ঢাকা, বুধবার 25 July 2018,১০ শ্রাবণ ১৪২৫, ১১ জিলক্বদ ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

তিন হাজার মৎস্যজীবী বেকার ডুমুরিয়ার মরাভদ্রা নদী অবৈধ দখলে

খুলনা অফিস : খুলনার ডুমুরিয়া উপজেলার মরাভদ্রা নদীটি এখন অবৈধ দখলদারদের কবলে। নদীতে লবণপানি উঠিয়ে বাঁশ ও নেটপাটা দিয়ে অবাধে চিংড়ি চাষ করছে। এতে ৩ হাজার মৎস্যজীবী বেকার হয়ে পড়েছে। প্রতিকার চেয়ে এলাকাবাসী উপজেলা নির্বাহী অফিসারের নিকট স্মারকলিপি দিয়েছেন।
উপজেলার সাহস ও ভান্ডারপাড়া ইউনিয়নের মধ্য দিয়ে প্রবাহিত মরাভদ্রা নদীটি তিন হাজার মৎস্যজীবীর জীবিকার প্রধান উৎস। তাছাড়া কৃষি সেচের উৎস, পানি নিষ্কাশন ও দেশীয় প্রজাতির মাছের প্রজনন ক্ষেত্র। এলাকার তিন হাজার মানুষ প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে নদীটির ওপর নির্ভরশীল। বছরখানেক ধরে এলাকার একটি স্বার্থান্বেষী মহল নদীতে অবৈধভাবে লবণপানি উঠিয়ে বাঁশ ও নেটপাটা দিয়ে চিংড়ি চাষ শুরু করেছে। এতে ওই নদীতে সাধারণ মানুষের প্রবেশ ও জীবন জীবিকা হুমকি হয়ে পড়েছে। এছাড়া কিছু ভূমিদস্যু নদীর দু’পাড় দখল করে নিয়েছে।
এলাকার হায়দার আলী শেখ জানান, মরাভদ্রা নদীর অবৈধ দখলদার উচ্ছেদ ও দ্রুত নেটপাটা অপসারণ না করলে চলতি বর্ষা মওসুমে জলাবদ্ধতা ও ফসলের মারাত্মক ক্ষতি হবে। এ ব্যাপারে ডুমুরিয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোছা. শাহনাজ বেগম বলেন, এলাকাবাসী অভিযোগ দিয়েছে। পুলিশ প্রশাসন নিয়ে আমি নিজেই উপস্থিত থেকে অবৈধ দখলদার উচ্ছেদ ও দ্রুত নেটপাটা অপসারণের ব্যবস্থা করবো।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ