ঢাকা, মঙ্গলবার 24 July 2018, ৯ শ্রাবণ ১৪২৫, ১০ জিলক্বদ ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

স্পীড ব্রেকারের অভাবে ঘটছে দুর্ঘটনা

আগৈলঝাড়া (বরিশাল) সংবাদদাতা: বরিশালের আগৈলঝাড়া উপজেলার ৫০ শয্যার হাসপাতালের সামনে স্পীড ব্রেকারের অভাবে প্রায়ই ঘটছে দুর্ঘটনা। হাসপাতালের সামনে দুর্ঘটনা এড়াতে বরিশাল সড়ক ও জনপথ বিভাগের নিকট স্পীড ব্রেকার নির্মাণের দাবি জানিয়েছেন এলাকার সাধারন জনগণ ও রোগীর স্বজনেরা। জানা গেছে, গৌরনদী-আগৈলঝাড়া-গোপালগঞ্জ মহাসড়কের পাশে আগৈলঝাড়া উপজেলার গৈলা এলাকায় ৫০ শয্যার হাসপাতাল অবস্থিত। এই হাসপাতালের সামনে সোমবার সকালে সড়ক পারাপারের সময় ট্রাক ও বাস সাইড দিতে গিয়ে পাশের একটি মাহেন্দ্রর সাথে ধাক্কা লেগে মাহেন্দ্র উল্টে গায়ে পড়ে উপজেলার মধ্যমিহিপাশা গ্রামের আওরঙ্গ মুন্সীর মেয়ে ও গৈলা মডেল মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সপ্তম শ্রেণীর ছাত্রী অহনা আক্তার গুরুতর আহত হয়। তাৎক্ষণিক অহনাকে উপজেলা হাসপাতালে নিলে সেখান থেকে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়। শুধু অহনাই নয়, হাসপাতালের সামনের সড়কে কোন স্পীড ব্রেকার না থাকায় প্রায়ই ঘটছে দূঘর্টনা। বর্তমানে অহনা চিকিৎসাধীন রয়েছে। স্থানীয়রা জানান, বরিশাল সড়ক ও জনপথের আওতাধীন এই সড়কে গৌরনদী থেকে পয়সারহাট পর্যন্ত বরিশাল অংশের ১৬ কিলোমিটার সড়কে উল্লেখিত হাসপাতালসহ গুরুত্বপূর্ণ হাট বাজার ও কলেজ থাকলেও নেই কোন স্পীড ব্রেকার। এই মহাসড়কের গুরুত্বপূর্ণ স্থানে স্পীড ব্রেকার না থাকলেও উপজেলার অভ্যন্তরীণ সড়ক নগড়বাড়ি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সামনে ৫০ গজের মধ্যে রয়েছে ৩টি স্পীড ব্রেকার। যাতে দুর্ঘটনা না কমে আরও বেড়েছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ