ঢাকা, বুধবার 25 July 2018,১০ শ্রাবণ ১৪২৫, ১১ জিলক্বদ ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

নালিতাবাড়ীতে দুটি মন্দিরের মূর্তি ভেঙ্গে ফেলেছে দুর্বৃত্তরা

আল হেলাল,নালিতাবাড়ী, শেরপুর : দেশের শেষ সীমান্তবর্তী শেরপুরের নালিতাবাড়ী উপজেলায় শনিবার রাতে দুর্র্বৃত্তরা দুটি মন্দিরের মূর্তি ভেঙে ফেলার অভিযোগ পাওয়া গেছে। সোমবার দুপুরে এলাকাবাসী পুলিশকে অবহিত করেন। এ ব্যাপারে পুলিশের তদন্ত চলছে।
পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে,গত শনিবার রাতে নালিতাবাড়ী পৌরশহরের খালভাঙ্গা ও পালপাড়া এলাকায় মহাশ্মশান কালী মন্দির ও খালভাঙ্গা সার্বজনিন কালী মন্দিরের অবস্থিত দুটি কালী মূর্তি দুর্বৃত্তরা ভেঙে ফেলেন। রোববার দুপুরে গোসল সেরে পূঁজা করতে গিয়ে বিষয়টি এলাকাবাসীর নজরে আসে। গতকাল সোমবার দুপুরে এলাকাবাসী উপজেলা পূঁজা উদয়াপন কমিটির সভাপতিকে বিষয়টি অবহিত করেন। সভাপতি মূর্তি ভাঙ্গার বিষয়টি পুলিশ কে জানান। গতকাল দুপুরে সহকারী পুলিশ সুপার (এএসপি) জাহাঙ্গীর আলম, ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) একেএম ফসিহুর রহমান, পৌরসভার মেয়র আবু বক্কর সিদ্দিক ও উপজেলা পূঁজা উদয়াপন কমিটির সভাপতি অরুন সরকার মন্দির দুটি পরির্দশন করেন। অভিযোগের ভিত্তিতে নালিতাবাড়ী থানার পুলিশ বিষয়টি তদন্ত করছে।
গতকাল সোমবার বিকেলে সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে, মহাশ্মশান কালী মন্দিরে তালা দেওয়া। জানালার গিরিলের ফাঁক দিয়ে লাঠি ডুকিয়ে কালিমূর্তি ভেঙে ফেলা হয়েছে। ভাঙা অংশ মেঝেতে পড়ে আছে। খালভাঙ্গা সার্বজনিন কালী মন্দিরের ঘরের দরজা ভেঙ্গে মূর্তি বাহির করে ভেঙ্গে পাশে ভোগাই নদীতে ফেলে দেয়া হয়েছে।
৯ নং ওয়ার্ডে কাউন্সিলর সুরুজ্জামান বলেন, রাতের আধারে কে বা কাহারা হিংসা পরায়ন হয়ে কাজটি করে থাকতে পারেন বলে ধারণা করা হচ্ছে। পুলিশ সহ জনপ্রতিনিধিরা দুটি মন্দির পরির্দশন করেছেন।
নালিতাবাড়ী থানার উপ পরির্দশক (এসআই) মো.নজরুল ইসলাম বলেন,মন্দিরের মূর্তি ভাঙ্গার বিষয়ে পুলিশকে গতকাল দুপুরে জানানো হয়েছে। দ্রুত ঘটনাস্থল এএসপি ও ওসি  পরির্দশন করেছেন। এ ব্যাপারে তদন্ত চলছে। পরবর্তীতে আইনগত প্রদক্ষে নেয়া হবে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ