বলেন, এডভোকেট জুবায়েরের জনপ্রিয়তায় ঈর্ষান্বিত হয়ে নির্বাচনের মাত্র ৭ দিন আগে এমন সংবাদ সম্মেলন উদ্দেশ্যপ্রণোদিত। নির্বিবাদী এই জননেতা নিয়ে এতো মিথ্যাচার কেনো এই প্রশ্ন নগরবাসীর।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ